Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২২ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ব্যথার ওষুধ কতটা ক্ষতিকর

প্রকাশের সময় : ৩১ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ঘাড়, কোমর, হাঁটুসহ শারীরিক ব্যথাক্রান্ত বেশিরভাগ মানুষের ব্যথা কমানোর প্রধান অবলম্বন হয়ত ব্যথানাশক ওষুধ। কিন্তু আমরা কখনো কি ভেবে দেখেছি ব্যথার ওষুধ কতটা ক্ষতিকর! ব্যথার ওষুধ গ্যাস্ট্রিক আলসার তৈরি করে অথবা কিডনির উপর এর নেতিবাচক প্রভাব আছে এটা প্রায় সবার জানা। কিন্তু অতি সম্প্রতি আমেরিকান কার্ডিয়াক সোসাইটি জানাচ্ছে সবচেয়ে সহনশীল ব্যথানাশক আইবুপ্রোফেনও হার্ট এটাকের জন্য দায়ী হতে পারে। অন্যান্য শক্তিশালী ব্যথানাশক যেমন- ডাইক্লোফেনাক, এসিক্লোফেনাক বা এন্ডোমেথাসিনের বেলায় ঝুঁকি আরও অনেক অনেক বেশি। তাই ব্যথা হলেই ব্যথানাশক নয়।
ব্যথার ওষুধের বিকল্প আছে কি : পৃথিবী যত উন্নত হচ্ছে মানুষ তত পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াহীন চিকিৎসার দিকে ঝুঁকছে। সামান্য ব্যথা সারাতে কিডনি বা হৃদযন্ত্রকে আঘাত করতে কেউই চাইবেন না। তাই সারা বিশ্বে ব্যথার ওষুধবিহীন ব্যথার চিকিৎসা দিন দিন জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে কারণ নির্ণয় করে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াহীন ব্যথার চিকিৎসা করা যায়। কিছু সাধারণ শারীরিক ও কিছু প্যাথলজিক্যাল পরীক্ষার মাধ্যমেই খুব সহজেই ব্যথার প্রকৃত কারণ নির্ণয় করা সম্ভব। আর সেই অনুযাই ব্যবস্থা নিলে বেশিরভাগ শারীরিক ব্যথার চিকিৎসা ব্যথানাশক ওষুধ ছাড়াই করা সম্ভব। যেমন ধরুন, আপনি ফ্রোজেন সোল্ডারে আক্রান্ত। মাসের পর মাস ব্যথানাশক সেবনেও আপনার কাঁধ ব্যথা ভালো নাও হতে পারে। অথচ ব্যথা শুরুর সাথে সাথে কিছু থেরাপিউটিক এক্সারসাইজ বা ইলেক্ট্রোথেরাপির শুরু করলে খুব সহজেই এই রোগ নির্মূল করা যায়। এ ক্ষেত্রে রোগীকে খুব সচেতন হতে হবে। ব্যথা হলেই ব্যথার ওষুধ সেবন না করে ব্যথার কারণ নির্ণয় করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।
গত কয়েক মাস আগে একজন ব্যথার রোগীর সাথে পরিচিত হলাম যিনি কোমর ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে তিন মাস ব্যথানাশক সেবন করেছেন। তার অভিযোগ ছিল, ওষুধ খেয়ে সাময়িক মুক্তি মিলছে বটে কিন্তু ওষুধ বন্ধ করলে আবার ব্যথা ফিরে আসছে। ইতিহাস নিয়ে জানা গেল উনি দিনে ৯/১০ ঘণ্টা বসে কাজ করেন। তার বসার চেয়ার বদল, কিছু বিজ্ঞান সম্মত ব্যায়াম আর ইলেক্ট্রথেরাপি তাকে ব্যথামুক্ত জীবন উপহার দিয়েছে।
শেষ কথা : শারীরিক ব্যথা থেকে মুক্তি পাবার মূলমন্ত্র হলো ব্যথার কারণ নির্ণয়। ব্যথার প্রকৃত কারণ নির্ণয়ে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন এবং পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াহীন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ থাকুন।
ষ ডাঃ মোহাম্মদ আলী
বিভাগীয় প্রধান, ফিজিওথেরাপি বিভাগ
উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, উত্তরা, ঢাকা।
মোবাইল- ০১৮৭২-৫৫৫৪৪৪



 

Show all comments
  • abu taleb ১৪ জুলাই, ২০১৮, ৭:১৫ পিএম says : 0
    আমার পয়ের একটা রগ টানান পড়ার কারনে আমাকে একটি এসিক্লোফেনাক ট্যাবলেট দিয়েছে আরও তিন প্রকারের ঔষধ তা Rantin,calcium Carbonate,মাসলোফেন ইত্যাদি তা আমি এগুলো খাব কি ।
    Total Reply(0) Reply
  • মাঃছাদিকুর রহমান ৩ জানুয়ারি, ২০১৯, ১১:৫১ পিএম says : 0
    আমাকে এটা দেয়া এসিকেলাফেনাক ঘাড়ের ব্যাতার জন্য
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন