Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

দরিদ্র দেশগুলোকে অপেক্ষা করতে হবে ২০২৩ পর্যন্ত

ভ্যাকসিন নিয়ে নৈতিক ব্যর্থতার দ্বারপ্রান্তে বিশ্ব

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০১ এএম

ওয়ার্ল্ড হেল্থ ওর্গানাইজেশন-ডব্লিউএইচও ঘোষণা করেছে যে, করোনা ভ্যাকসিনের অসম আন্তর্জাতিক বিতরণের কারণে বিশ্ব ‘একটি বিপর্যয়কর নৈতিক ব্যর্থতার দ্বারপ্রান্তে’ অবস্থান করছে। গেল ১৮ জানুয়ারি ডব্লিউএইচও ’র মহাপরিচালক টেড্রস অ্যাধনম ঘেব্রেইসাস সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ‘শেষ পর্যন্ত, এসব কার্যকলাপ মহামারিকে দীর্ঘায়িত করবে, এটিকে ঠেকানোর জন্য প্রয়োজনীয় বিধিনিষেধ এবং মানবিক ও অর্থনৈতিক দুর্ভোগকে বাড়িয়ে তুলবে।’

দি ইকোনমিস্টের সহযোগী সংস্থা ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (ইআইইউ)-এর একটি প্রতিবেদন অনুরূপ পূর্বাভাস দিয়ে বলেছে, আমেরিকা, ব্রিটেন এবং বেশিরভাগ ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ প্রমাণিত ভ্যাকসিনের অ্যাক্সেস পাওয়া দেশগুলো মার্চের মাঝামাঝি নাগাদ তাদের সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ নাগরিকদের টিকা দেয়া সম্পন্ন করবে। (ব্রিটিশ ওষুধ নির্মাতা অ্যাস্ট্রাজেনেকার বিলম্বিত ভ্যাকসিন সরবরাহের কারণে ইইউর সময়সূচিটি পিছিয়ে যেতে পারে) অন্যান্য ধনী দেশগুলো সম্ভবত জুনের মধ্যে সেই কাজটি সম্পন্ন করবে।

তবে, বেশিরভাগ মধ্য আয়ের দেশ ২০২২ সালেও এ সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হবে না। একমাত্র ব্যতিক্রম রাশিয়া। তার উৎপাদিত ‘স্পুতনিক ভি’ ভ্যাকসিনের কল্যাণে তার জনগণকে করোনা টিকাদানের কাজটি সম্পন্ন করতে পারে। (চীন ও ভারতেরও নিজস্ব ভ্যাকসিন রয়েছে, তবে তাদের জনসংখ্যার আকারের ফলে সম্ভবত টিকাদানের দ্রæততায় পিছিয়ে থাকবে) এবং দরিদ্র দেশগুলোকে জীবনযাত্রা স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসার জন্য পর্যাপ্ত টিকাদানের জন্য ২০২৩ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হতে পারে।

এর বেশ কয়েকটি কারণ রয়েছে। কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনগুলোর সীমিত সংস্থান এবং উৎপাদন সীমাবদ্ধতা কয়েক বছর ধরে বিশ্বব্যাপী সরবরাহকে স্তিমিত করে দেবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এ কারণেই প্রায়োগিক পরীক্ষায় ভ্যাকসিনগুলো নিরাপদ এবং কার্যকর ঘোষণা করার বহু আগেই বেশিরভাগ দেশ গত বছর ফার্মাসিউটিক্যাল সংস্থাগুলোর সাথে চুক্তি করতে হামলে পড়েছিল। মূল ভ্যাকসিন উৎপাদকরা ২০২১ সালের মধ্যে যে ১২.৫ বিলিয়ন ডোজ দেয়ার প্রতিশ্রæতি দিয়েছিল, তার মধ্যে ৬.৪ বিলিয়ন ইতোমধ্যে অর্ডার করা হয়ে গেছে। প্রধানত ধনী দেশগুলো তাদের জনসংখ্যার জন্য প্রয়োজনীয় টিকার চেয়ে আরও অনেক বেশি ডোজ ভ্যাকসিন কিনে নিয়েছে।

বেশিরভাগ দরিদ্র দেশকে ডবিøউএইচও’র সহ-নেতৃত্বে ভ্যাকসিন বিলিকরণ জোট কোভ্যাক্সের উপর নির্ভর করতে হবে। কোভ্যাক্স প্রতিটি দেশের জনসংখ্যার কেবলমাত্র ২০ শতাংশের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে করোনা টিকা সরবরাহ করতে পারবে এবং এমনকি তা সময় মতো সরবারাহ করা সম্ভব নাও হতে পারে। কারণ ধনী দেশগুলো তাদের নিজেদের জন্য যথেষ্ট মনে না করা পর্যন্ত ভ্যাকসিন মজুদ করতে থাকবে। এমনকি তারা যথেষ্ট টিকা মজুদ করার পরেও, দরিদ্র দেশগুলোকে তাদের নাগরিকদের টিকা দেয়ার ব্যয় এবং রসদ নিয়েও লড়াই করতে হতে পারে।
যেসব দেশ খুব শিগগিরই ভ্যাকসিন উপলব্ধ করতে পারবে, তারা নিঃসন্দেহে খুব কম কোভিড সংক্রমণ, হাসপাতাল এবং মৃত্যুর মুখোমুখী হবে। দ্রæততম টিকাদানের অর্থনৈতিক সুবিধাগুলোও থাকবে। ইআইইউ পূর্বাভাস দিয়েছে যে, সমৃদ্ধ দেশগুলোর টিকা দেয়ার প্রচেষ্টা চলতি বছরের দ্বিতীয়ার্ধে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির ক্ষেত্রে সহায়ক হবে।

তবে ডবিøউএইচও হুঁশিয়ারি দিয়েছে যে, দরিদ্র দেশগুলোতে দীর্ঘ লকডাউনের প্রভাব তাদের বাণিজ্য ও সরবরাহ চেইনেও পড়বে এবং অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে এবং ভ্যাকসিনের ক্রমাগত চাহিদা কিছু দেশকে তাদের আধিপত্য বিস্তারের নতুন উপায় দেবে। রাশিয়া এবং বিশেষত চীন ইতোমধ্যে ‘ভ্যাকসিন ক‚টনীতিতে’ জড়িত হতে শুরু করেছে। তারা বিশ্বব্যাপী তাদের প্রভাব বাড়ানোর অন্যতম উপায় হিসাবে সারির পেছনে থাকা দেশগুলোকে তাদের তৈরি ভ্যাকসিন গ্রহণের প্রস্তাব দিয়েছে। সূত্র : দ্য ইকোনোমিস্ট।



 

Show all comments
  • Atm Abdur Rahim ৩০ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:৪৭ এএম says : 0
    তাড়াহুড়ায় বের করা ভ্যাক্সিন খুব ভালো কার্যকর হবে না এটাই স্বাভাবিক!!
    Total Reply(0) Reply
  • জয় বাংলাদেশ ৩০ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:৪৭ এএম says : 0
    যে দেশ থেকে টিকা এসেছে সেই খবর দেখলে মনটা কেঁপে উঠে তখন ভাবী টিকা নেবো কি নেবো না
    Total Reply(0) Reply
  • Alihosain Shohag ৩০ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:৪৮ এএম says : 0
    এতো জবাব নেই যার খুশী নিবে যার ইচ্ছে নিবে না
    Total Reply(1) Reply
    • Ali Hussain ৩০ জানুয়ারি, ২০২১, ৩:৪৫ পিএম says : 0
      Opponents of the vaccine are now quite silent.
  • Nabi Newaz ৩০ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:৪৮ এএম says : 0
    করোনা টিকা নেওয়ার পর ও ইসরাইলে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ দেখা দেয়ার ফলে সমস্ত ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Manzurul Islam ৩০ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:৪৮ এএম says : 0
    নিশ্চয় করোনা ভাইরাসের উপসর্গের উপর গবেষণা করে এই ভ্যাকসিন তৈরী কিন্তু করোনার উপসর্গ তো পরিবর্তনশীল তাই এটা কতটা কার্যকরী হবে সেটা দেখার বিষয়
    Total Reply(0) Reply
  • Khokon Ibrahim ৩০ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:৪৯ এএম says : 0
    এখন ভেক্সিনের ব্যাপারে কোনো নির্দিষ্ট সীদ্ধান্তে কেউ আসতে পারেন নাই! যা হচ্ছে টিকা নিয়ে রাজনীতি আর জয় মানসিকতা! অপেক্ষায় থাকলাম সেদিনের যেদিন ভ্যাক্সিনের ব্যাপারে একটা নির্দিষ্ট সীদ্ধান্তে আসবে, তখন ভেবে দেখবো! এখন গিনিপিগ হওয়ার কোনো ইচ্ছে নেই!
    Total Reply(0) Reply
  • Arodhy Moon ৩০ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:৫০ এএম says : 0
    বিশ্বে টিকার শতভাগ কার্যকারিতা এখনো নিশ্চিত হয়নি।এখন পর্যন্ত যা লক্ষ্য করা যাচ্ছে, তা হলো টিকা বাণিজ্য এবং কূটনৈতিক দৌড়ঝাঁপ।
    Total Reply(0) Reply
  • হিরন ৩০ জানুয়ারি, ২০২১, ৮:৫৩ এএম says : 0
    বরং আমরা আশা করু আল্লাহ দ্র‍্যত এ মহামারী থেকে আমাদের রক্ষা করুন, টিকা ছাড়াই।আলহামদুলিল্লাহ প্রকোপ অনেক দ্রুত কমতেছে।আল্লাহু হাফেজিন।
    Total Reply(0) Reply
  • Ali+Hussain ৩০ জানুয়ারি, ২০২১, ৩:৫১ পিএম says : 0
    WHO's press said, Forty poor country in Africa have recived only fifteen vaccine.Bangladesh is a lucky country and India is helping with vaccine.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভ্যাকসিন

১৮ জানুয়ারি, ২০২২
৪ জানুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন