Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ০৭ মার্চ ২০২১, ২২ ফাল্গুন ১৪২৭, ২২ রজব ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

খালি গায়ে বরফ পানিতে ডুব দিলেন প্রেসিডেন্ট পুতিন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০০ এএম

এমনিতে শারীরিক অসুস্থতা তার নেই বললেই চলে। কিন্তু গত বছর শুরুতে হঠাৎ খবর ছড়ায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন না কি খুবই অসুস্থ! শোনা যাচ্ছে পারকিনসনের সমস্যায় ভুগছেন পুতিন এবং ক্যানসারের অস্ত্রোপচারও হয়েছে তার। তাই প্রেসিডেন্ট পদ ছেড়ে অন্য কোনও যোগ্য ব্যক্তির হাতে এই দায়িত্ব তুলে দিতে পারেন। যদিও তারপর থেকে বেশ কয়েকবার সংবাদমাধ্যমের সামনে এসেছেন পুতিন এবং তার অফিসের তরফে শারীরিক সুস্থতার রিপোর্টও দেয়া হয়। কিন্তু তিনি ঠিক কতখানি ফিট, তা বোঝা গেল এইবার। রাশিয়ার অন্যতম পুরনো এক রীতি মেনে এপিফেনি ডুব দিলেন তিনি। গায়ে কোনও জামা ছাড়া, শুধুমাত্র একটি ট্রাঙ্ক পরে মাইনাস ১৭ ডিগ্রি তাপমাত্রায় বরফ পানিতে ডুব দিলেন এবং প্রতিবার বুকে ক্রস এঁকে ডুব দিয়েই চললেন তিনি! পুতিনের চেহারা দেখে এবং শারীরিক গঠন দেখে বোঝাই যাচ্ছে, তিনি যথেষ্ট সুস্থ। এবং এমন কোনও সমস্যা নেই যাতে তাঁকে প্রেসিডেন্ট পদ ছাড়তে হতে পারে। রাশিয়ায় প্রতি বছরই পুরনো রীতি মেনে, সংস্কৃতি মেনে এই এপিফেনি ডুব হয়ে থাকে। এতে অংশ নেন বহু মানুষ। চারিদিকে বরফ, মাঝে সামান্য পানির মধ্যে ডুবে স্নান করতে দেখা যায় মানুষজনকে। অনেকের দেখলে মনে হতেই পারে, নামলেই তো জমে যাবে, কিন্তু এটাই এখানকার প্রথা। গত মঙ্গলবার ক্রেমিন পুলের তরফে পুতিনের একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়, যাতে তাঁকে এই এপিফেনি ডুব দিতে দেখা যায়। চারিদিকে বরফ আর মাঝে পানিতে ডুব দিচ্ছেন তিনি। এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে প্রেসিডেন্টের মুখপত্র মিত্রি পেসকোভ জানান, এটা রাশিয়ার সংস্কৃতি এবং প্রেসিডেন্ট সংস্কৃতির অবমাননা করেন না। এর আগে পুতিনকে ২০১৮ সালেও এমন কাজ করতে দেখা গিয়েছিল।কিন্তু ২০১৯-এর ফেব্রুয়ারি মাসে তার না কি অস্ত্রোপচার হয়েছে! তাই তাঁকে এই অনুষ্ঠানে দেখা যায়নি। ২০২০ সালের নভেম্বরে প্রফেসর ভ্যালেরি সোলোভেই নামের এক সমালোচক জানান, পুতিনের পারকিনসনস হয়েছে। মস্কো ক্রেমলিনের তরফে বিষয়টি নাকচ করা হয়। জানানো হয়, রুশ প্রেসিডেন্টের কোনওরকম শারীরিক সমস্যা নেই। দিব্যি আছেন তিনি। প্রসঙ্গত, এর আগে রাশিয়ার প্রেসিডেন্টকে মাছ ধরতে, ঘোড়ায় চড়তেও দেখা যায়। সূত্র : সিএনএন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ