Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০১ ব্শৈাখ ১৪২৮, ০১ রমজান ১৪৪২ হিজরী

তিমির বমিতে কোটিপতি!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ মার্চ, ২০২১, ১২:০০ এএম

সমুদ্রের সামনেই বাড়ি। সময় কাটাতে সৈকতে হাঁটতে বেরিয়েছিলেন ৪৯ বছর বয়সী থাইল্যান্ডের এক নারী। তখনই দেখেন পানির তোড়ে পাড়ে ভেসে এসেছে আজব এক জিনিস। যা থেকে আবার মাছের মতো আঁশটে গন্ধ বেরচ্ছে। এরপরই সেটি বাড়ি নিয়ে আসেন পরবর্তীতে প্রতিবেশী এবং অন্যান্যদের সেটি দেখানোর পরই জানতে পারেন, সেটি অন্য কিছু নয়, বহু মূল্যবান ‘তিমির বমি’, যার ভাল নাম অ্যামবারগ্রিস ।
জানা যায়, সিরিপর্ন নিয়ামরিন নামে ওই নারী থাইল্যান্ডের নাখন সি থাম্মারাট প্রদেশের বাসিন্দা। গত ২৩ ফেব্রুয়ারি নিজের বাড়ির সামনে বিচে ঘুরে বেড়ানোর সময়ই ওই জিনিসটি দেখতে পান তিনি। এরপরই সেটি বাড়ি নিয়ে আসেন। পরবর্তীতে প্রতিবেশীরাই তাকে অ্যামবারগ্রিসের বিষয়টি জানান। এরপরই সেটি পরিষ্কারের পর দেখা যায়, ওই মহিলার পাওয়া অ্যামবারগ্রিসটি ১২ ইঞ্চি পুরু এবং ২৪ ইঞ্চি লম্বা। তিনি যে অ্যামবারগ্রিসটি পেয়েছেন তার বাজারমূল্য ২ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার। অর্থাৎ বাংলাদেশী মুদ্রায় ২ কোটি ১০ লাখ টাকারও বেশি।
‘তিমির বমি’ বা এই অ্যামবারগ্রিস আসলে বিশ্বের বৃহত্তম স্তন্যপায়ী প্রাণীর দেহেরই একটি অংশ। একে ‘ভাসমান সোনা’ এবং ‘সমুদ্রের গুপ্তধন’ও বলা হয়ে থাকে। মূলত ‘স্পার্ম হোয়েল’-এর শরীরেই এই জিনিসটি তৈরি হয়। সেখান থেকেই বমির মাধ্যমে এটি সমুদ্রে মিশে যায়। প্রথমে এর থেকে মাছের মতো আঁশটে গন্ধ বেরোলেই পরবর্তীতে খুবই সুন্দর গন্ধ বের হয়। এর ফলে এটি থেকেই সুগন্ধী তৈরি হয়। আন্তর্জাতিক বাজারে এই অ্যামবারগ্রিসের দামও অনেক বেশি। সূত্র : দ্য সান।



 

Show all comments
  • মোহামমদ সাইফ ৬ মার্চ, ২০২১, ১২:৫৭ এএম says : 0
    এর আগেও কুয়েতি এক জেলে তিমির বমি পেয়ে কোটিপতি হয়েছিল।
    Total Reply(0) Reply
  • Syed Shanewaz Bappy ৬ মার্চ, ২০২১, ১২:৫৮ এএম says : 0
    বাংলাদেশে বমি করলে কি অসুবিধে হতো ধ্যাত
    Total Reply(0) Reply
  • ঊষার দিগন্তের আলো ৬ মার্চ, ২০২১, ১২:৫৮ এএম says : 0
    আমিও পেয়ে ছিলাম বাট, এতো মূলবান জানলে রেখেদিতাম
    Total Reply(0) Reply
  • কায়সার মুহম্মদ ফাহাদ ৬ মার্চ, ২০২১, ১২:৫৯ এএম says : 0
    এ তো দেখি আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ