Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৮ আষাঢ় ১৪২৮, ১০ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

চিঠিপত্র

অর্থপাচার রোধ করতে হবে

| প্রকাশের সময় : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:০৭ এএম

একটি দেশ শুধু সরকারের ওপর নির্ভর করে অর্থনৈতিক দিক দিয়ে উন্নতি লাভ করতে পারে না। অর্থনীতিকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সকলকে একসঙ্গে কাজ করতে হয়। দল-মত নির্বিশেষে সকলকে এটা ভাবতে হবে যে আমরা এই দেশের নাগরিক। আমরা দেশকে বিশ্বের দরবারে একদিন সম্মানিত স্থানে নিয়ে যাব। আর এই মানসিকতার জন্য সবচেয়ে কার্যকর পন্থা হলো লোভ ত্যাগ করতে হবে। নিজেদের মধ্যে দেশপ্রেম জাগ্রত করতে হবে। ইএম হোয়াইট সুনাগরিক হওয়ার জন্য যে তিনটি গুণের কথা বলেছেন, সেগুলো নিজেদের মধ্যে ধারণ করতে হবে। বুদ্ধি-বিবেক এবং আত্মসংযম সম্পন্ন হতে হবে। সা¤প্রতিক সময়ে একটা নিউজ আমাদের ভাবিয়ে তুলেছে আর সেটা হলো অর্থপাচার। বাংলাদেশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, কানাডায় অর্থপাচারের ২৮টি ঘটনার তথ্য পেয়েছে সরকার। দেশ থেকে প্রতি বছর কত অর্থ বিদেশে পাচার হয় তার কোনো তথ্য-উপাত্ত কোথাও নেই। তবে গ্লোবাল ফিনান্সিয়াল ইন্টেগ্রিটির তথ্য মতে, ২০১৫ সালে বাণিজ্য কারসাজির মাধ্যমে প্রায় ছয় বিলিয়ন ডলার অর্থাৎ প্রায় ৫০ হাজার কোটি টাকা সমপরিমাণ অর্থ বিদেশে পাচার হয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে যুব লীগের প্রভাবশালী নেতা ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট এর বিরুদ্ধে যত মামলা হয়েছে তার মধ্যে একটা হলো অর্থ পাচার। সিআইডির তথ্য মতে, এই নেতা সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়ায় প্রায় ২০০ কোটি টাকা পাচার করেছেন। এমন অভিযোগ আরো অনেকের বিরুদ্ধেই উঠছে। অর্থনীতিবিদ এবং ব্যাংকারদের মতে, অর্থপাচারের সবচেয়ে বড় মাধ্যম হলো বাণিজ্য কারসাজি, আরেকটি হলো হুন্ডি। বাণিজ্য কারসাজি বলতে সাধারণত যা বোঝানো হয় তা হলো, যখন কোনো পণ্য আমদানি করা হয় তখন কমদামের পণ্যকে বেশি দাম দেখানো হয়। ফলে অতিরিক্ত অর্থ দেশের বাইরে থেকে যায়। তাছাড়া হুন্ডির মাধ্যমেও হাজার হাজার টাকা বিদেশে পাচার করা হচ্ছে। পাচার করা অর্থ দিয়ে বিদেশে বাড়ি এবং সম্পদ ক্রয় করা হচ্ছে এবং ব্যবসায় বিনিয়োগ করা হচ্ছে। তাই বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এ বিষয়ে যথেষ্ট সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। যাতে কেউ কোনভাবেই বিদেশে অর্থ পাচার করতে না পারে।
জাফরুল ইসলাম
শিক্ষার্থী, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চিঠিপত্র

১৫ জুন, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন