Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ১০ বৈশাখ ১৪২৮, ১০ রমজান ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

সিপিইসি প্রকল্প পাকিস্তানের বোঝা নয় : চীন

এসব চীনা প্রতিষ্ঠানগুলোর বাণিজ্যিক বিনিয়োগ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:০০ এএম

চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র বলেছেন, চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোরের (সিপিইসি) আওতাধীন বিদ্যুৎ প্রকল্পগুলো বিনিয়োগের প্রকল্প হওয়ায় পাকিস্তানের উপর ঋণের বোঝা চাপায়নি।

পাকিস্তান বেইজিংয়ের লগ্নিকৃত প্রকল্পগুলোর প্রায় ২২ বিলিয়ন ডলারের ঋণ রিশিডিউলের জন্য চীনকে অনুরোধ করেছে- এ সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে মুখপাত্র ঝা লিজিয়াং বলেন, ‘আমি এ বিষয়টি যথাযথ কর্তৃপক্ষের সাথে বলতে পারি যে, এ জ্বালানি প্রকল্পগুলো বাণিজ্যিক বিনিয়োগ যেখানে চীনা সংস্থা পাকিস্তানে বিনিয়োগ করেছে’। তিনি বলেন, ‘আমরা অনেক সময় একই ধরনের প্রশ্নের জবাব দিয়েছি। আপনি কীভাবে আপনার সুনির্দিষ্ট চিত্রটি পেয়েছেন তা আমি জানি না’। তিনি আরও বলেন, সিপিইসিতে অনেক জ্বালানি ও বিদ্যুৎ প্রকল্প রয়েছে। ‘আমি মনে করি আপনি সম্ভবত জ্বালানি প্রকল্পের ঋণের কথা উল্লেখ করছেন। ঠিক?’

লিজিয়ান জানিয়েছেন যে, তিনি বহু বছর ধরে পাকিস্তানে কাজ করেছেন এবং এনার্জি প্রকল্প এবং সিপিইসির সাথে খুব পরিচিত ছিলেন। সুতরাং, এসব ঋণ চীনা সংস্থার। পাকিস্তান সরকারকে কোনো ঋণ ফেরত দেয়ার দরকার নেই, -বলেন তিনি।

মুখপাত্র মন্তব্য করেন যে, সিপিইসির আওতাধীন জ্বালানি প্রকল্পগুলোর নির্মাণ ও পরিচালনা খুব ভাল চলছে, স্থিতিশীল এবং সাশ্রয়ী মূল্যের উৎস সরবরাহ করছে এবং করের রাজস্ব যুক্ত করবে এবং অত্যন্ত স্পষ্ট, অর্থনৈতিক ও সামাজিক সুবিধাদি অর্জন করবে। তিনি আরও যোগ করেন, ‘আমরা নিশ্চিত যে, দু’দেশের মধ্যে জ্বালানি সহযোগিতা পাকিস্তানের জাতীয় উন্নয়নে ও জীবিকার উন্নয়নে আরও বেশি অবদান রাখতে থাকবে’।

সরকারি তথ্য অনুসারে, সিপিইসির অধীনে মোট ২২টি জ্বালানি ও বিদ্যুৎ প্রকল্প নির্মিত হবে, এটি চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের উদ্বোধনকৃত বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভের (বিআরআই) একটি প্রধান প্রকল্প। পাকিস্তানের জ্বালানি চাহিদা মেটাতে এ পর্যন্ত নয়টি জ্বালানি ও বিদ্যুৎ প্রকল্পের কাজ শেষ হয়েছে। এসব প্রকল্প মূল গ্রিডে ৫,৩৪০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের অবদান রেখেছে, যা দেশটির শিল্প, কৃষি এবং গার্হস্থ্য গ্রাহকদের অত্যাবশ্যকীয় চাহিদা পূরণ করতে পারে। আরও আটটি জ্বালানি প্রকল্প সমাপ্তির কাছাকাছি এবং জাতীয় গ্রিডে অতিরিক্ত ৪,৪৭০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে। আরও পাঁচটি প্রকল্প পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নের পর্যায়ে রয়েছে। সূত্র : এপিপি।



 

Show all comments
  • Mustafizur Rahman Ansari ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ২:২৫ এএম says : 0
    Very good
    Total Reply(0) Reply
  • নাজিম ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ২:২৭ এএম says : 0
    বাংলাদেশেরও উচিত চীনের সাথে সম্পর্ক বৃদ্ধি করা।
    Total Reply(0) Reply
  • ডালিম ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ২:২৭ এএম says : 0
    আর আমরা পরে আছি ভারত নিয়ে, যারা শুধু নিতে জানে দিতে জানে না
    Total Reply(0) Reply
  • প্রিয়সী ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ২:৩১ এএম says : 0
    চীনের সাথে এমন কিছু প্রকল্প করা যেতে পারে।
    Total Reply(0) Reply
  • মারিয়া ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ২:৩১ এএম says : 0
    পাকিস্তান এবার এগিয়ে যাবে ..............
    Total Reply(0) Reply
  • ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ২:০৭ পিএম says : 0
    আল্লাহু পাকিস্তানকে এগিয়ে যেতে সাহায্য কর
    Total Reply(0) Reply
  • ত্রবদ ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৪:১৭ পিএম says : 0
    চিনারা এখন তেমাদের ... হয়েগেছে ৷
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চীন

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ