Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ২১ ফাল্গুন ১৪২৭, ২১ রজব ১৪৪২ হিজরী

পুলিশ হেফাজত থেকে আদালতে পাঠানোর আগে আসামীর শারীরিক পরীক্ষার নির্দেশ বিচারকের

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১, ৪:০৭ পিএম

গ্রেফতার হওয়া আসামীকে পুলিশ হেফাজত থেকে আদালতে পাঠানোর আগে শরীরিক পরীক্ষা করার নির্দেশ দিয়েছেন বরিশাল জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. রফিকুল ইসলাম। বরিশাল মেট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত পুলিশ-ম্যাজিষ্ট্রেসি যৌথ সভায় এই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সভার প্রধান অতিথি জেলা ও দায়রা জজ রফিকুল ইসলাম উল্লেখিত নির্দেশ দেয়ার পাশাপাশি মামলার তদন্ত দ্রুত সময়ের মধ্যে শেষ করে আদালতে প্রতিবেদন দেয়ার জন্যও পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
বরিশাল চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট মো. কবির উদ্দিন খান প্রমানিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মহানগর পুলিশের উপ কমিশনার (ক্রাইম অপারেশন) খান মুহাম্মদ আবু নাসের, উপÑপুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা) মো. মঞ্জুর রহমান, অতিরিক্ত উপÑকমিশনার (দক্ষিণ) মো. ফজলুল করীম, মেট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট পলি আফরোজ, মো. শামীম আহমেদ, মো. আনিসুর রহমান. সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) নাসির উদ্দিন মল্লিক।

গত ২৯ ডিসেম্বর রাত সাড়ে ৮টায় নগরীর সাগরদী হামিদ খান সড়ক থেকে রেজাউল করীম নামে এক শিক্ষানবীশ আইনজীবীকে গ্রেফতার করে ওই রাতেই তার বিরুদ্ধে কোতয়ালী থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়। পরদিন, ৩০ ডিসেম্বর আদালতের মাধ্যমে অভিযুক্তকে কারাগারে পাঠানো হলে ১ জানুয়ারী রাত সাড়ে ৯টায় কারা হাসপাতালে অসুস্থ হলে রেজাউলকে শের-ই বাংলা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। ২ জানুয়ারী দিবাগত রাত ১২টা ৫ মিনিটে রেজাউল মারা যান।
রেজাউলকে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগে গত ৫ জানুয়ারী বরিশাল জেষ্ঠ্য মহানগর হাকিম আদালতে এসআই মহিউদ্দিনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করে তার পিতা। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবী করা হচ্ছে, মাদকাসক্ত রেজাউল আগে থেকেই অসুস্থ ছিল। অভিযুক্ত এসআই মহিউদ্দিনের বিচারের দাবীতে নগরীতে আন্দোলন চলাবস্থায় জেলা ও দায়রা জজ মো. রফিকুল ইসলাম গ্রেফতার হওয়া আসামী আদালতে পাঠানোর আগে শারীরিক পরীক্ষার নির্দেশ দিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ