Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ২০ ফাল্গুন ১৪২৭, ২০ রজব ১৪৪২ হিজরী

কঙ্গনার প্রোফাইলে টুইটার কর্তৃপক্ষের কড়া নজরদারি

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০২১, ৯:৩৯ পিএম

ওয়েব সিরিজ ‘তাণ্ডব’ নিয়ে বিতর্কিত টুইট করে ফের বিপাকে কঙ্গনা। বেগতিক দেখে পরে অবশ্য সেই টুইট ডিলিটও করে দেন তিনি। বহু নেটিজেনই সরব হন কঙ্গনার বিরুদ্ধে। তাঁদের অভিযোগ, বিদ্বেষ ছড়াচ্ছেন বলি তারকা। কঙ্গনা তাঁর একটি টুইটে ‘তাণ্ডব’ সিরিজের নির্মাতাদের উদ্দেশে লেখেন, ” ভগবান কৃষ্ণও শিশুপালের ৯৯টি ভুল ক্ষমা করে দিয়েছিলেন। প্রথমে শান্তি তারপরে বিপ্লব। ওদের মাথা কেটে ফেলার সময় হয়েছে। জয় শ্রীকৃষ্ণ।” বিজেপি নেতা কপিল মিশ্রর একটি টুইট শেয়ার করে ‘তাণ্ডব’ পরিচালকের উদ্দেশে প্রশ্ন ছোড়েন, “বলো আলি আব্বাস জাফর, আল্লাহর উপহাস করার হিম্মত আছে?”

এই টুইটের পরেই তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন কঙ্গনা। তাণ্ডবের অভিনেতা ও পুরো টিমের বিরুদ্ধে উসকানি দেওয়ার অভিযোগ ওঠে তাঁর বিরুদ্ধে। টুইটারে ট্রেন্ডিং হয় #SuspendKanganaRanaut। যার জেরে টুইটার কর্তৃপক্ষ অভিনেত্রীর প্রোফাইলে কড়া নজরদারি চালানোর কথা ঘোষণা করেন।

এরপরই এই অভিনেত্রী তাঁর সমালোচকদের উদ্দেশে ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেন, “লিবারাল গোষ্ঠী তাদের কাকু জ্যাক ডোরিসের কাছে বায়না করেছে আমার অ্যাকাউন্ট নিয়ন্ত্রণ করার জন্য। সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ন্ত্রণ করলেও এবার ছবিতে দেশভক্তি দেখাবেন তিনি। উদারনীতিকদের জীবন অতিষ্ঠ করে তুলবে”

এখানেই থেমে থাকেননি অভিনেত্রী। পাশাপাশি এও বলেন যে, “যে উদারনীতিকরা ভয়ে মায়ের কোলে কাঁদছে তাঁরা এটা পড়ুন। আমি তোমাদের মাথা কাটতে বলিনি। এটা তো আমিও জানি পোকামাকড়দের আর কৃমিদের জন্য কীটনাশকই যথেষ্ট।”


সূত্রঃ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বলিউড


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ