Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৪ রজব ১৪৪২ হিজরী

বিভক্ত হয়ে পড়েছে জাবির আন্দোলনকারীরা

জাবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৩:৪৯ পিএম

হলে থাকা ও আন্দোলন নিয়ে বিভক্তি দেখা দিয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষার্থীদের মধ্যে। মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুর পৌনে ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন চত্ত্বরে সাংবাদিকদের কাছে আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা দেয় একদল শিক্ষার্থী। অপরদিকে আন্দোলনকারী অন্যান্য শিক্ষার্থীরা বলছেন, এমন সিদ্ধান্তের ব্যাপারে তাদেরকে কিছুই জানানো হয়নি। এই নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন তারা।

এছাড়া গত কয়েকদিন যারা আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়ে আসছিলেন কিংবা মিডিয়ার সামনে কথা বলেছিলেন তাদেরকেও দেখা যায়নি সংবাদ সম্মেলনের সময়।

সংবাদ সম্মেলনে নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের ৪৫তম ব্যাচের শিক্ষার্থী নুশিন আদিবা বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আমাদের অধিকাংশ দাবি মেনে নিয়েছে। এ কারণে আন্দোলনের সকল কর্মসূচি স্থগিত করছি। তবে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা ও ভোগান্তির বিষয়টি বিবেচনা করে আমরা হলে থাকব’।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আদিবা নিজেদের সুবিধামতো সময়ে হল ছেড়ে দেওয়ার ব্যাপারে সম্মতি প্রকাশ কর‍তে চাইলে পাশ থেকে অন্যান্য শিক্ষার্থীরা দ্বিমত পোষণ করেন। এসময় এক শিক্ষার্থী এগিয়ে এসে সাংবাদিকদের জানান, তারা এই পরিস্থিতিতে হল ছাড়বেন না।

আদিবা যখন আন্দোলনকারীদের মুখপাত্র হয়ে কথা বলছিলেন তখন শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি ছিল হাতেগোনা। শুরু থেকে থাকা অনেক আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী এসময় ছিলেন না। আন্দোলনকারীদের অনেকেই জানিয়েছেন, তারা এমন সিদ্ধান্তের ব্যাপারে কিছুই জানেন না।

এদিকে হল খালি করতে চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন হল প্রাধ্যক্ষরা। জাবির প্রাধ্যক্ষ কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মোতাহার হোসেন বলেন, আমরা কাজ করি শিক্ষার্থীদের নিয়ে। আমরা অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো নই। আমরা সর্বোচ্চ ধৈর্য ধরে চেষ্টা করছি। আমরা শিক্ষার্থীদের হল ছেড়ে দেওয়ার ব্যাপারে বুঝাবো। যতক্ষণ পুরো হল খালি হবে না প্রাধ্যক্ষরা হলে অবস্থান করে বুঝাবে। ইতোমধ্যে অনেকেই বুঝেছে। তারা হল ছেড়েছেন। আমরা আশাবাদী, বাকিরাও বুঝতে পারবে। হল খালি করে দিবে।



 

Show all comments
  • মোঃ দুলাল মিয়া ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৫:৫৫ পিএম says : 0
    ছাত্র ছাত্রীদের দেমাক আছে নাই জানি না।আমরা জানি ছাত্র ছাত্রীরা আমাদের ভবিষ্যত। কিন্তু সরকারের চালাকি তাহারা জানেনা সরকারের চালাকিতে তাহারা বিভক্ত হয়ে যায়। সরকার কিছু ছাত্র ছাত্রীদের ডান হাত দেখায় ।অন্যদের বাম হাতদেখায় এগুলো করে অসহায় ছাত্র ছাত্রীদের আলাদা করে রাখে।কিন্তু ছাত্র ছাত্রীরা বুঝা উচিত আমরা কি করতেছি সামান্য কিছু খেতাবের জন্য নিজের জীবন কে বিলিয়ে দিলাম। তাই ছাত্র ছাত্রীদের এক কথা ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। নয়তে কিছুই হবে না।
    Total Reply(1) Reply
    • Shahjahan Sarkar ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১১:৫৮ পিএম says : 0
      একমত, এই অসহায় ছাত্রদের কোনো অবস্থাই রাস্তায় ছুঁড়ে ফেলে দেয়া যাবেনা দায়িত্ববান দের কঠোর হুঁশিয়ারি দেয়া হোক যাহাতে ওরা এত বড় দুঃসাহস না দেখায় I
  • Shahjahan Sarkar ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:০১ এএম says : 0
    একমত এই অসহায় ছাত্রদের কোনো অবস্থাই রাস্তায় ছুঁড়ে ফেলে দেয়া যাবেনা দায়িত্ববান দের কঠোর হুঁশিয়ারি দেয়া হোক যাহাতে ওরা এত বড় দুঃসাহস না দেখায়
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ