Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৫ রজব ১৪৪২ হিজরী

ওয়ারেন্টভুক্ত মাদক বিক্রেতার আত্মসমর্পণ

টঙ্গী সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০৬ এএম

টঙ্গীর শীর্ষ মাদক বিক্রেতা স্বপন টঙ্গী পশ্চিম থানায় আত্মসমর্পণ করেছে। সে ২টি খুন ও ২১টি মাদকসহ ২৩ মামলায় ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামি বলে জানিয়েছেন টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি মো. শাহ আলম। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে টঙ্গী পশ্চিম থানায় আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা জানান। এ সময় টঙ্গী পশ্চিম জোনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার আশরাফুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে আশরাফুল ইসলাম জানান, টঙ্গী একটি মাদক প্রবল এলাকা। অত্র এলাকায় যেসব মাদক কারবারি রয়েছে তারা যদি সেচ্ছায় আত্মসমর্পণ করতে চায় আমরা তাদের সর্বাত্মক সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেব। কেউ নিজের ভুল বুঝতে পেরে অন্ধকার পথ থেকে আলোর পথে আসতে চাইলে আমরা তাকে স্বাগত জানাবো।

জানা যায়, মাদকের অন্ধকার জগৎ থেকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার জন্য টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ ২৩ মামলায় ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামি মাহবুবুর রহমান স্বপন (৩৫)-কে গত এক সপ্তাহ ধরে টেলিফোনে ও তার পরিবারের মাধ্যমে কাউন্সিলিং করে আত্মসমর্পণে উদ্ভুদ্ধ করেন। এই ব্যাপারে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৫৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন সরকারও পুলিশকে সার্বিক সহযোগিতা করেন বলে তিনি জানান।

পুলিশের কাউন্সিলিং এ উদ্ভুদ্ধ হয়ে আত্মসমর্পণে রাজি হলে গতকাল সকাল ১১টায় টঙ্গী বাজার হাজীর মাজার বস্তিতে ওসি শাহ আলম ও সাব ইন্সপেক্টর নজমুল হুদার নেতৃত্বে একদল পুলিশের উপস্থিতিতে স্বপন স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ করেন।

আত্মসমর্পণের পর আসামি স্বপনকে টঙ্গী পশ্চিম থানায় এনে সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে ফুল দিয়ে স্বাভাবিক জীবনে স্বাগত জানানো হয়। এরপর সাংবাদিকদের ব্রিফিং শেষে তাকে গাজীপুর আদালতে সোর্পদ করা হয়। স্বপন জামালপুর জেলার ইসলামপুর থানার ফুলকারচর গ্রামের মৃত আব্বাস আলীর ছেলে। সে সাংবাদিকদের জানায়, আমার ১৩ বছরের একটি ছেলে আছে। সে লেখাপড়া করছে। আমি চাই না আমার ছেলেকে মানুষ মাদক বিক্রেতার ছেলে বলুক। সেজন্য আমি অন্ধকার থেকে আলোর জগতে ফিরতে চাই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মাদক-বিক্রেতার-আত্মসমর্পণ
আরও পড়ুন