Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১১ ফাল্গুন ১৪২৭, ১১ রজব ১৪৪২ হিজরী

চিকিৎসার নামে গোপনাঙ্গ ও চোখে মরিচের গুঁড়া

স্টাফ রিপোর্টার রংপুর থেকে : | প্রকাশের সময় : ২৮ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০১ এএম

রোগীদের চিকিৎসার নামে গোপনাঙ্গে ও চোখে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে দেয়াসহ মলমূত্র খাওয়ানো এবং শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে রংপুর নগরীর একটি মাদকাসক্তি নিরাময় ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের বিরুদ্ধে।

নগরীর মেডিকেল পূর্বগেট এলাকায় অবস্থিত ওই মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে রোগীদের নির্যাতনের অভিযোগ থাকলেও গত মঙ্গলবার রাতে ঘেরাও করে বিক্ষোভ করতে থাকেন রোগীদের স্বজন ও স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে পালিয়ে যান নিরাময় কেন্দ্রের সকলেই।
পুলিশ ও রোগীদের স্বজনরা জানান, গত মঙ্গলবার রাতে সেখানে অবস্থানরত এক রোগীকে লোহার রড দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয়। এ খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১১টার দিকে ওই রোগীর স্বজন মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্রে যান। এ সময় অন্য রোগীরা চিকিৎসার নামে নিজেদের ওপর চলা শারীরিক নির্যাতনের ফলে সৃষ্টি হওয়া ক্ষত দেখিয়ে উদ্ধারের আকুতি জানান। নির্যাতনের সময় অনেককে বিবস্ত্র করে গোপনাঙ্গ ও চোখে মরিচের গুঁড়া দেয়াসহ মলমূত্র খাওয়ানোর অভিযোগও করেন রোগীরা।
চিকিৎসার নামে চলা নির্মম নির্যাতনের খবর পেয়ে অন্যান্য রোগীর স্বজনরাও রাতেই ছুটে আসেন। এ সময় নিরাময় কেন্দ্রের লোকজন তাদের চড়াও হন। এক পর্যায়ে রোগীর স্বজনরা স্থানীয় লোকদের সহায়তায় নিরাময় কেন্দ্র ঘেরাও করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে থাকে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে নিরাময় কেন্দ্রের লোকজন কৌশলে পালিয়ে যান। পুলিশ সেখানে থাকা রোগীদের সাথে কথা বলে এবং তাদের শরীরে শারীরিক নির্যাতনের আলামত দেখে সেখান থেকে উদ্ধার করে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করে।
খবর পেয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের কর্মকর্তারাও সেখানে যান। ১০ জন রোগীর চিকিৎসার অনুমতিসহ এক সময় প্রতিষ্ঠানটির লাইসেন্স থাকলেও তা নবায়ন করা হয়নি বলে জানান কর্মকর্তারা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গোপনাঙ্গ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ