Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৫ রজব ১৪৪২ হিজরী

প্রাথমিক শিক্ষারমত এবতেদায়ী মাদ্রাসাকে জাতীয়করণের দাবি বাংলাদেশ জামিয়াতুল মোদার্রেছীন মহাসচিব আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মাওলানা শাব্বীর আহমদ মোমতাজীর

দিনাজপুর অফিস | প্রকাশের সময় : ২৪ জানুয়ারি, ২০২১, ৬:৫৮ পিএম

বাংলাদেশ জামিয়াতুল মোদার্রেছীন এর মহাসচিব আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মাওলানা শাব্বীর আহমদ মোমতাজীর বলেছেন, সারাদেশে প্রাথমিক শিক্ষাকে জাতীয়করণ করা হয়েছে। তেমনি এফতেদায়ী মাদ্রাসাকে জাতীয়করণ জরুরি হয়ে পরেছে। ইসলামের জন্য বঙ্গবন্ধু অনেক খেদমদ করেছেন। ১৯৩৭ সালে ফুরফুরা দরবারে আসাম বেঙ্গল জামিয়াতুল মোদার্রেছীনের সৃষ্টি হয়। তখন থেকে এখন পর্যন্ত শিক্ষকদের পাশে থেকে সুযোগ সুবিধার এ সংগঠনটি কাজ করে যাচ্ছে। বর্তমানে শিক্ষকদের জনবল কাঠামো করা হয়েছে। এখন সংগঠনের মুল দাবি শিক্ষকদের জাতীয়করণ করা। মুজিব শতবর্ষ বার্ষিকীতে এফতেদায়ী শিক্ষকদের জাতীয়করণের আহবান জানান প্রধাণমন্ত্রীর কাছে। এছাড়া করোনাকালে সংগঠনের সকলকে সহযোগীতা করার জন্য অনুরোধ জানান।
তিনি আজ রোববার দুপুরে বাংলাদেশ জামিয়াতুল মোদার্রেছীন জেলা শাখার আয়োজনে সদর উপজেলার সালন্দর ইসলামীয়া কামিল মাদ্রাসা হলরুমে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ জামিয়াতুল মোদার্রেছীন জেলা শাখার সভাপতি মাওলানা মোজাহারুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে বাংলাদেশ জামিয়াতুল মোদার্রেছীন এর যুগ্ন মহাসচিব আ ন ম হাদিউজ্জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ মাওলানা ড. ইদ্রিস খাঁন, সহকারি মহাসচিব মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক, সালন্দর ইসলামীয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আলহাজ¦ মাওলানা রফিকুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন।
পরে অসহায় দুস্থ্য মানুষের জন্য জেলার পাঁচ উপজেলার বাংলাদেশ জামিয়াতুল মোদার্রেছীন এর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের হাতে ৫ শতাধিক শীতবস্ত্র (কম্বল) তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধাণ অতিথিসহ অন্যন্যরা। এসব শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয় নিজ নিজ এলাকার শীতার্ত মানুষের মাঝে বন্টনের উদ্দেশ্যে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জমিয়াতুল মোদার্রেছীন


আরও
আরও পড়ুন