Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ২০ ফাল্গুন ১৪২৭, ২০ রজব ১৪৪২ হিজরী

৭০ হাজার পরিবার পেলো মুজিববর্ষে শেখ হাসিনার উপহার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ জানুয়ারি, ২০২১, ১১:৪৭ এএম

প্রথম ধাপে প্রায় ৭০ হাজার পরিবার পেলো একটি আধাপাকা বাড়ি। মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে এসব ঘর ও জমি দেওয়া হচ্ছে। এক সঙ্গে এত বিপুল সংখ্যক মানুষকে বিনামূল্যে ঘর করে দেওয়ার মধ্য দিয়ে বিশ্বে অন্যন্য নজির সৃষ্টির করলো বাংলাদেশ।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘর বিতরণের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনার ঘোষণা অনুযায়ী দেশের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ভূমিহীন, গৃহহীনদের তালিকা তৈরি করে এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী ৮ লাখ ৮২ হাজার ৩৩ পরিবারকে সরকার জমি ও ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছে। আর এ উদ্যোগটি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের আওতায় ‘দুর্যোগ সহনীয় বাড়ি প্রকল্প’, ভূমি মন্ত্রণালয়ের আওতায় ‘গুচ্ছগ্রাম প্রকল্প’ এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ‘আশ্রয়ন প্রকল্প-২’ নামে তিনটি প্রকল্পের আওতায় বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

প্রকল্পের আওতায় প্রতিটি পরিবারের জন্য ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে সেমিপাকা বাড়ি। প্রতিটি বাড়িতে থাকছে দুটি শোবার ঘর, একটা রান্নাঘর, একটা ইউটিলিটি রুম, একটি করে বারান্দা ও টয়লেট। ইটের দেয়াল, কংক্রিটের মেঝে এবং রঙিন টিনের ছাউনি ছাড়াও প্রতিটি ঘরে থাকবে ভূমিকম্পরোধক ব্যবস্থা।

জানা গেছে, প্রথম ধাপে 'ক' শ্রেণিভুক্ত ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে দুই শতাংশ খাস জমি দিয়ে ঘর তৈরি করে দেওয়া হবে। ‘ক’ শ্রেণিভুক্ত এমন পরিবারের সংখ্যা (জুন ২০২০ পর্যন্ত) ২ লাখ ৯৩ হাজার ৩৬১টি। আর ‘খ’ শ্রেণিভুক্ত অর্থাৎ যার ১-১০ জমি আছে কিন্তু ঘর নেই বা ঘর আছে খুবই জরাজীর্ণ এমন পরিবারের সংখ্যা ৫ লাখ ৯২ হাজার ২৬১টি। ‘ক’ ও ‘খ’ দুই শ্রেণিতে মোট পরিবারের সংখ্যা ৮ লাখ ৮৫ হাজার ৬২২।

দেশের একটি মানুষও গৃহহীন বা ভূমিহীন থাকবে না এমন ঘোষণা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। ২০২০ সালের ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা দিয়েছিলেন, মুজিবর্ষে দেশের কোনো মানুষ গৃহহীন থাকবে না। সরকার সকল ভূমিহীন, গৃহহীন মানুষকে ঘর তৈরি করে দেবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সেই ঘোষণা বাস্তবায়নে মাঠ প্রশাসনের কাছে নির্দেশনা পাঠানো হয়। সে অনুযায়ী শুরু হয় প্রতিটি অঞ্চলে গৃহহীনদের তালিকা তৈরির কাজ। তালিকা তৈরি শেষে শুরু হয় করে বাড়ি নির্মাণের কাজ। এরইমধ্যে প্রায় ৭০ হাজার বাড়ির কাজ শেষ হয়েছে বলে জানা গেছে।



 

Show all comments
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ২৩ জানুয়ারি, ২০২১, ৫:৪১ পিএম says : 0
    যুগের পর যুগ শতাব্দীর পর শতাব্দী অপেক্ষা করে কোন ভাগ্যবান জাতি এই রকম নেতা পেয়ে থাকেন। মাননীয় প্রধান মন্ত্রী বাংলাদেশের লক্ষ কোটি সাধারণজন মানুষের পক্ষ গভীর শ্রদ্ধা ও সালাম অভিনন্দন দোয়া। বাংলাদেশ আজ গর্ভীত বাংলাদেশ বিশ্বদরবারে বুকউচু করে দাঁড়িয়ে উন্নয়ন অগ্রগতিতে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া বাংলাদেশের স্বপ্ন সারথী বঙ্গবন্ধুর ক্ষুদা দারিদ্র্য মুক্তি সংগ্রাম পেরিয়ে এখন স্বপ্নের উন্নয়নশীল বাংলাদেশের অগ্রযাত্রার মহা সড়কে অবিরাম অবিশ্বাস্য ভাবে চলছে অব‍্যাহত ভাবে। এইশক্তি সাহসের এই মহাপরিকল্পনার সূর্য সারথী প্রধান মন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর পক্ষে উপহার মানুষের থাকার ঘর এই বিরাট মানবতার কাজ সমগ্র দেশ জাতি শ্রদ্ধা সাথেই দেখছেন। আগামীতে ঐক্যবদ্ধ জাতি হয়ে আমরা বিশ্বের মাঝেই শক্তিশালী বাংলাদেশ প্রতিষ্টা করবো। এই অগ্রযাত্রা দান সাধারণ মানুষের প্রতি প্রধান মন্ত্রী ভালোবাসা বাংলাদেশ সত্যিকার অর্থে গর্ভীত সম্মানিত হয়েছে। মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শারীরিক সুস্থতা দীর্ঘায়ু কামনা দোয়া করছি আমিন।
    Total Reply(0) Reply
  • M.M.Nobin ২৩ জানুয়ারি, ২০২১, ৬:৪৫ পিএম says : 0
    আমার একজন আত্মীয় খুবই গরিব , সে কি একটা বাড়ি পেতে পারে?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রধানমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ