Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭, ২৭ শাবান ১৪৪২ হিজরী

কমনওয়েলথে অনুপ্রেরণাদায়ী শীর্ষ ৩ মহিলা নেতার অন্যতম শেখ হাসিনা -কমনওয়েলথ মহাসচিব

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ মার্চ, ২০২১, ১২:০১ এএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অন্যতম অনুপ্রেরণাদায়ী নারী নেত্রী হিসেবে অভিহিত করেছেন কমনওয়েলথ মহাসচিব প্যাট্রেসিয়া স্কটল্যান্ড। কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর সরকার প্রধানদের মধ্যে ‘অসাধারণ নারী নেতৃত্ব ও গভীর অনুপ্রেরণাদায়ী’ তিনজনের নাম উল্লেখ করেছেন তিনি। কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষ তিন অনুপ্রেরণাদায়ী নারী নেতাদের মধ্যে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অন্যতম। গত ৪ মার্চ কমনওয়েলথ মহাসচিব পেট্রেসিয়া স্কটল্যান্ড কিউসি আন্তর্জাতিক নারী দিবস ২০২১ উপলক্ষে দেওয়া এক বিশেষ ঘোষণায় ‘অসাধারণ নারী নেতৃত্ব ও গভীর অনুপ্রেরণা’ হিসেবে অভিহিত করে কোভিড-১৯ মহামারি মোকাবিলায় নিজ নিজ দেশে তাদের সফল নেতৃত্বের কথা বিশেষভাবে উল্লেখ করা হয়েছে। গত শুক্রবার লন্ডনের বাংলাদেশ হাইকমিশন থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

কমনওয়েলথ মহাসচিব বলেন, কমনওয়েলভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে তিনজন অসাধারণ নেতৃত্বের কথা উল্লেখ করতে চাই। তারা হলেন, নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিকা আরডেন, বার্বাডোসের প্রধানমন্ত্রী মিয়া আমোর মোটলে ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকরোনা মহামারি মোকাবিলায় তারা নিজ নিজ দেশে অসাধারণ নেতৃত্বের স্বাক্ষর রেখেছেন।

পেট্রেসিয়া স্কটল্যান্ড কিউসি বলেন, এ তিন রাজনীতিক ব্যক্তিত্ব বিশ্বের আরও অনেক নারীর পাশাপাশি আমাকে এমন একটি বিশ্ব গড়ে তোলার ব্যাপারে অনুপ্রেরণা যুগিয়েছেন যেখানে নারী-পুরুষ নির্বিশেষে সবার সম্মিলিত সুন্দর ভবিষ্যত ও কল্যাণ সুনিশ্চিত ও সুরক্ষিত থাকবে।

৫৪ দেশের জোট কমনওয়েলথের প্রধান প্যাট্রেসিয়া আন্তর্জাতিক নারী দিবস সামনে রেখে গত বৃহস্পতিবার নিজের টুইটারে একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করেন। এতে তিনি বলেন, আমাদের কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে আমি তিনজন অসাধারণ নেতৃত্বের কথা উল্লেখ করতে চাই।



 

Show all comments
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ৭ মার্চ, ২০২১, ২:৩১ এএম says : 3
    মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ কে পৃথিবীর মাঝে মর্যাদা সম্মান পরিচিতি দিয়ে একটি আর্তমর্যদাশীল জাতি হিসাবে প্রতিষ্টিত করে যাচ্ছেন।বিশাল ভিশনারী লিডারশিপ মাধ্যমে প্রানঢালা সুভেচ্ছা গভীর শ্রদ্ধা ও সালাম আর সালাম। আন্তর্জাতিক গন মাধ্যমে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়।বিশ্বনেতৃত্ব বিশ্বব‍্যাংক বিশ্বের অর্থনীতিবিদরা বিষ্ময়কর উন্নয়ন এই অগ্রগতির বাংলাদেশ কে শিরোনাম করছে।বাংলাদেশের ইলেকট্রনিক মিডিয়া প্রিন্ট মিডিয়াই বিশালাকার শিরোনাম নেইকেন??? বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ বিশাল সংখ্যক জনগোষ্ঠীর সমর্থন রাজনৈতিক দলের এত বিশাল বিশাল অর্জনেরপরও শান্ত মাননীয় প্রধান মন্ত্রী কে স্বরনকালের বৃহত্তর সম্বর্ধনার অভিনন্দন দেওয়া জরুরী ছিলো।করোনার কারণে হয়তো? আজ ঐতিহাসিক ৭ইমার্চ জাতির পিতার বঙ্গবন্ধুর ভাষণের প্রেরণা শক্তি স্বাধীনতার অদ‍্য শতাব্দীর দ্বার প্রান্তে এসেও জনপ্রিয়তার শীর্ষে। বঙ্গবন্ধুরক্ষুদাদারিদ্র মুক্তির সংগ্রাম অতিক্রম করে উন্নয়নশীল বাংলাদেশের প্রতিষ্টাকরেছেন বঙ্গবন্ধুর শ্রেষ্ঠ সন্তান। আলহামদুলিল্লাহ্। দীর্ঘদিন ক্ষমতাই থাকাই আন্তর্জাতিক অনেকগুলো সম্মান মর্যাদাবান পুরুস্কারপেয়েছেন।ভয়ংকর ভয়াবহ মহামারীতে লক্ষকোটির প্রনোদনা দেশের মানুষের প্রতি গভীর মমত্বের জন্যে কমেনওয়েল বিশ্ব নেতৃবৃন্দ বিশাল অনুপ্রেরণা দায়ী হিসাব সম্মানিত করলেন। বিশ্বে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জানেন। বিশ্বে ছয়টি বিষয়ে নোবেলজয়ী ঘোষণা করেন পদার্থ বিজ্ঞান রসায়ন বিজ্ঞান চিকিৎসা শাস্ত্র অর্থনীতিও সাহিত্য শান্তি। বঙ্গবন্ধুর কন্যা নানা ষড়যন্ত্র ঘাত প্রতিঘাত হত‍্যা প্রচেষ্টা পেরিয়ে ইতিমধ্যে তিনটি বিষয়ে নোবেলজয়ী ঘোষণার দাবী পক্ষে উপযুক্ত ছিল (এক) রক্তাক্ত পার্বত্য চট্টগ্রামের শান্তির পক্ষে পায়রা উড়িয়ে হাজারো মানুষের জীবন বাচিয়ে যুদ্ধের একটি জপপদ কে শান্তি প্রতিষ্টা জন্যেই শান্তিতে নোবেল পুরুস্কার বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর শতভাগ প্রাপ‍্যছিল (দুই)বার্মার ভয়ংকর ভয়াবহ নিষ্ঠুর জঘন্যতম গনহত‍্যার স্বীকার ক্ষতবিক্ষত রক্তাক্ত নারীশিশু বৃদ্ধযুবকের জীবন বাচানোর কঠিন সময়ে বিশ্ব মিডিয়া বিশ্ব নেতৃবৃন্দের মাঝেই একমাত্র বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন প্রয়োজন আমরা একবেলা খাব রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশের মাঠিতে আশ্রমকেন্দ্রিক যাবতীয় দায়িত্ববোধ গ্রহণকারী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী অবশ্যই নোবেল প্রাইজ নোবেলজয়ী শান্তির পক্ষে ঘোষণা দিতে পারতেন। বঞ্চিত করা হলো বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে। আন্তর্জাতিক ভাবে দেওয়া হলো বিশ্ব মানবতার মা ধন্যবাদ ।নোবেলজয়ী করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের নিকট এবার আরেকটি অধ‍্যায় সামনে দেশের উন্নয়নশীল বিশালাকার অর্থনৈতিক শক্তিশালী বাংলাদেশের প্রতিষ্টা করি ক‍্যারিশম‍্যাটিক লিডারশিপ অর্থনীতির বিচক্ষন জ্ঞানবুদ্ধি অর্থনীতির গতি প্রক্রিতি বাংলাদেশের বিষ্ময়কর উন্নতির জন্যে নোবেল প্রাইজ প্রাপ‍্য। আমার ক্ষুদ্র জ্ঞানের সিমাবদ্ধতা অনেক কিছুই বুঝতে না পারলেও একটা জিনিসবুঝিআন্তর্জাতিক কুটনৈতিক খেলা থাকতে পারে?? মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভীষন নিজ যোগ্যতাই বাংলাদেশের জন্যে আন্তর্জাতিক সম্মান মর্যাদার মাঝে নোবেল প্রাইজ পারেন এই বিশ্বাস আছে। আপনার শারীরিক সুস্থতা দীর্ঘায়ু কামনা করছি।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohd Matiur Rahman ৭ মার্চ, ২০২১, ৬:৫৫ এএম says : 0
    I fully agree and support this argument. If our prime minister would have been from any of the Western countries, show would have won more than one Noble prize by this time. I wonder when I see a person like President Trump is selected for the peace novel prize! I believe prime minister Sheikh Hasina will achieve the novel prize one day, inshallah.
    Total Reply(0) Reply
  • Jack+Ali ৭ মার্চ, ২০২১, ১:২৭ পিএম says : 0
    Those appreciate they do not love our country... government is committing every kind of heinous crime against our sacred Beloved Mother Land, committed genocide, looting million billion dollar from our hard earned money and sending to foreign countries. Why we liberated our country from barbarian army but our government is our servant but they become Master, they are torturing 100 time than Pakistani barbarian army. O'Allah rescue us from this taghut, zalem government and appoint a muslim leader who will rule our country by Qur'an so that we will be able to live in our sacred Beloved Mother Land in Peace, Security with human dignity and there will be no more poor people in our country.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রধানমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন