Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৮ আষাঢ় ১৪২৮, ১০ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

ভবিষ্যতের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন কাশ্মীরের জনগণ : ইমরান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:০১ এএম

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, পাকিস্তানে যোগ দেওয়া কিংবা স্বাধীন থাকার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে কেবল কাশ্মীরের জনগণ। ভবিষ্যতে পাকিস্তানের পক্ষে ভোট দিলেও তাদের জন্য এ সুযোগ থাকবে। দেশটির জাতীয় ইংরেজি দৈনিক ডন জানায়, শুক্রবার কাশ্মীর সংহতি দিবসে আজাদ জম্মু ও কাশ্মীরের (এজেকে) কোটলি জেলায় এক জনসভায় তিনি এ কথা বলেন। ইমরান খান বলেন, আপনারাই আপনাদের ভবিষ্যতের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন। তিনি বলেন, আল্লাহর ইচ্ছায় কাশ্মীরের জনগণ পাকিস্তানের পক্ষে তাদের সিদ্ধান্ত নিলেও আমি ঘোষণা করছি, আপনারা স্বাধীনতা নাকি পাকিস্তানের অংশ হওয়াকে বেছে নিবেন সেই সুযোগ আপনাদের অবশ্যই দেয়া হবে। এটা হবে আপনাদের অধিকার। ইমরান খান এসময় মনে করিয়ে দেন, কাশ্মীরের জনগণের ইচ্ছায় তাদের ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করার যে প্রতিশ্রুতি জাতিসংঘ ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় দিয়েছিল, তা রক্ষায় তারা ব্যর্থ হয়েছে। তিনি জানান, ১৯৪৮ সালে জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলের রেজ্যুলেশন অনুযায়ী, কাশ্মীরের জনগণ নিজেদের ভবিষ্যতের সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার পাবে। ইমরান খান বলেন, ‘প্রথমত আমি বিশ্বকে স্মরণ করিয়ে দিতে চাই, কাশ্মীরের জনগণের অধিকারের প্রতিশ্রুতি পূরণ হয়নি।’ কাশ্মীরের জনগণের উদ্দেশ্যে ইমরান বলেন, ‘যখন ভারত অধিকৃত কাশ্মীরের পাশাপাশি আজাদ কাশ্মীরের বাসিন্দারাও তাদের ভবিষ্যতের সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার পাবে ও যখন কাশ্মীরের জনগণ পাকিস্তানকে বেছে নেবে, ইনশাআল্লাহ, তখনও তারা পাকিস্তানের অংশ হতে চান বা স্বাধীন থাকতে চান তা ঠিক করার অধিকার দেবে পাকিস্তান।’ ইমরান বলেন, ‘অধিকৃত কাশ্মীরের জনগণের পাশে পুরো পাকিস্তান আছে এবং কেবল পাকিস্তানই নয়, মুসলিম বিশ্ব তাদের পাশে আছে। এমনকি ন্যায়ের পক্ষে থাকা অমুসলিমরাও বিশ্বাস করেন যে, কাশ্মীরিদের তাদের প্রতিশ্রুত অধিকার দেওয়া উচিত।’ ইমরান খান আরও বলেন, ‘আমার যতটুকু শক্তি আছে, আমি প্রতিটি ফোরামে আপনাদের হয়ে আওয়াজ তুলব। আমি তা করছি এবং অব্যাহত রাখব।’ ‘আমি কাশ্মীরের শুভেচ্ছা দূত হব এবং কাশ্মীর যতদিন না স্বাধীনতা অর্জন করছে, আপনাদের পক্ষে সবখানে আমি আওয়াজ তুলব’, বলেন তিনি। ডন, এনডিটিভি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কাশ্মীরের-জনগণ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ