Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৪ রজব ১৪৪২ হিজরী

লাখ টাকার চাকরিতে না!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০০ এএম

ভারতের মুম্বাইয়ের বিখ্যাত নরিম্যান পয়েন্টের একটি ফার্মে বছরে ১৫ লাখ টাকার চাকরি। কিন্তু মোটা অঙ্কের চাকরির মায়া ত্যাগ করলেন পেশায় চার্টাড অ্যাকাউন্ট যুবতী। সব ছেড়ে তিনি জৈন ধর্মে দীক্ষা নিতে চলেছেন।
পুরনো বিলাসবহুল জীবন ছেড়ে, সংসারের মোহ কাটিয়ে একেবারে সাধু-সন্ন্যাসীদের মতো থাকবেন! শুনতে অবাক লাগলেও সত্যিই এমনই সিদ্ধান্তে অবিচল পায়েল শাহ (৩১) নামে মুম্বাইয়ের এক যুবতী।
জানা গেছে, আদতে গুজরাটের হলেও পায়েল এবং তার পরিবার থাকেন মুম্বাইয়ে। পায়েলের বাবার একটি ব্যবসা রয়েছে। বোন এমবিএ করার পর চাকরি করেন একটি ফার্মে। পায়েল নিজেও চার্টাড অ্যাকাউন্ট পাশ করার পর ২০১৪ সাল থেকে এক জায়গায় চাকরিও করছিলেন।

২০২০ সালে নিজের বাড়ির পাশে থাকা জৈন সন্ন্যাসিনীদের সঙ্গে পরিচয় হয় পায়েলের। এরপর ধীরে ধীরে তাদের সঙ্গে সময় কাটাতেও শুরু করেন তিনি। এক বছর তাদের সংস্পর্শে থাকার পর তার মনোভাব বদলে যেতে থাকে। শেষ পর্যন্ত জৈন ধর্ম গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন পায়েল।
তার পরিবার থেকে তিনিই প্রথম যিনি জৈন ধর্মে দীক্ষা নিতে চলেছেন। পরিবারের তরফ থেকে কোনো আপত্তি যদিও করা হয়নি। তবে যে সংস্থায় পায়েল কাজ করতেন, তারা চাকরি না ছাড়ার কথাও বলেছিল। এমনকী তার বেতন আরও বাড়িয়ে দেওয়ার কথাও জানিয়েছিল। কিন্তু পায়েল নিজের সিদ্ধান্তেই অনড়। তাই চাকরি ছেড়ে আজ রোববারই দীক্ষা নেবেন তিনি।

সচরাচর কাউকেই এই ধরনের সিদ্ধান্ত নিতে দেখা যায় না। তবে পায়েলের এই খবর সামনে আসার পর অনেকেই অবাক হয়েছেন। কেউ তাকে সমর্থন জানিয়েছেন। আবার কেউ এই ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য প্রশ্নও তুলেছেন। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন