Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৯ বৈশাখ ১৪২৮, ০৯ রমজান ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

বড় জয় দিয়েই প্রথম লেগ শেষ করেছে সাইফ-রহমতগঞ্জ

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ মার্চ, ২০২১, ৮:৩৪ পিএম | আপডেট : ৯:২৬ পিএম, ৫ মার্চ, ২০২১

বড় জয় দিয়েই ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) প্রথম লেগ শেষ করেছে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব ও রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটি। শুক্রবার বিকালে ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সাইফ ৪-০ গোলে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে এবং মুন্সিগঞ্জের বীরশ্রেষ্ঠ ফ্লাইট লে. মতিউর রহমান স্টেডিয়াম রহমতগঞ্জ ৪-১ গোলে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘকে বিধ্বস্ত করে।

সাইফের বেলজিয়ান হেড কোচ পল পুট বিদায় নেয়ার পর দলটি ইতোমধ্যে দু’ম্যাচ খেলেছে সহকারী কোচ জুলফিকার মাহমুদ মিন্টুর অধীনে। দু’ম্যাচেই তারা জয় পেয়েছে। কাল ব্রাদার্সের বিপক্ষে ম্যাচের শুরু থেকেই গোলের জন্য মরিয়া ছিল সাইফ। যদিও ব্রাদার্স ভাবতেই পারেনি সাইফের বিপক্ষে এক হালি গোল হজম করবে তারা। কারণ আগের ম্যাচে গোপীবাগের দলটি ৫-২ গোলে হারিয়েছিল আরামবাগকে। মতিঝিল ক্লাব পাড়ার দলটিকে বড় ব্যবধানে হারালেও সাইফের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি ব্রাদার্স। যোগ্যতর দল হিসেবেই জিতেছে সাইফ।

খেলা শুরু হওয়ার পর ব্রাদার্স কিছু বুঝে উঠার আগেই গোলের দেখা পায় সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। কিক অফ হওয়ার পর ম্যাচের বয়স যখন মাত্র ৩০ সেকেন্ড তখন ইয়াসিন গোল করে সাইফকে এগিয়ে নেন (১-০)। এগিয়ে গিয়ে ব্যবধান বাড়াতে ব্রাদার্সের রক্ষণদূর্গে আক্রমণের পর আক্রমণ চালায় বিজয়ী দল। ম্যাচের ১৯ মিনিটে দ্বিতীয় গোল পায় তারা। এসময় রহিম উদ্দিনের বাড়িয়ে দেয়া বল নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে শটে গোল করেন সাইফের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড কেনেথ ইকেচুকু (২-০)। ৭৩ মিনিটে দ্রুত গতিতে ছুটে ব্রাদার্সের জালে বল জড়ান নাইজেরিয়ান মিডফিল্ডার জন ওকোলি (৩-০)। তিন গোলে এগিয়ে থেকেও গোলক্ষুধা কমেনি সাইফের। ম্যাচের ৮৪ মিনিটে দলটির হয়ে চতুর্থ গোলটি করেন জন ওকোলি (৪-০)। লিগে এখন পর্যন্ত ৯ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতাদের তালিকায় তৃতীয়স্থানে রয়েছেন এই নাইজেরিয়ান। ম্যাচের বাকি সময় আর কোনো গোল না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। এই জয়ে ১২ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার চতুর্থ স্থানে উঠে এসে প্রথম লেগ শেষ করলো সাইফ। সমান ৫ পয়েন্ট পাওয়া ব্রাদার্সের অবস্থান বারোতম স্থানে।

এদিন মুন্সিগঞ্জের বীরশ্রেষ্ঠ ফ্লাইট লে. মতিউর রহমান স্টেডিয়াম থেকে বড় জয় নিয়ে ফিরেছে পুরান ঢাকার ক্লাব রহমতগঞ্জ। যদিও ম্যাচে প্রথমে গোল পেয়েছিল আরামবাগই। মাত্র ৪ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে আরামবাগকে এগিয়ে নেন নিহাত জামান উচ্ছ¡াস (১-০)। এরপরই যেন জেগে ওঠে রহমতগঞ্জ। পরের গল্পটি শুধুই তাদের। ১৬ মিনিটে আইভরিকোস্টের ফরোয়ার্ড ক্রিস্ট রেমি গোল করলে সমতায় ফেরে তারা (১-১)। ৫৩ মিনিটে মেহবুব নয়ন গোল করলে এগিয়ে যায় রহমতগঞ্জ (২-১)। ৭৬ মিনিটে মেহবুব নয়নের গোলেই ব্যবধান বাড়ায় জায়ান্ট কিলার খ্যাতরা (৩-১)। ৮৪ মিনিটে তাজিকিস্তানের ডিফেন্ডার খোরশেদ বেকনাজারভ রহমতগঞ্জের হয়ে শেষ গোলটি করেন (৪-১)। এই জয়ে ১২ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট পেয়ে তালিকার অষ্টম স্থানে রহমতগঞ্জ এবং সমান ম্যাচে ১ পয়েন্ট নিয়ে সবার শেষে থেকে লিগ শেষ করেছে আরামবাগ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফুটবল


আরও
আরও পড়ুন