Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬ আশ্বিন ১৪২৮, ১৩ সফর ১৪৪৩ হিজরী

বোনাস শেয়ারও দেবে ডাচ-বাংলা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ মার্চ, ২০২১, ১২:০১ এএম

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকিং খাতের কোম্পানি ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড শেয়ারহোল্ডারদের নগদ লভ্যাংশের সঙ্গে ১৫ শতাংশ বোনাস শেয়ারও দেবে। প্রতিষ্ঠানটি ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০ সমাপ্ত বছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে শেয়ারহোল্ডারদের মোট ৩০ শতাংশ লভ্যাংশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গতকাল কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ সভায় আলোচিত বছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা ও অনুমোদনের পর লভ্যাংশ দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়।

২০০১ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকটির শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস হয়েছে ১০ টাকা।
আগের বছর ইপিএস হয়েছিল ৭ টাকা ৮৯ পয়সা। অর্থাৎ করোনার বছরেও কোম্পানির মুনাফা বেড়েছে। এর আগের বছর ২০১৯ সালে কোম্পানিটি ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল। ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য ছিল ৫৮ টাকা ৬৫ পয়সা। আর সেই সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি ক্যাশ ফ্লো হয়েছে ৩১ টাকা ২২ পয়সা। আগের বছর ক্যাশ ফ্লো ছিল ১১ টাকা ৬৮ পয়সা।
শেয়ারহোল্ডারদের সর্বসম্মতিক্রমে লভ্যাংশ অনুমোদনের লক্ষ্যে আগামী ২৬ এপ্রিল কোম্পানিটির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিন সকাল ১০টায় ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৮ মার্চ। এদিকে মিউচ্যুয়াল ফান্ড খাতের ভ্যানগার্ড এএমএল রূপালী ব্যাংক ব্যালেন্স ফান্ডের ট্রাস্টি ইউনিট হোল্ডারদের জন্য ১ দশমিক ৬০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে ইউনিট হোল্ডারদের জন্য এ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা শেষে কোম্পানিটির ইউনিটপ্রতি মুনাফা (ইপিইউ) হয়েছে ১ টাকা ৬৮ পয়সা। ফান্ডটির বাজার মূলধন অনুযায়ী ইউনিটপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিইউ) দাঁড়িয়েছে ১০ টাকা ১৬ পয়সা। ফান্ডটির লভ্যাংশ বিতরণে ইউনিটহোল্ডার নির্বাচনে রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২৮ মার্চ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ