Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১১ ফাল্গুন ১৪২৭, ১১ রজব ১৪৪২ হিজরী

হুমকি ধমকিতে ভোটের মাঠ ছাড়বে না বিএনপি: আমীর খসরু

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০২১, ৪:৫৩ পিএম

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সরকার পুলিশকে ব্যবহার করে বিএনপি নেতাকর্মীদের নির্যাতন করছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।
তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ এবং পুলিশের হুমকি ধমকিতে বিএনপি ভোটের মাঠ ছাড়বে না। চট্টগ্রামবাসীকে সাথে নিয়ে ভোটের অধিকার আদায় করা হবে।
আওয়ামী লীগ নির্বাচন ছাড়াই ক্ষমতা চায় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির দলীয় কার্যালয় নাসিমন ভবন মাঠে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। আমীর খসরু বিএনপি মনোনীত চসিক নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।


আমীর খসরু বলেন, সিটি করপোরেশন নির্বাচন বানচাল করার জন্য আওয়ামী লীগ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবহার করছে। গত দুই-তিনদিন ধরে পতেঙ্গা থেকে শুরু করে কালুরঘাট পর্যন্ত বিএনপি নেতাকর্মীদের বাড়িতে হানা দিচ্ছে পুলিশ। পরিবারকে হেনস্তা করছে। এলাকা ছেড়ে যেতে বলা হচ্ছে। আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর কাজ জনগনের সুরক্ষা নিশ্চিত করা। ভোটের অধিকার নিশ্চিত করা এবং সুচারু নির্বাচন করা। তারা সেই কার্যক্রম বাধাগ্রস্থ করছে। সংবিধানবিরোধী কাজ করছে তারা।

চসিক নির্বাচনের বর্তমান অবস্থা তুলে ধরে খসরু বলেন, পরবর্তী দিনগুলো কিভাবে কাটবে সেটা অনিশ্চিত। পার্টি অফিসে হামলা, বোমাবাজি, প্রার্থীর গাড়িতে হামলা, আগুন দেওয়ার মতো ঘটনা ঘটেছে। কালকে চট্টগ্রাম শহর তছনছ করেছে। কাউন্সিলর প্রার্থীকে পর্যন্ত এলাকা ছাড়তে বলছে। এমন নির্বাচনেরতো কোনো দরকার নেই। তারা যে চুরি করছে সেটা তারা জানে, জনগণ জানে, বিদেশীরাও জানে, সমস্ত বিশ্ব জানে। নির্বাচনের নামে দানব সৃষ্টি করেছে। সেই দানব ভয়ভীতির পরিবেশ সৃষ্টি করছে।

বিএনপির নির্বাচনে অংশ নেওয়ার কারণ তুলে ধরে আমির খসরু বলেন, নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণের একমাত্র কারণ গণতান্ত্রিক ধারায় জনগণ যেন উদ্বুদ্ধ হয়। অনির্বাচিত সরকারের অধীনে শুধুমাত্র গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতে নির্বাচনে এসেছি। নির্বাচনের মূল বিষয় বাংলাদেশের নাগরিকের যে প্রতিনিধিত্ব, তাদের যে ইচ্ছা, প্রত্যাশা সেটা প্রকাশ করার একমাত্র পথ হচ্ছে নির্বাচন। আমরা যদি নির্বাচন না করি তাহলে পথটা থাকবে না। সেই পথটা যেন বন্ধ না হয়, সেই পথ অব্যাহত রাখতে নির্বাচনে আসা। গণতন্ত্রের ধারা অব্যাহত রাখতে তাবেদার নির্বাচন কমিশনের অধীনে বারবার নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছি।

তিনি বলেন, এটাই শেষ নির্বাচন। এরপর আর কোনো নির্বাচন হবে কিনা আমার সন্দেহ। এই নির্বাচনের উপর অনেক কিছু নির্ভর করছে। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের পরিবেশের উপর নির্ভর করবে আগামীতে কোনো নির্বাচন হবে কিনা।

শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করে আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, নির্বাচনী কার্যক্রম চলমান রাখার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছি। গণতান্ত্রিক দল হিসাবে আমরা নির্বাচনে আছি। কিন্তু আমাদের প্রতিদ্বন্দ্বিতা যারা করছেন তারা কোনো রাজনৈতিক দল নয়, তারা একটা রেজিম। ক্ষমতা দখলে নিয়েছে এই রেজিম। তারা নির্বাচন ছাড়া ক্ষমতা চায়। নির্বাচন প্রতিরোধ করতে চায়, বাধাগ্রস্থ করতে যত প্রচেষ্টা তা করছে।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম, সহ সাংঠনিক সম্পাদক হারুনুর রশিদ, চসিক নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন, নগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাসেম বক্কর, সাবেক প্রতিমন্ত্রী জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, হুম্মাম কাদের চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক আবু সুফিয়ান, মোহাম্মদ মিয়া ভোলা, এম এ আজিজ, সাইফুল আলম, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, এরশাদ উল্লাহ, কাজী বেলাল, ভিপি নাজিম উদ্দিন, ইঞ্জিনিয়ার বেলায়েত উপস্থিত ছিলেন।



 

Show all comments
  • Kamal ২১ জানুয়ারি, ২০২১, ৭:২৫ পিএম says : 0
    সব মিথ্যা। ভোটের দিন এজেন্টই থাকবেনা।আপনারা রাস্তার নেতা নেন সচিবালয়ের মন্র্ী ছিলেন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আমীর খসরু

১২ জানুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ