Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮, ০৪ রমজান ১৪৪২ হিজরী

মিয়ানমারে সেনা শাসনকে ‘না’ বলে বিক্ষোভ অব্যাহত!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৮:৪১ পিএম

মিয়ানমারে সেনা শাসনের বিরুদ্ধে আজও বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। সকাল থেকেই দাওই শহরে রাস্তায় শান্তিপূর্ণ মিছিল করে কয়েকশ মানুষ। এছাড়া ইয়াঙ্গুনের রাস্তায় নেমেছেন চিকিৎসক, শিক্ষার্থীসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ। তিন সপ্তাহ ধরে চলমান এ বিক্ষোভে সাত শতাধিক মানুষকে আটক করেছে জান্তা সরকার।-ডয়েচে ভেলে

সেনাশাসনের প্রবল নিন্দা করল গ্রুপ অফ সেভেন বা জি৭। এই গ্রুপে আছে অ্যামেরিকা, যুক্তরাজ্য, ক্যানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইটালি ও জাপান। জি৭-এর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা একটি বিবৃতিতে জানিয়েছেন, নিরস্ত্র বিক্ষোভকারীদের উপর গুলি চালানোর সিদ্ধান্ত কোনোভাবে মানা যায় না। তাঁদের আবেদন, সেনা যেন খুবই সংযত থাকে এবং মানবাধিকার ও আন্তর্জাতিক আইন মেনে চলে। সেনাবাহিনী দেশের শাসনভার নিয়ে নেয়ার পর থেকে মিয়ানমারের শহরগুলিতে লাগাতার বিক্ষোভ চলছে। গণতন্ত্রের দাবিতে এবং তাঁদের নেত্রী সু চি সহ অন্যদের মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ দেখানো হচ্ছে। সেনা শাসকরা জরুরি অবস্থা জারি করেছেন এবং এক বছরের মধ্যে নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। সেই সঙ্গে তারা জোর করে বিক্ষোভ থামাবার চেষ্টা করছেন। সোমবার গোটা দেশ জুড়ে বিশাল বিক্ষোভ হয়েছিল।

এদিকে থাইল্যান্ড সফরে গেছেন জান্তা সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উন্না মং লুইন। দক্ষিণপূর্ব এশীয় দেশগুলোর জোট আসিয়ান সদস্যদের সঙ্গে পরামর্শ করতে প্রথমবারের মতো বিদেশ সফরে গেলেন তিনি। সেখানে থাই পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছাড়াও ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে তার বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। প্রতিবেশী দেশগুলোর এই উদ্যোগ নিয়ে সন্দেহ পোষণ করছেন মিয়ানমারে গণতন্ত্রের দাবিতে আন্দোলনকারীরা। তারা মনে করছেন এই উদ্যোগের মাধ্যমে জান্তা সরকারকে বৈধতা দেওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মিয়ানমার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ