Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ২০ ফাল্গুন ১৪২৭, ২০ রজব ১৪৪২ হিজরী

সেতাবগঞ্জ সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ অবরুদ্ধ

বোচাগঞ্জ (দিনাজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৫:৪৬ পিএম

আজ ২৩ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার দুপুর ১.৩০ মিনিটে সেতাবগঞ্জ সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ তার অফিস কক্ষে প্রবেশ করলে শিক্ষকরা বকেয়া বেতন আদায়ের দাবিতে ও তার দূর্নীতির বিরুদ্ধে বাগবিতন্ডা অবর্তীণ হলে এক পর্যায়ে কলেজের সকল শিক্ষকরা তাকে তার অফিস কক্ষে বেলা ৩ টা পর্যন্ত অবরুদ্ধ করে রাখে।
জানা যায় সেতাবগঞ্জ সরকারী কলেজের ৭ সদস্য বিশিষ্ট অভ্যন্তরীন অডিটে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে ২ কোটি ৯১ লক্ষ ৭০ হাজার ১৭৮ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া যায়। যার প্রতিবেদন ৮ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখে কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও বোচাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ছন্দা পালের নিকট দাখিল করে। পরবর্তীতে কলেজ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গৃহীত হয়নি। যার ফলশ্রুতিতে অনার্স বিভাগের ৩৬ জন শিক্ষক সহ ৭০ জন শিক্ষক বকেয়া বেতন ও অন্যান্য পাওনা আদায়ের দাবিতে অধ্যক্ষকে অবরুদ্ধ করে। অনার্স ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষক মোঃ জাকির হোসেন অভিযোগ করে বলেন, অধ্যক্ষ কলেজের প্রায় ৩ কোটি টাকা আত্মসাত করেছেন। তিনি কলেজের ফান্ড শুন্য করে অনার্স বিভাগের শিক্ষকদের বকেয়া বেতন দিতে গড়িমশি করছেন। তার ফলশ্রুতিতে তার অপসারণ সহ তার দূর্নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলনের সুচনা করা হলো। এ আন্দোলন বেলা ৩টা পর্যন্ত চলে এবং এ আন্দোলন পরবর্তীতে অব্যাহত থাকবে। অধ্যক্ষ মনজুর আলমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন আমার বিরুদ্ধে অভ্যান্তরীন অডিটে যে দূর্নীতির অভিযোক আনা হয়েছে তা আমি পুনঃ তদন্তের জন্য কলেজের সভাপতি বরাবরে আবেদন করেছি। এছাড়া তিনি বলেন অর্নাসের শিক্ষকদের ২-১ মাসের বেতনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এছাড়া আমি যদি কলেজের দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়ে থাকি তাহলে আমি পদত্যাগ করবো। অপরদিকে গত ৫ জানুয়ারি ২০২১ ইং তারিখে উক্ত অধ্যক্ষ মনজুর আলমের বিরুদ্ধে সুনিদিষ্ট ৭ টি অভিযোগের ভিত্তিতে চলমান পুনঃ তদন্তে জেলা সমন্বিত কার্যালয় দিনাজপুর দুদকের উপ-পরিচালক এ.এইচ আশিকুর রহমান ও সহকারী পরিচালক মোঃ ওবায়দুর রহমান সহ একটি তদন্ত দল সেতাবগঞ্জ কলেজে আসেন। তদন্তকালে কলেজের অভ্যন্তরীন অডিট কমিটির ৭জন সদস্যকে গত ১০ জানুয়ারি ২০২১ ইং তারিখে দুদকের জেলা কার্যালয় তলব করেন। এখানে অডিট কমিটি লিখিতভাবে উপ-পরিচালকে নিকট উক্ত অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে ২ কোটি ৯১ লক্ষ ৭০ হাজার ১৭৮ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ সহ দালিলিক প্রমাণাদি দাখিল করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন