Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

মঠবাড়িয়ায় যুবলীগ সভাপতিকে কুপিয়ে জখম ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকসহ ৬৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা গ্রেপ্তার ৯

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৪:২৯ পিএম

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় দলীয় কোন্দলের জেরে উপজেলা যুবলীগ সভাপতি আবু হানিফ খানকে সোমবার সন্ধ্যায় যুবলীগের কার্যালয়ের সামনে কুপিয়ে জখম করেছে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা। এঘটনায় উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক নজরুল সোহেল বাদী হয়ে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শরিফুল ইসলাম রাজু ও সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান মর্তুজা সহ ৬৩ জনকে আসামী করে মঠবাড়িয়া থানায় মামলা করেছে। পুলিশ সোমবার রাতে অভিযান চালিয়ে ৯ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ রাখতে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে মঙ্গলবার দুপুরে প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছে উপজেলা যুবলীগ। মঙ্গলবার দিনভর বিভিন্ন ইউনিয়ন বাজারে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
থানা সূত্রে জানাযায়, গত রোববার রাতে স্বেচ্ছাসেবক লীগ এক নেতাকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করার ঘটনায় ছাত্রলীগের ১৭ নেতা-কর্মীর নামে থানায় একটি মামলা হলে পুলিশ একজনকে গ্রেপ্তার করে। এ নিয়ে দুই গ্রুপ সোমবার বিকেলে পাল্টা-পাল্টি প্রতিবাদ সমাবেশ করে। এ সময় হামলাকারীদের বিচারের দাবীতে সমাবেশে যোগ দিতে আসা স্বেচ্ছাসেবক লীগ কর্মী রানা মালকে কুপিয়ে আহত করে প্রতিপক্ষরা। এতে দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে সন্ধ্যার পর যুবলীগ ও ছাত্রলীগের একটি গ্রুপ উপজেলা যুবলীগ সভাপতি আবু হানিফ খানকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এ সময় হামলাকারীরা উপজেলা যুবলীগ অফিস ভাংচুর করে। আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাতেই উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
মঠবাড়িয়া থানার ওসি মাসুদুজ্জামান জানান, দলীয় অভ্যন্তরীন কোন্দলের জের ধরে হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় উপজেলা যুবলীগ সভাপতিসহ দুইজন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় ৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পৌর শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি বর্তমানে নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।
এদিকে এঘটনার প্রতিবাদে মিরুখালী বাজারে মঙ্গলবার সকালে ব্যবসায়ীরা অর্ধ দিবস দোকান পাট বন্ধ রাখে। এসময় প্রতিবাদ সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ বক্তব্য রাখেন মিরুখালী ইউনিয়ন আ’লীগ সহ-সভাপতি মোঃ ইলিয়াচ হোসেন, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও মিরুখালী স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আলমগীর হোসেন খান, সাংগঠনিক সম্পাদক এবিএম সিদ্দিকুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ জামাল হোসেন, বাজার কমিটির সভাপতি মিন্টু কুন্ডু, আ’লীগ নেতা গোলাম মোস্তফা, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বাবলু আকন, দাউদখালী যুবলীগ সভাপতি শহীদ সরদার ও মেহেদী মেরিন প্রমূখ।
উল্লেখ্য, মঠবাড়িয়া উপজেলায় দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা আ‘লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের মধ্যে অভ্যন্তরীন কোন্দল রয়েছে। উপজেলা আ‘লীগ সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র রফিউদ্দিন আহম্মেদ ফেরদৌস, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফুর রহমান সমর্থিত গ্রুপ এবং উপজেলা আ‘লীগ সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক সেলিম মাতুব্বর সমর্থিত গ্রুপের মধ্যে কোন্দল রয়েছে। এ ঘটনার জেরে উপজেলা যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের মধ্যে কোন্দল তীব্র আকার ধারণ করেছে



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গ্রেপ্তার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ