Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

যুদ্ধাপরাধীর সন্তানরা সরকারি চাকরি পাবে না -মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

প্রকাশের সময় : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

নেত্রকোনা জেলা সংবাদদাতা : মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, বর্তমান সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে নিরলস কাজ করছে। সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা ৫ হাজার টাকা থেকে বৃদ্ধি করে ১০ হাজার টাকা করেছে। আগামী জুলাই মাস থেকে সরকারি হাসপাতালগুলোতে অসুস্থ মুক্তিযোদ্ধাদেরকে সকল প্রকার পরীক্ষা নিরীক্ষাসহ যাবতীয় চিকিৎসা সেবা ও প্রয়োজনীয় ওষুধপত্র বিনা মূল্যে প্রদান করা হবে। মুক্তিযোদ্ধাদেরকে দুটি বোনাস দেয়া হবে। হতদরিদ্র ও অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সরকারি উদ্যোগে আবাসন নির্মান করা হবে। তিনি আরো বলেন, যারা মুক্তিযুদ্ধের মীমাংসিত বিষয়কে বিতর্কিত করার চেষ্টা করবে তাদের বিচার করা হবে। এদেশে ইসলামের নামে রাজনীতি করতে কোন বিধিনিষেধ নেই। জামায়াতে ইসলামী কোন ইসলামী দল নয়। তারা যুদ্ধাপরাধীর দল হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। শীঘ্রই জামায়াত ইসলামীকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হবে। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ও রায় কার্যকর করা হচ্ছে। যারা রাজাকার, আল-বদর, আল-সামস্ ছিল তাদের নাম ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেয়া হবে। সরকারি কোন সুযোগ-সুবিধা তারা পাবে না। যুদ্ধাপরাধীর সন্তানরা সরকারি চাকরি পাবে না। তিনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নতুন প্রজন্মকে গড়ে তুলতে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার উদাত্ত আহŸান জানান। তিনি গতকাল শনিবার সকালে নেত্রকোনা জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন উদ্বোধন উপলক্ষে পুরাতন কালেক্টরেট প্রাঙ্গণের মুক্তমনা মঞ্চে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে এসব কথা বলেন।
জেলা প্রশাসক ড. তরুণ কান্তি শিকদারের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জেলা পরিষদ প্রশাসক আলহাজ্ব মতিয়র রহমান খান, সাধারণ সম্পাদক সাবেক সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খান খসরু, পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নূরুল আমিন, পৌর মেয়র আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম খান, ডেপুটি কমান্ডার এখলাছ আহমেদ কোরাইশী, আটপাড়া উপজেলা কমান্ডার আব্দুর রাজ্জাক, বারহাট্টা উপজেলা কমান্ডার শাহ্ আব্দুল কাদের ভাÐারী প্রমুখ।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ