Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ডিসেম্বরে পুতিনের জাপান সফর

প্রকাশের সময় : ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

জাপানের সঙ্গে বিরোধ নিষ্পত্তি করে শান্তিচুক্তিতে আগ্রহী রাশিয়া
ইনকিলাব ডেস্ক : জাপানের সঙ্গে বিরোধ নিষ্পত্তিতে রাশিয়া আন্তরিক বলে জানিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন। দুই দেশের মধ্যে অমীমাংসিত কয়েকটি দ্বীপ নিয়ে বিরোধ চলে আসছে দীর্ঘদিন যাবত। আগামী ডিসেম্বরে পুতিনের সফর হবে ২০০৫ সালের পর তার প্রথম জাপান সফর। এক সাক্ষাৎকারে পুতিন বলেন, আমরা এক ধরনের বিনিময় বা বেচাকেনার কথা বলছি না। আমরা এমন সমাধানের কথা বলছি যাতে কোনো পক্ষই নিজেকে পরাজিত বা ক্ষতিগ্রস্ত ভাববে না। পুতিন বলেন, জাপানের সঙ্গে একটি শান্তিচুক্তি স্বাক্ষরই মূল বিষয়। রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, মস্কো আমাদের জাপানি বন্ধুদের সঙ্গে এই সমস্যার একটি সমাধান খুঁজে বের করতে খুবই আন্তরিক। রাশিয়া ও জাপান অতীতে বেশ কয়েকবার দ্বীপ নিয়ে বিরোধ মীমাংসার চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত সমাধান অধরাই থেকে গেছে। রাশিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় এলাকায় অনুষ্ঠিত অর্থনৈতিক ফোরামের এক সম্মেলনের ফাঁকে এক বৈঠকে আবে সাংবাদিকদের বলেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আন্তরিক ও বিস্তারিত আলোচনার মাধ্যমে শান্তিচুক্তি এবং ভূখ-গত বিষয়াদির ব্যাপারে অগ্রগতি হয়েছে। প্রসঙ্গত, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের সেনারা প্রশান্ত মহাসাগরীয় কুরিল দ্বীপমালার সর্ব দক্ষিণের দ্বীপগুলো দখল করে নেয়। এরপর থেকে বিষয়টি নিয়ে দুই দেশের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। জাপানে এ দ্বীপগুলো উত্তরাঞ্চলীয় ভূখ- নামে পরিচিত। উল্লেখ্য, পুতিন আগামী ডিসেম্বরে জাপান সফরের ঘোষণা দেবার পর আবে রাশিয়া সফর করেন। ওই বৈঠকে রওয়ানা হওয়ার আগে আবে সাংবাদিকদের বলেন, তিনি রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আন্তরিক ও বিস্তারিত আলোচনার মাধ্যমে শান্তিচুক্তি এবং ভূখ-গত বিষয়াদির ব্যাপারে অগ্রগতি অর্জনের চেষ্টা করবেন। রাশিয়া সফরের সময় দুই শীর্ষ নেতার মধ্যে বৈঠক হলেও কোনো চুক্তি হয়নি বলে জানা গেছে। এ জাতীয় সমঝোতা রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের জাপান সফরের সময় হতে পারে বলে আশাবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। রয়টার্স, ব্লুমবার্গ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডিসেম্বরে পুতিনের জাপান সফর
আরও পড়ুন