Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০১ আষাঢ় ১৪২৮, ০৩ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল থেকে শিশুসহ রোহিঙ্গার নারী উধাও

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৬ মার্চ, ২০২১, ৫:২৬ পিএম

২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জেসমিন আক্তার (২২) নামক এক রোহিঙ্গা নারী পালিয়ে গেছে। এসময় তার সাথে মেয়ে সুমাইয়া আক্তার (৬) ছিল।

শনিবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) সৈয়দ মো. আবদুল আজিম।

তিনি জানান, গত ২মার্চ গলায় টিউমার নিয়ে জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন রোহিঙ্গা ওই নারী। এরপর থেকে পুলিশ পাহারায় হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছিল। শনিবার সকালে কর্তব্যরত সেবিকা ও চিকিৎসক ওয়ার্ডে গিয়ে তাদের দেখতে না পেয়ে হাসপাতালের বিভিন্ন স্থানে খোজাখুঁজি করে। দুপুর পর্যন্ত ওই রোহিঙ্গা নারী ও তার শিশু বাচ্চার কোন খোজ পাওয়া যায়নি।

সূত্রে জানা গেছে, হাতিয়ার ভাসানচরের আশ্রয়ন ক্লাষ্টার নং-২৭, হাউজ নং-ই,৩ বসবাস করা রোহিঙ্গা নারী জেসমিন দীর্ঘদিন ধরে গলায় টিউমার সমস্যা ভূগছিলেন। তার স্বামী সাইফুল ইসলাম। গত ২মার্চ মঙ্গলবার তাকে ভাসানচর থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে তাকে পাহারার জন্য দুইজন নারী ও একজন পুরুষ পুলিশ কনেস্টবল দায়িত্বে ছিল।

নোয়াখালী অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) দীপক জ্যোতি খীসা বলেন, হাসপাতালে কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যদের বাথরুমে যাওয়ার কথা বলে বাচ্চাকে নিয়ে ওই নারী কক্ষের বাহিরে যান। এরপর থেকে তাকে পাওয়া যাচ্ছে না। তবে দ্রুত সময়ের মধ্যে তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রোহিঙ্গা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ