Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮, ০৪ রমজান ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ব্যক্তিগত গোপনীয়তার মামলায় বড় জয় মেগানের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৬:৪২ পিএম | আপডেট : ৬:৪৪ পিএম, ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

ব্যক্তিগত গোপনীয়তা ফাঁস করায় ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড ডেইলি মেইলের বিরুদ্ধে মামলা করে জিতলেন রাজপুত্র হ্যারির স্ত্রী মেগান মার্কল। বৃহস্পতিবার অ্যাসোসিয়েটেড নিউজপেপারস লিমিটেডের (এএনএল) বিরুদ্ধে করা মেগানের মামলার একটি অংশের বিষয়ে হাই কোর্টের বিচারক সংক্ষিপ্ত রায় দিয়েছেন। অর্থাৎ এর পূর্ণ শুনানির আর প্রয়োজন নেই। কারণ তাতেও এই রায়ের কোনো পরিবর্তন হওয়ার সুযোগ নেই।

এএনএল গ্রুপের সংবাদপত্র ডেইল মেইল, যাদের রোববারের সংখ্যা মেইল অন সানডেতে তিন বছর আগে মেগানের হতে লেখা ওই চিঠি প্রকাশ করা হয়েছিল। তা প্রকাশ করা হয় মেইলের ওয়েবসাইট মেইল অনলাইনেও। রায়ে বিচারক বলেছেন, চিঠিটি প্রকাশ করা ছিল ‘অতিরিক্ত বাড়াবাড়ি’ এবং তা বেআইনিও বটে। ‘ওই চিঠি প্রকাশ না হোক- অভিযোগকারীর এই চাওয়া খুবই যুক্তিযুক্ত। দ্য মেইল তার সেই চাওয়ায় হস্তক্ষেপ করেছে।’

আদালতের এই রায়ে সন্তোষ জানিয়েছেন মেগান। তিনি এক বিবৃতিতে বলেছেন, দুই বছর পর পাওয়া এই রায়ে তিনি আদালতের কাছে কৃতজ্ঞ বোধ করছেন। তিনি বলেন, ‘তাদের (মেইল, মেইল অনলাইন) এই কৌশল নতুন নয়, তারা পরিণতির কথা না ভেবে এই কাজ করে আসছে। তাদের কাছে এটা একটা খেলা। আর আমার এবং আমার মতো আরও অনেকের কাছে এটা জীবন, এটা সম্পর্ক, এটার সঙ্গে মনোবেদনা জড়িয়ে। তারা যে ক্ষতি করেছে, তা এখনও ভোগাচ্ছে।’

মেগানের বাবা টমাস মার্কল পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন। ওই চিঠির সূত্র ধরে মেইল লিখেছিল, মেগান তার বাবাকে অভিযোগবিদ্ধ করছিলেন এই বলে যে, কেন তিনি মেয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করতে চাইছেন না। রায়ে এক বিচারক বলেছেন, ২০১৮ সালে প্রিন্স হ্যারিকে বিয়ের পর মেগান তার বাবাকে যে চিঠি লিখেছিলেন, তার একাংশ প্রকাশ করে সংবাদপত্রটি তার ব্যক্তিগত গোপনীয়তা লঙ্ঘন করেছে। বিবিসি জানিয়েছে, এখন অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কী আইনি পদক্ষেপ নেওয়া যায়, সে বিষয়ে ২ মার্চ শুনানির দিন ঠিক হয়েছে। তবে ডেইলি মেইল বলেছে, এএনএল এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবে। সূত্র: ইউকে স্টান্ডার্ড।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাজ্য


আরও
আরও পড়ুন