Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৮ রজব ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

টিসিবির পেঁয়াজঃ ১২ কেজি পেঁয়াজ না নিলে হবে না তেল, চিনি ও ডাল

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৩ জানুয়ারি, ২০২১, ৬:৪৬ পিএম

জনপ্রতি ১২ কেজি পেঁয়াজ নিতেই হবে না নিলে হবে না তেল, চিনি ও ডাল । টিসিবির পণ্য বিক্রয়ে ৪ শত ৪০ টাকার প্যাকেজ করা হয়েছে। ওই প্যাকেজে বাধ্যতামূলক ১২ কেজি বিদেশি পিঁয়াজ, ১ কেজি চিনি, ১ কেজি ডাল ও ২ লিটার সয়াবিন তেল নিতে হবে। শুক্রবার বিকালে ট্রাকে করে কালীগঞ্জে টিসিবির পণ্য বিক্রি করতে আসা ঝিনাইদহের মানিক ট্রেডার্স নামে ডিলারের লোকজন এমন ঘোষণা দিয়ে এক ”পেয়াজ” কান্ড ঘটিয়েছেন। তবে কিছু সময় পর এ নিয়ে ক্রেতারা বিষয়টি কালীগঞ্জ ইউএনওকে অবহিত করে, বিষয়টি আচ করতে পেরেই অল্প কিছু পণ্য বিক্রি করে তারা ট্রাক নিয়ে চলে যান। এভাবেই টিসিবির ডিলাররা পণ্য বিক্রিতে সাধারণ ক্রেতাদের সাথে প্রতারণা করে চলেছেন।

ভুক্তভোগীদের মধ্যে ফিরোজ আহম্মেদ নামে এক ক্রেতা জানান, শুক্রবার বিকালে কালীগঞ্জ শহরের বৈশাখী মোড়ে টিসিবির পণ্য বিক্রি করতে আসেন ঝিনাইদহের ডিলার মানিক ট্রেডাস। এ সময় তারা প্রতিজন ক্রেতাকে বাধ্যতামূলক ১২ কেজি পিঁয়াজ নিতে হবে বলে জানায়। এবং যদি কেহ পেঁয়াজ না নেয় তাহলে তাদের অন্যান্য পণ্য তেল, চিনি ও ডাল বিক্রি করবে না বলে ঘোষণা দেয়। এসব কথা শুনে উপস্থিত ক্রেতাদের মধ্যে অনেকেই পণ্য না নিয়েই খালী হাতে ফিরে যায়। কিন্তু কেউ কেউ পণ্য না কিনতে পেয়ে ডিলারের লোকজনের সাথে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন। এমন পরিস্থিতি ও জটলা দেখে সেখানে এগিয়ে আসেন গণমাধ্যমের এক কর্মী। তিনি তাৎক্ষনিক ওই বিষয়টি কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে ফোন করে জানতে পারেন, জনপ্রতি ৫ কেজি পণ্য বিক্রির নিয়ম রয়েছে। পণ্য বিক্রয়ে প্যাকেজ বা বাধ্যতামূলক করা হয়নি। এরই মধ্যে প্রশাসনকে অবহতির বিষয়টি আচ করতে পেরে সু-চত্বুর ডিলারের লোকজন তড়িঘড়ি করে তাদের কিছু পণ্য ক্রেতাকে দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে চলে যান।

এমন বিষয়টি নিয়ে টিসিবির ডিলার ঝিনাইদহের মানিক ট্রেডাসের স্বত্তাধিকারী শরিফুল ইসলামের সাথে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি জানান, পেঁয়াজ বিক্রি না হওয়াতে গোডাউনে থেকে নষ্ট হচ্ছে। এজন্য আমরা ক্রেতাদের পেঁয়াজ নিতে ৪৪০ টাকার প্যাকেজ করেছি। আর ঝিনাইদহ শহরের টিসিবির ডিলার হয়ে কালীগঞ্জ উপজেলা শহরে পণ্য বিক্রি করার অনুমতি আছে কি ? এমন প্রশ্নের উওরে তিনি বলেন, টিসিবির কর্মকর্তা রানা সাহেব তাকে বাইরের উপজেলাতে গিয়ে পণ্য বিক্রির অনুমতি দিয়েছেন।

এ বিষয়ে জানতে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সূবর্না রানী সাহার সাথে কথা বললে তিনি জানান, একজন ক্রেতার নিকট ৫ কেজির বেশি টিসিবির পণ্য বিক্রি করা যাবে না। প্রতি ক্রেতাদের ১২ কেজি পিঁয়াজ নিতে হবে এমন কোন নিয়ম নেই। এমন অনিয়মের বিষয়ে তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঝিনাইদহ

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ