Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৮ রজব ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

টিকা নিতে আগ্রহী হচ্ছে না ভারতের এক তৃতীয়াংশ মানুষ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০২১, ২:০৬ পিএম

ভারতে করোনাভাইরাসের টিকা নিতে আসেনি এক-তৃতীয়াংশ মানুষ। দেশটিতে টিকা নিতে অগ্রাধিকার পাওয়াদের মধ্যে তিন ভাগের এক ভাগ মানুষ ডোজ নেয়নি। বিষয়টি সামনে আসার পর মানুষকে টিকা নিতে উৎসাহিত করে তুলতে উদ্যোগী হয়েছে কর্তৃপক্ষ। এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আল জাজিরা।

ইতিমধ্যেই দেশটিতে টিকা নেওয়ার পর অন্তত দুজন মারা গেছেন। সরকারি ময়নাতদন্তে দেখা গেছে, টিকে নিয়ে উত্তরপ্রদেশে মারা যাওয়া ৫২ বছর বয়সী ব্যক্তি হৃৎপিণ্ড ও ফুসফুসজনিত রোগে ভুগছিলেন। কর্ণাটকে মারা যাওয়া ৪৩ বছরের ব্যক্তি মারা যান হৃৎক্রিয়া বন্ধ হয়ে।

টিকাদান কর্মসূচির প্রথম তিনদিনে অন্তত ৫৮০ জনের মধ্যে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। গত সপ্তাহে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ টিকাদান কর্মসূচি শুরু করে ভারত। চলতি বছরের জুলাইয়ের মধ্যে ৩০ কোটি মানুষকে টিকা দেয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে কর্তৃপক্ষ।

গত ১৬ জানুয়ারি শনিবার শুরু হওয়া এ কর্মসূচিতে এখন পর্যন্ত ৩ লাখ ৮১ হাজার ৩০৫ জন টিকা নিয়েছে। রাজধানী দিল্লিতে যত মানুষ টিকা নেওয়ার কথা ছিল তার মাত্র ৫৩ শতাংশ প্রথম ডোজ নিতে এসেছে।

রাজধানীতে করোনা টাস্কফোর্সের সদস্য সুনীলা গার্গ বলেন, ‘প্রথম দিকে মানুষ দেখছে, পুরো প্রক্রিয়াটা কীভাবে হচ্ছে। আত্মবিশ্বাস জোরালো হওয়ার পর টিকা নেওয়ার মানুষের সংখ্যা বাড়বে। তার জন্য ভুল তথ্য মোকাবিলা করতে হবে আমাদের।’

দ্য হিন্দুর এক খবরে বলা হয়, দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য তামিলনাড়ুতে টিকা নিতে এসেছে প্রত্যাশার মাত্র ১৬ শতাংশ।

বার্তা সংস্থা এএফপিকে একজন চিকিৎসক জানান, উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ হরিয়ানার রোহতাক জেলার একটি কেন্দ্রে ১০০ মানুষকে টিকার দেয়ার কথা ছিল, কিন্তু নিয়েছে মাত্র ২৯ জন।
ওই চিকিৎসক বলেন, ‘মানুষজন ভয় পাচ্ছে। টিকা নিতে আমরা তো তাদের জোর করতে পারি না, এটা স্বেচ্ছায় নেয়ার বিষয়।’

টিকা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অপপ্রচারের বিষয়টি উঠে এসেছে কেন্দ্রীয় সরকারের স্বাস্থ্য মন্ত্রী হর্ষ বর্ধনের ভাষ্যেও। টিকা কাজ করছে বলে টুইটারে নিজের প্রোফাইলে হেডারও পরিবর্তন করেছেন তিনি।

সংবাদমাধ্যমকে হর্ষ বর্ধন বলেন, ‘শুরু থেকেই আমরা মানুষকে সতর্ক করে আসছি যে, যেসব ভুল তথ্য প্রচার হচ্ছে সেগুলো নিয়ে যাতে চিন্তিত না হতে।’ সূত্র : আল জাজিরা



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন