Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ১২ সফর ১৪৪২ হিজরী

প্রেমের টানে পালিয়ে বিয়ে কিশোরীর পরিবারের অপহরণ মামলা অতঃপর আটক

প্রকাশের সময় : ২৯ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা

রূপগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের পিতলগঞ্জ এলাকায় প্রেমের টানে বাড়ি থেকে পালিয়ে বিয়ে করলো দুই কিশোর-কিশোরী। এ ঘটনায় কিশোরীর পরিবার থেকে অপহরণ মামলা দেয়া হয়েছে। ওই মামলা গতকাল রোববার দুপুরে পিতলগঞ্জ এলাকা থেকেই বিয়ে করা কিশোর-কিশোরীকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পিতলগঞ্জ এলাকার মানিক মিয়ার কলেজ পড়–য়া ছেলে সজল মিয়ার সঙ্গে একই এলাকার রোমান মিয়ার স্কুল পড়–য়া মেয়ে নাসরিন ওরফে নিহার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পিতলগঞ্জ এলাকার আব্দুল হক ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী নাসরিন ওরফে নিহা ও একাদশ শ্রেণীর প্রথম বর্ষের ছাত্র সজল মিয়া। গত ৫ মাস আগে উভয় পরিবারের অজান্তে তারা দু’জন বিয়ে করেন। গত ৫ আগস্ট সকালে কোচিংয়ের কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে নাসরিন ওরফে নিহা ও সজল মিয়া ফিরেনি। পরে বিয়ে করার বিষয়টি নিশ্চিত হন পরিবারের সদস্যরা। এরপর বিয়ের ব্যাপারটি জানাজানি হলে তারা ঘর-সংসার করতে শুরু করে। এছাড়া ছেলেমেয়ের ভযিষ্যতের কথা চিন্তা করে স্থানীয়ভাবে তাদের দুই পরিবারকে মিলিয়ে দেয়া হয়। এদিকে, নাসরিন ওরফে নিহার মা নুর জাহান বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ আদালতে একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। ওই মামলা দায়েরের পর নাসরিন ওরফে নিহা ও সজল মিয়াকে আটক করে পুলিশ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রেমের টানে পালিয়ে বিয়ে কিশোরীর পরিবারের অপহরণ মামলা অতঃপর আটক
আরও পড়ুন