Inqilab Logo

সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ৩০ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

হাজার কোটি টাকা ব্যয়ের পাঁচ ক্রয়প্রস্তাব অনুমোদন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:৪১ এএম

১০৫১ কোটি ৫০ লাখ ৪০ হাজার টাকা ব্যয়ে ৫টি ক্রয় প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। গতকাল বুধবার এক ভার্চুয়াল সভায় ক্রয় প্রস্তাবগুলো অনুমোদন দেওয়া হয়। অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সভায় কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অংশ নেন। সভা শেষে অনুমোদিত ক্রয় প্রস্তাবগুলোর বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন অর্থমন্ত্রী ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. আবু সালেহ মোস্তফা কামাল।

সভা শেষে অর্থমন্ত্রী বলেন, আজ (গতকাল) অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ষষ্ঠ এবং সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ৭ম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত কমিটির অনুমোদনের জন্য ৩টি এবং ক্রয়সংক্রান্ত-কমিটির অনুমোদনের জন্য ৫টি প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়। ক্রয় কমিটির প্রস্তাবগুলোর মধ্যে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের ৩টি এবং জ্বালানি ও খনিক সম্পদ বিভাগের ২টি প্রস্তাব ছিল। ক্রয় কমিটির অনুমোদিত ৫টি প্রস্তাবে মোট অর্থের পরিমাণ ১,০৫১ কোটি ৫০ লাখ ৪০ হাজার ৫১২ টাকা। মোট অর্থায়নের মধ্যে সম্পূর্ণ অর্থই জিওবি থেকে ব্যয় হবে। অনুমোদিত প্রস্তাবগুলোর বিস্তারিত তথ্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. সালেহ জানাবেন।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, সভায় ‘র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তর নির্মাণ’ প্রকল্পের ডব্লিউডি-১ লটের আওতায় র‌্যাব সদর দপ্তরে ১২তলা ব্যাচেলার অফিসার্স কোয়ার্টার্স, ১০তলা ফোর্স ব্যারাক এবং ৮তলা ডিএডি মেস কাম এমটি সেড নির্মাণকাজের জন্য উন্মুক্ত দরপত্র পদ্ধতিতে দরপত্র আহবান করলে ২টি দরপত্র জমা পড়ে যার মধ্যে ১টি রেসপনসিভ হয়। দরপত্রের সব প্রক্রিয়া শেষে টিইসি কর্তৃক সুপারিশকৃত একমাত্র রেসপনসিভ দরদাতা প্রতিষ্ঠান মজিদ সন্স কন্সট্রাকশন লিমিটেড এর নিকট থেকে ১৯২ কোটি ৪ লাখ ৩২ হাজার ৩২৬ টাকায় বর্ণিত নির্মাণকাজ ক্রয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্যাকেজের আওতায় ১২তলা ব্যাচেলার অফিসার্স কোয়ার্টার্স, ১০তলা ফোর্স ব্যারাক এবং ৮তলা ডিএডি মেস কাম এমটি সেড, অভ্যন্তরীণ স্যানিটারি ও বৈদ্যুতিকরণ, গ্যাস সংযোগ, লিফট, পাম্প, মটর, পিএবিএক্স ইন্টারকম, অগ্নিনির্বাপন স্থাপন ইত্যাদি কাজ করা হবে।

সভায় ‘বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে বাংলাদেশ পুলিশের জন্য ৯টি আবাসিক টাওয়ার ভবন নির্মাণ’ প্রকল্পের একটি লটের আওতায় সিলেট জেলা পুলিশ লাইন্স এলাকায় ১টি ১৫ তলা আবাসিক ভবন নির্মাণকাজের জন্য উন্মুক্ত দরপত্র পদ্ধতিতে দরপত্র আহবান করলে ২টি দরপত্র জমা পড়ে যা রেসপনসিভ হয়। দরপত্রের সব প্রক্রিয়া শেষে টিইসি কর্তৃক সুপারিশকৃত রেসপনসিভ সর্বনিম্ন দরদাতা প্রতিষ্ঠান যৌথভাবে মেসার্স বাংলা বিল্ডার্স লিমিটেড (বিবিএল) ও মেসার্স এল জেআই-এর কাছ থেকে ৫৯ কোটি ৬৩ লাখ ১৩ হাজার ৩৮৭ টাকায় সিলেট জেলা পুলিশ লাইন্স এলাকায় ১টি ১৫ তলা আবাসিক ভবন নির্মাণ কাজ ক্রয়প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। এই প্যাকেজের আওতায় ১৫তলা আবাসিক ভবন, প্রতি তলায় ১০০০ বর্গ ফুট বিশিষ্ট ৮টি ইউনিট, অভ্যন্তরীণ স্যানিটারি ও বৈদ্যুতিকরণ, ভ‚-গর্ভস্থ জলাধার, গভীর নলকূপ, পাম্প মোটর, রাস্তা, বাউন্ডারি ওয়াল এবং অভ্যন্তরীণ আরসিসি রোড ইত্যাদি নির্মাণ করা হবে।

সভায় ঢাকাস্থ আজিমপুর সরকারি কলোনির অভ্যন্তরে (জোন-এ) সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য ২০ তলা বিশিষ্ট ২টি আবাসিক ভবন নির্মাণসহ আনুষঙ্গিক পূর্ত কাজ ক্রয়ের জন্য উন্মুক্ত পদ্ধতিতে দরপত্র আহবান করলে ১টি মাত্র দরপত্র জমা পড়ে যা রেসপনসিভ হয়। দরপত্রের সব প্রক্রিয়া শেষে টিইসি কর্তৃক সুপারিশকৃত রেসপনসিভ একমাত্র দরদাতা প্রতিষ্ঠান পদ্মা অ্যাসোসিয়েটস অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেড এর কাছ থেকে ১৭৬ কোটি ১৮ লাখ ৭৭ হাজার ৩৩২ টাকায় ঢাকাস্থ আজিমপুর সরকারি কলোনির অভ্যন্তরে সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য ২০ তলা বিশিষ্ট ২টি আবাসিক ভবন নির্মাণকাজ ক্রয়ের প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিটি।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, ‘বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দ্রুত সরবরাহ বৃদ্ধি (বিশেষ বিধান) আইন-২০১০’ (২০১৮ সালের সর্বশেষ সংশোধনীসহ) এর আওতায় স্পট মার্কেট হতে ষষ্ঠ এলএনজি কার্গো আমদানির প্রত্যাশাগত অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। ২০১৯ সালের ৮ আগষ্ট সিসিইএ সভার অনুমোদনক্রমে স্পট মার্কেট হতে এলএনজি কেনার জন্য সংক্ষিপ্ত তালিকাভুক্ত ১৪টি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে মাস্টার সেল অ্যান্ড পারচেজ অ্যাগ্রিমেন্ট (এমএসপিএ) চুক্তি চ‚ড়ান্ত করা হয়। পেট্রোবাংলা ১৪টি প্রতিষ্ঠানের কাছে ৬ষ্ঠ এলএনজি কার্গো সরবরাহের দরপ্রস্তাব আহবান করলে মাত্র ১টি প্রতিষ্ঠান দরপ্রস্তাব দাখিল করে। দরপত্রের সব প্রক্রিয়া শেষে পিপিসির সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে দরদাতা প্রতিষ্ঠান সিঙ্গাপুর ভিত্তিক মেসার্স ভিটল এশিয়া প্রাইভেট লিমিটেড এর কাছ থেকে প্রতি এমএমবিটিইউ এলএনজি ৯.৩১২৩ মার্কিন ডলার হিসেবে ৩৩ লাখ ৬০ হাজার এমএমবিটিইউ এলএনজি ৪৫ কোটি ১৮ লাখ ৬৪ হাজার ৮৩০ মার্কিন ডলার সমপরিমাণ বাংলাদেশি মুদ্রায় ৩১০ কোটি ৯৮ লাখ ৯৩ হাজার ২৪৩ টাকায় আমদানির প্রত্যাশাগত অনুমোদন দিয়েছে কমিটি।

এর আগে অর্থমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাঁচ-ক্রয়প্রস্তাব-অনুমোদন
আরও পড়ুন