Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮, ০৪ রমজান ১৪৪২ হিজরী

পিচ নিয়ে পাঁচ-কান!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:০০ এএম

ব্যাটসম্যানদের টিকে থাকার কোনো উপায়ই যেন ছিল না! কখনও বড় বড় বাঁক নিয়েছে বল। কখনওবা হুট করে লাফিয়ে উঠেছে, আবার অপেক্ষাকৃত নিচুও হয়ে গেছে। মাত্র দুদিনেই আহমেদাবাদ টেস্টের ফয়সালা হওয়ার পর ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জো রুট পিচকে দাঁড় করিয়েছেন কাঠগড়ায়। তবে ভারতের দলনেতা বিরাট কোহলি পিচের কোনো দোষ খুঁজে পাচ্ছেন না!

গতপরশু দিবা-রাত্রির ম্যাচে ১০ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে জিতেছে স্বাগতিক ভারত। সাকুল্যে খেলা হয়েছে ১২ ঘণ্টা। দিনের হিসাবে দেড় দিন। ওভারের হিসাবে যেটি মাত্র ১৪০.২। আরও নির্দিষ্ট করে বললে, আহমেদাবাদ টেস্ট শেষ হয়েছে ৮৪২ বলের মধ্যেই। এটি ভারতের খেলা সবচেয়ে ক্ষণস্থায়ী টেস্ট। ক্রিকেট ইতিহাসে ফল হয়েছে এমন ক্ষণস্থায়ী টেস্টের তালিকায় এটি থাকছে সাত নম্বরে। এর চেয়ে ক্ষণস্থায়ী টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাস দেখেছে আজ থেকে ৮৬ বছর আগে! এমন একটি ম্যাচ জিতে চার ম্যাচের সিরিজে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে তারা। স্পিন স্বর্গে ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের নাভিশ্বাস উঠিয়ে ছাড়েন ভারতের আক্সার প্যাটেল, রবীচন্দ্রন অশ্বিনরা। গোলাপি বলের দিবা-রাত্রির টেস্টে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড গড়েন আক্সার। ক্যারিয়ারের মাত্র দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে নেমে তিনি ৭০ রানে নেন ১১ উইকেট। অভিজ্ঞ অশ্বিন ৭৪ রানে ৭ উইকেট নেওয়ার পথে পেরিয়ে যান ক্রিকেটের সবচেয়ে প্রাচীন সংস্করণে ৪০০ উইকেটের মাইলফলক।
কম যাননি সফরকারীদের স্পিনাররাও। জ্যাক লিচকে ছাপিয়ে রুট হয়ে ওঠেন ‘বিশেষজ্ঞ’ বোলার। ক্যারিয়ারসেরা বোলিংয়ে মাত্র ৮ রানে ৫ উইকেট নেন তিনি। টেস্টে কোনো স্পিনারের সবচেয়ে কম রানে ৫ উইকেট শিকারের দ্বিতীয় সেরা নজির এটি। লিচ ৪ উইকেট পান ৫৪ রানে। গত ৮৫ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ক্ষণস্থায়ী টেস্ট। ১০০ বছর পর ইংল্যান্ড কোনো টেস্ট হারল দুদিনের মধ্যে। স্পিনারদের রাজত্বের এই ম্যাচ তাই জায়গা করে নিয়েছে রেকর্ড বইতে। ম্যাচশেষে নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামের পিচ সম্পর্কে রুটের বিশ্লেষণ, ‘উইকেট কেমন ছিল তা এতেই বোঝা যায় যে, সেখানে আমিও ৫ উইকেট পেয়েছি।’ তবে নিজেদের দায়ও এড়িয়ে যাননি তিনি, ‘আমার মনে হয়, এই পিচে ২৫০ রান যথেষ্ট হতো। তবে ইনিংস শুরু করা খুবই কঠিন ছিল। যারা ভালো শুরু পেয়েছিল, তারা সেটা কাজে লাগাতে পারলে অন্যরকম কিছু ঘটত। আমি নিজেও এক্ষেত্রে দোষী। প্রতিটি রানই গুরুত্বপূর্ণ এবং আপনাকে সেটা নিতে হবে, যেন আপনি একটা শক্তিশালী অবস্থানে পৌঁছাতে পারেন।’
এই টেস্টে দুই দিনে উইকেট পড়েছে ৩০টি। এর ২৮টিই নিয়েছেন স্পিনাররা! ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা নিয়ে রুটের সঙ্গে সুর মেলালেও উইকেটে কোনো সমস্যাই দেখছেন না কোহলি, ‘সত্যি বলতে, আমার মনে হয়, দুদলের কেউই মানসম্পন্ন ব্যাটিং করেনি। সবাই খুব তাড়াহুড়ো করেছে এবং দুপক্ষই পরিকল্পনা প্রয়োগ করতে পারেনি। প্রথম দিনে বল দারুণভাবে ব্যাটে আসছিল, কিছু কিছু বল টার্ন করেছে এবং ব্যাটিংয়ের জন্য ভালো উইকেট ছিল। দুদলের ব্যাটিংই সচরাচরের চেয়ে খারাপ হয়েছে।’
তবে ভারতের এমন জয়ে খুশি হলেও অধিনায়কের সঙ্গে যুবরাজ সিংয়ের খুশিটা পুরোপুরি ফুল হয়ে ফুটতে পারছে না যেন। তার খুশির মধ্যে কিছুটা ‘কিন্তু’ও রয়ে যাচ্ছে, রয়ে যাচ্ছে অস্বস্তি। তিনি সন্দেহ প্রকাশ করেছেন, আহমেদাবাদের অত্যাধুনিক নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়াম, যেটি এ মুহূর্তে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, সেখানে যে টেস্ট ম্যাচটি হলো, সেটি টেস্ট ক্রিকেটের জন্য কতটা ভালো বিজ্ঞাপন। টুইটারে তিনি এই মন্তব্যটি করেছেন ম্যাচ শেষ হয়ে যাওয়ার পর, ‘দুই দিনে খেলা শেষ হয়ে গেল! জানি না, এটি টেস্ট ক্রিকেটের জন্য ভালো বিজ্ঞাপন হিসেবে থেকে গেল কি না!’
কেবল যুবরাজই নন, আহমেদাবাদের উইকেট নিয়ে এখন চলছে তুমুল সমালোচনা। ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ভন টুইট করে মেরেছেন খোঁচা, ‘আকর্ষণীয় ক্রিকেটই দেখলাম। কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটের জন্য এটি খুবই বাজে একটা উইকেট। দ্বিতীয় দিন তো ক্রিকেট খেলাটা রীতিমতো লটারিতে পরিণত হলো!’ তবে উইকেটের সমালোচনা নয়, আহমেদাবাদে দাঁড়াতে না পারার জন্য ব্যাটসম্যানদের সমালোচনা ঝরেছে ভারতীয় ক্রিকেট কিংবদন্তি সুনীল গাভাস্কারের কণ্ঠে, ‘এই উইকেটে বলের লাইনে পা নিয়ে খেলতে হয়। ব্যাটসম্যানরা সেটিই করতে পারেনি। তারা যদি বলের কাছে পা নিয়ে খেলত তাহলে আম্পায়াররা এলবিডব্লু দিতে দ্বিধায় ভুগত।’
গাভাস্কারের সঙ্গে একমত ইংল্যান্ডের সাবেক অফ স্পিনার গ্রায়েম সোয়ানও। তার মতে, স্পিনের বিপক্ষে এই টেস্টে কোনো ব্যাটসম্যানই কার্যকর ব্যাটিং দক্ষতা দেখাতে পারেনি। মাইকেল ক্লার্ক বা মাইক হাসির মতো ক্ষিপ্র ফুটওয়ার্ক এখন ক্রিকেটে বিরল। সামনের পায়ে দক্ষতার সঙ্গে খেললেই স্পিনকে নির্বিষ করে দেওয়া যায়।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পিচ

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
৭ অক্টোবর, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন