Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৪ আষাঢ় ১৪২৮, ০৬ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

এবার মুখ খুললেন বিসিবি সভাপতি

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:০২ এএম

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথমটি চট্টগ্রামে স্বাগতিক দল হেরেছে লজ্জাজনকভাবে। চট্টগ্রাম টেস্টে বাংলাদেশ সফরকারীদের ৩৯৫ রানের লক্ষ্য দিয়েও জয়ের দেখা পায়নি। ওই হারের ক্ষত শুকাতে ঢাকার দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে ভালো করতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ছিলেন মুমিনুল হকরা। কিন্তু না, কিছুতেই কিছু হলো না। ২৩১ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ঢাকা টেস্টের চতুর্থ দিনেই বাংলাদেশ হেরেছে ১৭ রানে। দলের এমন ভরাডুবিতে ক্ষুব্ধ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। এবার তিনি মুখ খুললেন, দিলেন হুঙ্কারও। গতকাল বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজ শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘এভাবে চলতে পারে না’। ক্যারিবীয়দের কাছে হারের পর সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে পাপন জানান, টেস্ট ক্রিকেটে নিজেদের উন্নতি দেখতে চান তিনি। কোনোভাবেই এভাবে চলতে দেবেন না বিসিবি প্রধান। তার কথায়, ‘সমাধান খুবই সহজ, সমাধান হবে। এভাবে চলতে দেওয়া যায় না। আমি আফগানিস্তানের পরে বেশি কিছু বলতে চাইনি। কিন্তু আজকে আপনাদের আমি বললাম, এটা পরিবর্তন করতে হবে। অবশ্যই পরিবর্তন করতে হবে। যেভাবেই হোক... এভাবে চলতে পারে না।’

টিম ম্যানেজমেন্টের অংশ না হয়েও বিসিবি সভাপতি বরাবরই দলের সবকিছুতে জড়িত থাকেন। কিন্তু এবার জৈব সুরক্ষা বলয়ের কারণে সম্পৃক্ত হতে পারেননি। ঠিক কী পরিকল্পনা নিয়ে বাংলাদেশ খেলেছে, সেসব জানতে চাইবেন টিম ম্যানেজমেন্টের কাছে। বিষয়টি জানিয়েও রাখলেন পাপন, ‘কী সমস্যা হয়েছে আপনারা সময় এলে সব জানতে পারবেন। কিন্তু আমাকে আগে জানতে হবে এখানে কী ঘটছে। ওদের কী স্ট্র্যাটেজি ছিল, কী পরিকল্পনা করেছিল। এই জিনিসগুলো আগে জানতে হবে। করোনার কারণে ক্রিকেটারদের সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে পারিনি। একদিন কথা হয়েছিল জুম মিটিংয়ে, কিন্তু পুরো দলের সঙ্গে এটা যথেষ্ট নয়।’

বিসিবি সভাপতি আরও বলেন, ‘আমি আকরামকে (ক্রিকেট অপারেশনসের চেয়ারম্যান) জিজ্ঞেস করলাম, কী পরিকল্পনা ছিল? নির্বাচকদের কাছে জানতে চাইলাম। কেউই কিছু জানে না। কারণ, আমরা তো ওইখানে যেতে পারছি না। এই হলো অবস্থা। হয়েছেটা কী সেটা তো জানতে হবে। জানি না অনেক কিছ্।ু জানার পরেই আপনাদের জানাবো। খুব তাড়াতাড়িই আমরা উদঘাটন করার চেষ্টা করবো, কেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে ব্যর্থ হলো বাংলাদেশ।’

তামিম, মুশফিক, মুমিনুলদের মতো অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানদের ব্যাটিং অ্যাপ্রোচ দেখে বিরক্ত পাপন। তাই তো বললেন, ‘ খেলোয়াড়দের অ্যাপ্রোচ বলেন, স্ট্র্যাটেজি বলেন, আমার কাছে মনে হয় খুবই বাজে। একজন অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান, বোলারকে বলে দিতে হবে কীভাবে টেস্ট খেলতে হবে? এগুলো তো বলে দেওয়ার কথা না।’

 



 

Show all comments
  • kamal faruque ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১০:২২ পিএম says : 0
    Drop out all the foreign coach, they are good for nothing, just misuse of foreign currency. Select coach from country, like Mashrafe, Razzak, Habibul Bashar, and they have to follow very strong and strict policy for fitness,practice,and selection. Select team Test, ODI, T20 not from face value, rather skill, mental stability,fitness,and practice. Don't mess up with politics for fair player selection. We cricket lover very much disappointed for the team performance, it seems like no coordination between player responsibility and coach's responsibility.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিসিবি

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন