Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৬ রজব ১৪৪২ হিজরী

প্রথমবারের মতো কৃষ্ণাঙ্গ প্রতিরক্ষামন্ত্রী পেল যুক্তরাষ্ট্র

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০২১, ৭:০২ পিএম

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবার প্রথমবারের মতো এক কৃষ্ণাঙ্গকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিয়েছেন। নতুন প্রতিরক্ষামন্ত্রীর পদ পেতে যাচ্ছেন অবসরপ্রাপ্ত সেনা জেনারেল লয়েড অস্টিন। জো বাইডেন স্পষ্টভাবে জানিয়েছেন, আগামীতে এই লয়েড অস্টিন পেন্টাগন শাসন করবেন। ২০০৩ সালে মার্কিন সেন্ট্রাল কম্যান্ডের প্রধান ছিলেন এই লয়েড। ৬৭ বছরের এই আফ্রো-অ্যামেরিকান লয়েড অস্টিন ৪০ বছরের বেশি সময় ধরে মার্কিন সেনাবাহিনীতে দায়িত্বের সাথে কাজ করেছেন। তার দিকে তাকিয়ে থাকবে গোটা বিশ্বের অগণিত কৃষ্ণাজ্ঞ মানুষেরা।

গতকাল বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) মার্কিন কংগ্রেসে ভোটাভুটিতে বিষয়টি অনুমোদিত হয়। ফলে এ পদের জন্য আর কোনো বাধা রইল না অস্টিনের। বাইডেন নিজেই এ পদের জন্য তাকে মনোনীত করেছিলেন।

আলজাজিরা জানায়, কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অব রি রিপ্রেজেন্টেটিভসে ৩২৬-৭৮ ভোটে মার্কিন সামরিক বাহিনীর দায়িত্ব নিতে অনুমোদন দেওয়া হয় অস্টিনকে। এরপর অল্প সময়ের মধ্যে উচ্চকক্ষ সিনেটে ৬৯-২৭ ভোটে বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে যায়।

আমেরিকার আইন অনুসারে, বেসামরিক বা অবসরপ্রাপ্ত সামরিক ব্যক্তিত্ব থেকে কাউকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী বানানো হয়। সামরিক কর্মকর্তাদের ক্ষেত্রে অন্তত সাত বছরের অবসর জীবন পার করতে হয়, এরপর তিনি এ পদের জন্য উপযুক্ত হন।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে সামরিক বাহিনী থেকে অবসর নেন অস্টিন। ফলে তার অবসর জীবন পুরোপুরি পাঁচ বছরও হয়নি। এরপরেও বাইডেন তাকেই তার প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে মনোনীত করেন। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য কংগ্রেসের ভোটাভুটির অপেক্ষা ছিল, এখন সেই বাধাও দূর হলো। এর ফলে প্রথমবারের মতো একজন কৃষ্ণাঙ্গকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে পেল যুক্তরাষ্ট্র।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে কংগ্রেসের অনুমোদন পাওয়ায় অস্টিনের প্রশংসা করেছেন হাউস আর্মড সার্ভিস কমিটির চেয়ারম্যান অ্যাডাম স্মিথ। তার মতে, এ পদের জন্য অনন্যভাবে যোগ্য অস্টিন। জটিল হুমকি পরিস্থিতিতে খুব দ্রুত পেন্টাগনের দায়িত্ব নেয়া উচিত তার, মনে করেন স্মিথ।

ট্রাম্প প্রশাসনের ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস মিলারের স্থলাভিষিক্ত হবেন অস্টিন। ট্রাম্পের সঙ্গে বিরোধে ২০১৮ সালে প্রতিরক্ষামন্ত্রী জিম ম্যাটিস পদত্যাগ করেন। এরপর যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ পদটিতে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারাই দেখভাল করছিলেন। সূত্র : আল জাজিরা



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন