Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫, ৯ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

বিকেলের নাশতার দুই পদ

প্রকাশের সময় : ৩০ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

রিমঝিম বৃষ্টির দিনে দুপুরে কাঁঠাল দিয়ে নারিকেল আর বিকেলে চিকেন ক্রিসপি বা চিকেন ফ্রাইয়ের চমকে দিতে পারেন আপনার সংসারের ভালোবাসার মানুষগুলোকে। আপনাদের জন্য খুব সহজ এবং পুষ্টিসমৃদ্ধ দু’টি রেসিপি-এক পলকে দেখে নিতে পারেন। 

নারিকেল দিয়ে কাঁচা কাঁঠাল চপ
উপকরণ : মাঝারি সাইজের ১টা কাঁচা কাঁঠাল। ১ টি নারিকেল বাটা, ২ টেবিল-চামচ আদা বাটা, জিরা বাটা ২ টেবিল-চামচ। ভাজা জিরা ১ টেবিল-চামচ। হলুদ ১ চা-চামচ। ধনিয়া গুঁড়া ১ চা-চামচ। মাঝারি আকারের রসুন ৪টি। ৫টা বড় আকারের পেঁয়াজ। এলাচ ৫টা। দারুচিনি ৫ টুকরা। তেজপাতা ৫টা। তেল ১২৫ গ্রাম। ঘি ২ টেবিল-চামচ। মরিচ ৮ থেকে ১০টা। লবণ স্বাদমতো।
যে ভাবে রান্না করবেন : প্রথমে কাঁঠালটাকে লম্বাভাবে চার ভাগ করে কেটে ওপরের চোকলাটা ফেলে দিন। এরপর মাংসের টুকরার মতো দানাসহ কাটুন। নারিকেল ভালো করে মিহিভাবে বেটে নিতে হবে। ঘি আর ভাজা জিরা ছাড়া বাকি সব মসলা তেলের মধ্যে কষান। সঙ্গে ১ কাপ পানি দিতে হবে। মসলা তেলের ওপর আসলে নারিকেল বাটা সবটুকু দিয়ে কষাতে থাকুন। নারিকেলসহ মসলা তেলের ওপর আসল কিনা খেয়াল করে তাতে কাঁঠালের টুকরোগুলো দিন।
২ থেকে ৩ মিনিট ভালো করে নাড়তে হবে যাতে কাঁঠালের সঙ্গে মসলাটা ভালো করে মিশে যায়। এরপর ৩ কাপ পানি দিয়ে আবার নাড়তে থাকুন। জ্বাল একটু বাড়িয়ে ৫ মিনিট ঢেকে রাখতে হবে। এবার জ্বাল কমিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট রাখুন। এই সময় বারবার নেড়ে দিতে হবে। কাঁঠালের টুকরোগুলো নরম হয়ে তেলের ওপর আসলে, জিরা গুঁড়া আর ঘি দিয়ে কিছুক্ষণ পর নামিয়ে ফেলুন।
ক্রিসপি চিকেন
উপকরণ: মাঝারি সাইজের একটি মুরগি। ৮ টুকরো করে কাটা, ঘন দুধ আধা কাপ, আটা ময়দা ১কাপ, লবণ স্বাদ মতো, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, সরিষা গুঁড়া পরিমাণ মতো, পটেটো চিপস আধা কাপ, তেল পরিমাণ মতো।
তৈরী করার নিয়ম: প্রথমে চিপসগুলো হাতে চাপ দিয়ে ভেঙ্গে নিন। একটি পলেথিন ব্যাগে ময়দা, লবণ, গোলমরিচের গুঁড়া, ভাঙ্গা চিপস, সরিষা গুঁড়া দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। মুরগির টুকরোগুলো দুধের মধ্যে কিছুক্ষণ রেখে তুলে নিন। এবার মাংসের টুকরোগুলো ময়দার মিশ্রণে দিয়ে প্যাকেটের মুখ বন্ধ করে আধা থেকে এক ঘন্টা রেখে দিন। এবারে একটি পাত্রে তেল দিয়ে গরম করে মাংসগুলো দিন। কিছুক্ষণ পর চুলার আচঁ কমিয়ে ঢাকনা দিয়ে ভাজতে থাকুন। এতে মাংসের ভেতরটা সেদ্ধ হয়ে যাবে কিন্তু মচমচে হবে না। মচমচে করতে এবার ঢাকনা খুলে দিন এবং চুলার আচঁ বাড়িয়ে সোনালী করে ভেজে তুলুন। নিজেদের পছন্দের সস দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।
য় সুমনা শামস



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ