Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭, ২৯ শাবান ১৪৪২ হিজরী

বিক্ষোভের শততম দিনে সড়ক অবরোধ ভারতীয় কৃষকদের

বিক্ষোভের শততম দিনে সড়ক অবরোধ ভারতীয় কৃষকদের | প্রকাশের সময় : ৬ মার্চ, ২০২১, ৫:০৮ পিএম

নয়া কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে চলমান বিক্ষোভের শততম দিন উদযাপনে রাজধানী নয়াদিল্লির বাইরে ছয় লেনের এক্সপ্রেসওয়ে অবরোধ করেছেন ভারতের কৃষকরা। আজ শনিবার তরুণ ও বয়স্ক কৃষকরা গাড়ি, ট্রাক ও ট্রাক্টর নিয়ে পাঁচ ঘণ্টার সড়ক অবরোধে অংশ নেয়। খবর: আলজাজিরা।

২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে ভারতের পার্লামেন্টে পাস হওয়া তিন কৃষি আইনের বিরোধিতায় যুবা-বৃদ্ধ কৃষকেরা গাড়ি, ট্রাক ও ট্রাক্টর নিয়ে মহাসড়কটিতে পাঁচ ঘণ্টার জন্য অবরোধ পালনের জন্য যান। বিক্ষোভকারী কৃষকদের দাবি, এই আইনের আওতায় কৃষিখাতকে বেসরকারি প্রতিযোগীদের জন্য খুলে দেয়ার মাধ্যমে তারা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।
অপরদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলছেন, দেশটির বিশাল ও সেকেলে কৃষিখাতকে সংস্কারের প্রয়োজনেই এই আইন করা হয়েছে। কৃষকদের বিক্ষোভকে তিনি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে মন্তব্য করেছেন।
ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের ৬৮ বছর বয়সী কৃষক অমরজিৎ সিং বলেন, ‘মোদি সরকার এ বিক্ষোভটিকে তাদের ইগোর প্রশ্নে পরিণত করেছে। তারা কৃষকদের কষ্ট দেখতে পান না। আমাদের জন্য প্রতিবাদ করা ছাড়া কোনো পথই তারা খোলা রাখেননি।’
তীব্র শীত উপেক্ষা করে ডিসেম্বর থেকেই ভারতের উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন রাজ্যের হাজার হাজার কৃষক মোদির কৃষি সংস্কার আইন বাতিলের দাবিতে রাজধানীর বাইরে তাবু খাটিয়ে আন্দোলন করে আসছেন।
কৃষকদের এই আন্দোলন ইতোমধ্যেই আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মনোযোগ আকর্ষণ করেছে। জলবায়ু নিয়ে কাজ করা অধিকারকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ ও মার্কিন গায়িকা রিহানাসহ খ্যাতনামা তারকাদের সাথে সাথে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সমর্থন লাভ করেছে ভারতীয় কৃষকদের এই আন্দোলন।
কিন্তু, সংকটের সমাধানে মীমাংসায় সরকার ও কৃষক নেতাদের মধ্যে কয়েক দফা আলোচনার পরও সমাধান আসেনি। মোদি সরকার এ আন্দোলনের সমর্থকদের দমন করছেন এবং বিক্ষোভ দমনে কঠোর পদক্ষেপ নিচ্ছেন বলে অধিকারকর্মীরা অভিযোগ করেছেন।
এদিকে রাজধানীতে তীব্র গরম শুরু হওয়ার সাথে সাথে চাষাবাদের মওসুম শুরু হলেও শনিবারে সমবেত কৃষকরা বলছেন, দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তাদের ফিরবেন না।
পাঞ্জাবের ৫৮ বছর বয়সী কৃষক রাজা সিং বলেন, ‘তীব্র শীত আমাদের আন্দোলনে প্রভাব ফেলতে পারেনি, শুষ্ক তাপও কাবু করতে পারবে না।’ সূত্র: রয়টার্স



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ