Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ১০ বৈশাখ ১৪২৮, ১০ রমজান ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মোহামেডানের আরেকটি হোঁচট

মুক্তিযোদ্ধার দ্রুততম সময়ে গোল

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৯:০৫ পিএম | আপডেট : ১০:৪৩ পিএম, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

ঘরোয়া ফুটবলের মর্যাদার আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) চট্টগ্রাম আবাহনীতে হোঁচট খেল ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। অন্যদিকে এবারের বিপিএলে দ্রুততম সময়ে গোল করেও শেষ পর্যন্ত লিড ধরে রাখতে না পারায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া ড্র করেছে রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটির বিপক্ষে। শুক্রবার রাতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে নিজেদের দশম ম্যাচে প্রথমে পিছিয়ে থেকেও মোহামেডান ১-১ ব্যবধানে ড্র করেছে চট্টগ্রাম আবাহনীর সঙ্গে। চট্টগ্রামের হয়ে রাকিব হোসেন গোল করলে মোহামেডানের পক্ষে তা শোধ দেন শহীদ রাকিব খান ইভান। ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে দু’দল। ১৫ মিনিটে গোল করে এগিয়ে যায় চট্টগ্রাম আবাহনী। দুর্দন্ত এক গোল করেন রাকিব হোসেন (১-০)। প্রথমার্ধে শত চেষ্টা করেও গোল শোধ দিতে পারেনি সাদাকালোরা। দ্বিতীয়ার্ধে সেই সুযোগ পেয়ে যান শহীদ রাকিব খান। মালির ফরোয়ার্ড সুলেমান দিয়াবাতের সহায়তায় ম্যাচের ৫৯ মিনিটে সমতাসূচক গোলটি করেন তিনি (১-১)। কিন্তু এরপরেই ঘটে অনাকাঙ্খিত ঘটনা। মোহামেডানের আতিকুজ্জামান থ্রো করলে বল গিয়ে লাগে চট্টগ্রাম আবাহনীর মিডফিল্ডার রাকিবের গায়ে। এ নিয়ে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন মোহামেডান দলনেতা আবু হাসান চৌধুরী প্রিন্স ও চট্টগ্রাম আবাহনীর ম্যানেজার আরমান আজিজ। প্রিন্সের ভাষ্যমতে, ‘আরমান আজিজ অকথ্য ভাষায় গালি দিচ্ছিলেন আমাদের বিদেশি কোচ শন লেনকে। তাই আমি তাকে ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেই।’ তবে এটা চোখ এড়ায়নি রেফারি ভুবন মোহান তরফদারের। তিনি সঙ্গে সঙ্গে দু’জনকেই লালকার্ড দেখিয়ে ডাগআউট থেকে বেড় করে দেন।

এই ড্র’তে দশ ম্যাচে চারটি করে জয় ও ড্র এবং দুই হারে ১৬ পয়েন্ট পেয়ে তালিকায় পঞ্চম স্থান ধরে রাখলো মোহামেডান। এক ম্যাচ বেশি খেলা চট্টগ্রাম আবাহনী চারটি করে জয় ও ড্রতে এবং তিন হারে ১৬ পয়েন্ট পেলেও গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থেকে ষষ্ঠ স্থানে জায়গা পেল।

এর আগে একই ভেন্যুতে বিকালে অনুষ্ঠিত লিগের আরেক ম্যাচে দ্রæত সময়ে গোল করেও শেষ পর্যন্ত তা ধরে রাখতে পারেনি মুক্তিযোদ্ধা সংসদ। ফলে তারা রহমতগঞ্জের বিপক্ষে ১-১ গোলের ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে। মুক্তিযোদ্ধার হয়ে মাহমুদ হোসেন ফাহিম ও রহমতগঞ্জের মোহাম্মদ আরাফাত হোসেন একটি করে গোল করেন।

শুক্রবার ম্যাচের মাত্র ২৭ সেকেÐে ফাহিম গোল করে মুক্তিযোদ্ধাকে এগিয়ে নেন (১-০)। দীর্ঘ সময় সেই গোল লিডে রাখলেও দ্বিতীয়ার্ধে জয়ের আশা শেষ হয়ে যায় তাদের। ম্যাচের ৫৬ মিনিটে বক্সের মধ্যে জটলা থেকে চমৎকার শটে গোল করে ম্যাচে সমতা আনেন রহমতগঞ্জের আরাফাত (১-১)। এই ড্রতে দশ ম্যাচে দুই জয়, তিন ড্র ও পাঁচ হারে ৯ পয়েন্ট নিয়ে তালিকায় নবম স্থানে রহমতগঞ্জ। অন্যদিকে সমান ম্যাচে সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল গড়ে পিছিয়ে থেকে দশম স্থানে মুক্তিযোদ্ধা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফুটবল


আরও
আরও পড়ুন