Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭, ২৭ শাবান ১৪৪২ হিজরী

বিশ্বনবী (সা.) ইজ্জত রক্ষায় এক প্লাটফর্মে আসতে হবে

আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:০০ এএম

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ এর আমীর এবং হাটহাজারী মাদরাসার শাইখুল হাদীস শিক্ষা পরিচালক আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী বলেছেন, সমস্ত আসমানি কিতাব দ্বারা প্রমাণিত মহানবী (সা.) সর্বশেষ নবী। রাসুল (সা.) পরে আর কোনো নবী আসবে না। যারা নবুওয়াতের দাবি করে তাদেরকে ফাঁসির কাষ্টে ঝুলাতে হবে। বিশ্বনবী (সা.) ইজ্জত রক্ষায় খতমে নবুওয়াতের সমস্ত সংগঠনকে এক প্লাটফর্মে আসতে হবে।
তিনি বলেন, মুসলমানদের মাঝে বিভক্তি সৃষ্টির জন্যই ইংরেজরা মিথ্যা নবীর দাবিদার মির্জা গোলাম আহমদকে মাঠে নামিয়েছিল। আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী বলেন, মহানবী (সা.) কে যারা শেষ নবী বলে স্বীকার করে না তারা কাফের। মহানবী (সা.)কে অস্বীকারকারী কাফেররা মুসলমানদের পরিভাষা ব্যবহার করে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। এরা যে কাফের এ জন্য দলিলের কোনো প্রয়োজন নেই। তিনি বলেন, এরা শুধু ইসলামের জন্য নয়; এরা দেশের জন্যও হুমকি। অবিলম্বে সাংবিধানিকভাবে এদেরকে অমুসলিম ঘোষণা করতে হবে।
গতকাল শুক্রবার মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানের কুচিয়ামোড়া কলেজ মাঠে খতমে নবুওয়াত সংরক্ষণ কমিটি বাংলাদেশ আয়োজিত খতমে নবুওয়াত মহাসম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী এসব কথা বলেন। সংগঠনের আমীর ও মধুপুর পীর সাহেবের সভাপতিত্বে এতে প্রধান মেহমান হিসেবে বক্তব্য রাখেন, হাটহাজারী মাদরাসার মুফতিয়ে আজম আল্লামা মুফতি আব্দুস সালাম চাটগামী। সংগঠনের মহাসচিব মুফতি মুহাম্মদ ইমাদ উদ্দিন ও যুগ্ম মহাসচিব মুফতি মুহাম্মদ রুহুল আমিনের সঞ্চালনায় এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, হেফাজতে ইসলামের শীর্ষ নেতা ও নারায়ণগঞ্জের ডিআইটি জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আব্দুল আউয়াল, শাঈখ যাকারিয়া ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বসুন্ধরার মহাপরিচালক মুফতি মিযানুর রহমান সাঈদ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ঢাকা মহানগরী ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী, আমীরে তাহরীকে খতমে নবুওয়াত সাইয়িদ ড. এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী, খতমে নবুওয়াত আন্দোলনের আমীর মুফতি নূর হোসাইন নুরানী, মাওলানা খালিদ সাইফুল্লাহ আইয়ুবী, মাওলানা বশির আহমদ, মুফতি সাখাওয়াত হুসাইন রাজী, মাওলানা জিয়াউল হক কাসেমী, মেরাজনগর মাদরাসার মুহতামিম ও শায়খুল হাদিস মাওলানা রশিদ আহমদ, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের যুগ্ম মহাসচিব হাজী জালাল উদ্দিন বকুল ও মাওলানা হাসান জামিল। সভাপতির বক্তব্যে মধুপুর পীর সাহেব মাওলানা আব্দুল হামিদ বলেন, রাসুল (সা.) এর ইজ্জত রক্ষায় এদেশের মুসলমানরা জীবন দিতে প্রস্তুত। নাস্তিক মুরতাদদের ইসলাম বিদ্বেষী অপতৎপরতা প্রতিহত করতে জনগণ ঐক্যবদ্ধ। মহাসম্মেলনে কতিপয় দাবি পেশ করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হেফাজতে ইসলাম


আরও
আরও পড়ুন