Inqilab Logo

বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৪ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

ইরানের পরমাণু সমঝোতায় ফিরতে বাইডেনকে চিঠি দিলেন সাবেক ৪১ কূটনীতিক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৯:৪৫ এএম

আমেরিকার ৪১ জন সাবেক কূটনীতিক ও সেনা কর্মকর্তা তাদের দেশকে ইরানের পরমাণু সমঝোতায় ফিরিয়ে আনার জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে চিঠি দিয়েছেন। তারা তাদের চিঠিতে বলেছেন, আমেরিকাকে অবিলম্বে ইরানের পরমাণু সমঝোতায় ফিরিয়ে নেয়ার জন্য বাইডেন প্রশাসনের উচিত সর্বোচ্চ চেষ্টা চালানো।

রাশিয়াভিত্তিক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম স্পুতনিক গতকাল (শনিবার) এ খবর জানিয়েছে। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার প্রশাসন ২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতায় সই করলেও ২০১৮ সালে তার পরবর্তী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ওই সমঝোতা থেকে আমেরিকাকে বেআইনিভবে বের করে নিয়েছিলেন।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন গত বছরের নভেম্বরের নির্বাচনের আগে প্রচারণায় একাধিকবার আমেরিকাকে পরমাণু সমঝোতায় ফিরিয়ে আনার আগ্রহ প্রকাশ করলেও ক্ষমতা গ্রহণের পর তিনি এখন পর্যন্ত এ ব্যাপারে কোনো পরিকল্পনা পেশ করেননি। অবশ্য তিনি জলবায়ু চুক্তিতে ফিরে যাওয়ার ব্যাপারে নিজের নির্বাচনি প্রতিশ্রুতি ক্ষমতা গ্রহণের দিনই পূরণ করেছেন।

বাইডেনের টিমের সহযোগীরা অস্পষ্ট বক্তব্যে বলছেন, তারা পরমাণু সমঝোতাকে আরো দীর্ঘমেয়াদি ও শক্তিশালী করার লক্ষ্যে এই সমঝোতায় ফেরত আসার বিষয়ে দেরি করছেন। সম্প্রতি মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন বলেছেন, ইরানের পরমাণু সমঝোতায় পুরোপুরি ফিরে আসার জন্য এখনো অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে।

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৮ সালের মে মাসে ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে তার দেশকে বের করে নিয়ে তেহরানের ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন। ইরান বিষয়টি নিয়ে আমেরিকাসহ ইউরোপীয় দেশগুলোকে এক বছর পর্যন্ত সময় দিয়ে ২০১৯ সালের মে মাস থেকে এই সমঝোতায় দেয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের কাজ কমাতে শুরু করে। সম্প্রতি ইরান ২০ মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করার কাজ শুরু করেছে যা পরমাণু সমঝোতায় দেয়া সাড়ে তিন শতাংশের চেয়ে অনেক বেশি।

সূত্র: পার্সটুডে



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইরান-যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ