Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

২০১৮ সালের মধ্যেই দেশের ৪৬৫ উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়ন : বিআরইবি’র চেয়ারম্যান

প্রকাশের সময় : ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : বর্তমান সরকারের শাসনামলে গত ৭ বছরে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) ৮৬ লাখ ৬৭ হাজার গ্রাহকের দোরগোড়ায় বিদ্যুৎ সুবিধা পৌঁছে দিয়েছে। এর মধ্যে শুধু আগস্টেই ২ লাখ ৬৭ হাজার গ্রাহককে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়েছে। এ নিয়ে বিআরইবি’র মোট ১ কোটি ৬১ লাখ গ্রাহককে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করলো।
গতকাল (বৃহস্পতিবার) সকালে বিআরইবি’র সদর দপ্তরে ব্রিগেডিয়ার সবিহ উদ্দিন আহমেদ হলে ৭৮টি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার সম্মেলনে এই তথ্য উপস্থাপন করা হয়। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের সদস্যবৃন্দ, উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণসহ বেশ কয়েকজন সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে বিআরইবি’র চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন বলেন, ২০১৮ সালের মধ্যে ৪৬৫টি উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়িত করা হবে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের শাসনামলে বিগত সাত বছরে বিআরইবি যে পরিমাণ গ্রাহককে বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়েছে-তা দেশের উন্নয়নের ইতিহাসে এক বিশাল অর্জন। মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন আরও বলেন, আমরা মুক্তিযুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের সংবিধানে গ্রাম এবং শহরের বৈষম্য দূরীকরণার্থে পল্লী বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমকে রাষ্ট্রের অন্যতম মৌলিক দায়িত্ব হিসেবে সন্নিবেশিত করেন। সেই চেতনাকে সামনে রেখেই আমরা দেশের সকল গ্রামকে বিদ্যুতায়নের আওতায় আনার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। তিনি বলেন, দেশের প্রতিটি গ্রামকে আলোকিত করতে হবে- এটা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ।
বিআরইবি চেয়ারম্যান বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে নির্ভরযোগ্য, মানসম্মত, নিরাপদ ও যৌক্তিক মূল্যে বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করতে হবে। লোড ব্যবস্থাপনা, দুর্ঘটনা রোধে সচেতনতা সৃষ্টি, বিদ্যুৎ বিভ্রাট হ্রাস করণ, সমতার ভিত্তিতে বিদ্যুৎ বিতরণ সর্বোপরি উন্নত গ্রাহক সেবার উপর গুরুত্বারোপ করে চেয়ারম্যান আরও বলেন, নবায়নযোগ্য জ্বালানী কেন্দ্র স্থাপন, মালামাল ক্রয়ের ক্ষেত্রে দুর্নীতি রোধে ই-জিপি প্রক্রিয়া অনুসরণ, প্রকল্প সংখ্যা বৃদ্ধি, বিতরণ লাইন আধুনিকায়ন ও নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়ন করতে হবে। তিনি সকলকে সততা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালনেরও নির্দেশ দেন।
উল্লেখ, বিআরইবি ইতোমধ্যে ৬টি উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়িত করেছে। এছাড়াও শতভাগ উপজেলা বিদ্যুতায়ন উপলক্ষে প্রণীত রোডম্যাপ অনুযায়ী সেপ্টেম্বর এর মধ্যে আরো ৭ উপজেলা, ডিসেম্বরের মধ্যে ২২টি উপজেলা, ২০১৭ সালের মার্চের মধ্যে ২০টি উপজেলা এবং জুনের মধ্যে ৭০টি উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়নের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। এভাবে ২০১৮ সালের মধ্যে দেশের ৪৬৫টি উপজেলাই শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আসবে।
বিআরইবি জানায়, ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে ৩৭ লক্ষ নতুন সংযোগ প্রদান এবং ৩২ হাজার কিলোমিটার লাইন নির্মাণ করেছে প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়াও ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে ৩০ লক্ষ নতুন সংযোগ প্রদানের লক্ষ্যমাত্রা একইসাথে এ সময়ে ৩৫ হাজার কিলোমিটার নতুন লাইন নির্মাণ এবং সিস্টেম লস-এর টার্গেট ১১.৫০% নির্ধারণ করা হয়েছে। এ অর্থ বছরে ১১ হাজার প্রি-পেমেন্ট মিটার স্থাপন করা হবে। পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি সমূহের আয় বৃদ্ধিতে দ্রুত গ্রাহক সংযোগ প্রদান যথা স্পট মিটারিং, বাণিজ্যিক ও শিল্প প্রতিষ্ঠানে দ্রুত সংযোগ প্রদান, “এক খানা এক মিটার” বিদ্যুৎ বিতরণ/বিক্রয়ের ব্যয় হ্রাস, নিয়মিত মিটার চেকিং, পিএফআই স্থাপনের বিষয়টিও সভায় আলোচনা হয়েছে। সভায় গ্রাহক সেবার মান বাড়ানোর উপরও গুরুত্বারোপ করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ২০১৮ সালের মধ্যেই দেশের ৪৬৫ উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়ন : বিআরইবি’র চেয়ারম্যান
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ