Inqilab Logo

রোববার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ক্লপ বললেন, ‘এটাই লিভারপুল’

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০২ এএম

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা ধরে রাখার অভিযানে বাজে সময়ের মধ্যে দিয়ে যাওয়া লিভারপুল অবশেষে দিল স্বরূপে ফেরার আভাস। টটেনহ্যাম হটস্পারকে উড়িয়ে পয়েন্ট টেবিলের সেরা চারে ফিরেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। গত মাসে লিগে প্রথম দেখায় অ্যানফিল্ডে ২-১ গোলে হোসে মরিনহোর দলকে হারিয়েছিল লিভারপুল।
গতপরশু রাতে প্রতিপক্ষের মাঠে ৩-১ গোলে জিতেছে শিরোপাধারীরা। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে রবার্তো ফিরমিনোর গোলে এগিয়ে যায় সফরকারীরা। দ্বিতীয়ার্ধের একদম শুরুতে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ট্রেন্ট আলেকজান্ডার-আর্নল্ড। ম্যাচের ৪৯তম মিনিটে পিয়েরে-এমিল হয়বিয়ার্গের লক্ষ্যভেদে ব্যবধান কমায় স্বাগতিকরা। কিন্তু স্পার্সের ফেরার আশা নস্যাৎ করে ৬৫তম মিনিটে লিভারপুলের জয় নিশ্চিত করে সাদিও মানে। তার আগে মোহাম্মদ সালাহও একবার জালে বল পাঠান। কিন্তু আক্রমণকালে ফিরমিনোর হাতে বল লাগায় ভিএআরের সাহায্য নিয়ে গোলটি বাতিল করেন রেফারি। টটেনহ্যামের একমাত্র গোলদাতা পিয়ের-এমিল হয়বিয়ার্গ।
হতাশার প্রহর কাটিয়ে পাঁচ ম্যাচ পর লিগে জয়ের স্বাদ পেল লিভারপুল। এর দুটিতে তারা হেরেছিল, ড্র তিনটি। একই সঙ্গে লিগে চার ম্যাচের গোলখরাও কাটিয়েছে তারা। ২০ ম্যাচে ১০ জয় ও সাত ড্রয়ে ৩৭ পয়েন্ট নিয়ে চারে আছে লিভারপুল। এক ম্যাচ কম খেলে ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে ছয়ে টটেনহ্যাম। ২০ ম্যাচে ৩৯ পয়েন্ট নিয়ে লেস্টার সিটি তিনে, এক পয়েন্ট বেশি নিয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড দুইয়ে আছে। ১৯ ম্যাচে ৪১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ম্যানচেস্টার সিটি।
কী বাজে সময়টাই না কাটছিল লিভারপুলের! সেই দুর্দশা কাটিয়ে অবশেষে জয়ে ফিরেছে অলরেডসরা। এতে স্বভাবতই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন দলটির কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ। ম্যাচশেষে এই জার্মান বলেছেন, লিভারপুলের মতো দলের যেভাবে খেলা উচিত, মাঠে সেভাবেই খেলেছে তার শিষ্যরা। স্বরূপে ফেরার আভাস দিয়ে পূর্ণ পয়েন্ট পাওয়ার পর ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিটি স্পোর্টসের কাছে ক্লপ জানিয়েছেন দলের পারফরম্যান্স নিয়ে সন্তুষ্টির কথা, ‘আমি আজ (বৃহস্পতিবার) যা দেখলাম, এর সঙ্গে ফর্মের কোনো সংযোগ নেই। বরং আমরা কী তা-ই দেখিয়েছি। এটাই আমরা। বিশেষ করে, দ্বিতীয়ার্ধের পুরোটা জুড়ে কেবল আমরাই ছিলাম। দুর্দান্ত একটি লড়াই হয়েছে, যেখানে সবকিছুর ঊর্ধ্বে ছিল ফুটবল।’
তবে চোটে জর্জরিত লিভারপুল পরিপূর্ণ প্রশান্তি নিয়ে খেলা শেষ করতে পারেনি। প্রথমার্ধের শেষদিকে মাঠ ছাড়তে হয় জোয়েল মাতিপকে। পরবর্তীতে এই ডিফেন্ডারের গোড়ালির লিগামেন্টে চোটের বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে। এ প্রসঙ্গে ক্লপ বলেছেন, ‘আমরা সঠিক সময়ে গোল করেছি। অসাধারণ সব গোল। সঠিক খেলোয়াড়রাই গোল করেছে। কেবল মাতিপের মাঠ ছেড়ে যাওয়া ছাড়া অবশ্যই সবকিছু ভালো ছিল।’
ভার্জিল ভ্যান ডাইকসহ লিভারপুলের অধিকাংশ ডিফেন্ডার রয়েছেন চোট থেকে সেরে ওঠার লড়াইয়ে। মাতিপের চোট তাই দলটির জন্য মরার উপর খাঁড়ার ঘায়ের মতো। সংকট থেকে উত্তরণে নতুন খেলোয়াড় কেনা হবে কিনা জানতে চাওয়া হলে ক্লপ জবাব দিয়েছেন, ‘আমরা সঠিক কাজটা করার চেষ্টা করি এবং আমাদের সঠিক কাজটাই করতে হবে। আমি মাত্রাতিরিক্ত সতর্ক হতে চাই না। কিন্তু আমাদের সঠিক খেলোয়াড়কে খুঁজে বের করতে হবে। আমাদের স্কোয়াডে খেলোয়াড় রয়েছে। তবে রক্ষণভাগে যা ঘটছে, তা রীতিমতো অবিশ্বাস্য।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লিভারপুল

১০ জানুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন