Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭, ২৯ শাবান ১৪৪২ হিজরী

১১ মাস দশ দিন পর শুক্রবার দক্ষিণাঞ্চলে কোন কোভিড-১৯ রোগী নেই

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৩:২৭ পিএম

টানা ১১ মাস দশ দিন পরে শুক্রবার (২৬ ফেব্রয়ারী) দক্ষিণাঞ্চলে কোন কোভিড-১৯ রোগী ছিলনা। গত বছর ১৮ মার্চ অঞ্চলে প্রথম করেনা রোগী সনাক্তের দীর্ঘ সময় পরে এটাকে চিকিৎসা বিশেষজ্ঞগন একটি ভাল খবর বললেও তাতে আত্মতুষ্টির কোন সুযোগ নেই বলে সকলকে পরিপূর্ণভাবে স্বাস্থ্য সচেতন থেকে বিধিবিধান মেনে চলারও তাগিদ দিয়েছেন। পাশাপাশি আগামী দিনে ভাইরাসবাহী এ রোগের মহামারী রোধে সকলকে ভ্যাকসিন গ্রহণ সহ সব ধরনের সতর্কতা অবলম্বনেরও পরামর্শ দেয়া হয়েছে। বিশেষ করে বরিশাল মহানগরীর জন্য বিশেষ সতর্কতা অবলম্বনের কথা বলেছেন দায়িত্বশীল মহল। কারণ বিভাগের মোট জনসংখ্যার মাত্র ৬% মানুষ এ নগরীতে বাস করলেও বিভাগের প্রায় ৪০% করোনা রোগী এ মহানগরে। এমনকি দক্ষিণাঞ্চলে এপর্যন্ত মোট মৃত্যুর প্রায় ২৩% বরিশাল মহানগরীতে মারা গেছেন।

বিগত ১১ মাস দশদিনে দক্ষিণাঞ্চলের ৬ জেলার ৪২টি উপজেলায় সরকারী হিসেব ১০ হাজার ৭০৭ জন কোভিড-১৯ রোগী সনাক্ত হয়েছে। যার মধ্যে এপর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ২০২ জনের। আর স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমিত হিসেবনুযায়ী সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১০ হাজার ৪২৬ জন। এ অঞ্চলে সুস্থতার হার প্রায় ৯৮%। এমনকি চলতি ফেব্রুয়ারী মাসে দক্ষিণাঞ্চলে মাত্র দুজন কোভিড-১৯ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। ছয় জেলায় এ মাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা মাত্র ৯৩ জন। আক্রান্ত ও মৃত্যুর এ সংখ্যা গত প্রায় এক বছরে সর্বনিম্ন।

তবে এর চেয়েও বড় খবর ছিল শুক্রবার সকালের পূর্ববর্তী ২৪ ঘন্টায় দক্ষিণাঞ্চলে নতুন কোন করেনা রোগী সনাক্ত হয়নি। এ পর্যন্ত বরিশাল ও ভোলার দুটি আরটি-পিসিআর ল্যাবে প্রায় ৫৩ হাজার মানুষের নমুনা পরীক্ষায় গড় সনাক্তের হার ১৪%-এর নিচে। সর্বশেষ হিসেবনুযায়ী দক্ষিণাঞ্চলে মৃত্যু হার ১.৬৫%-এর নিচে। শুক্রবার সকালের পূর্ববর্তী ২৪ ঘন্টায় বরিশাল শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাবে ১১০ জনের এবং ভোলা জেনারেল হাসপাতালে ১৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় কারো দেহেই করেনা পজিটিভ সনাক্ত হয়নি।

এদিকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত সর্বশেষ প্রাপ্ত হিসেবনুযায়ী বরিশালে মোট আক্রান্ত ৪,৮৮৯ জনের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৮৮ জনের। পটুয়াখালীতে আক্রান্তের সংখ্যা ১,৭৪৫। মৃত্যু হয়েছে ৪১ জনের। পিরোজপুরে ১,১৯৩ জন আক্রান্তের মধ্যে মারা গেছেন ২৫ জন। ভোলাতে ১ হাজার একজন আক্রান্তের মধ্যে মারা গেছেন ১০ জন। বরগুনাতে আক্রান্ত ১ হাজার ৩৪ জনের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২২ জনের। আর ঝালকাঠীতে ৮৪৫ জন আক্রান্তের মধ্যে মারা গেছেন ১৬ জন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বরিশাল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ