Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭, ২৯ শাবান ১৪৪২ হিজরী

রোমাঞ্চ জয়ের নায়ক শামীম

নেগেটিভ হয়েই প্রিটোরিয়াসের ৯০!

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ মার্চ, ২০২১, ১২:০০ এএম

তার কোভিড শনাক্ত হওয়া নিয়ে দুই দিন আগে কতই না তোলপাড়! গত শুক্রবার বাংলাদেশ ইমার্জিং দল ও আয়ারল্যান্ড উলভসের (‘এ’ দল) প্রথম ওয়ানডে ম্যাচটি পরিত্যক্ত হয়ে গেল ৩০ ওভারের পর। সেই রুহান প্রিটোরিয়াসকে গতকালই দেখা গেল মাঠে। শুধু তাই নয়, আইরিশদের হয়ে ইনিংস ওপেন করতে নেমে তিনি খেললেন ৯০ রানের ইনিংস! তবে তার সেই লড়াই ম্লান করে বাংলাদেশ এইচপি দলকে রোমাঞ্চকর এক জয় এনে দিয়েছেন শামীম হোসেন পাটোয়ারি। তার ঝড়ো ফিফটিতে আয়ারল্যান্ড উলভসকে ৪ উইকেটে হারায় ইমার্জিং দল। এতে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেছে ১-০ ব্যবধানে। দলকে জিতিয়ে শামীম অপরাজিত ছিলেন ৩৯ বলে ৫৩ রানে। মাহমুদুল হাসান জয় করেন ৯৫ বলে ৬৬ রান।

শনাক্ত হওয়ার পর থেকেই ৩০ বছর বয়সী প্রিটোরিয়াসকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছিল। গতকাল ম্যাচের আগে আবার কোভিড পরীক্ষায় নেগেটিভ হন প্রিটোরিয়াস ও দুই দলের অন্য সব ক্রিকেটার। নতুন পরীক্ষায় মুক্তি পেয়েই বাকিদের সঙ্গে প্রিটোরিয়াসও নেমে যান মাঠে। আইসোলেশন থেকে বেরিয়ে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামের এদিন এই পেস বোলিং অলরাউন্ডার উইকেটে কাটিয়ে দেন ৩৮ ওভার! জেমস ম্যাককলামের সঙ্গে মিলে গড়েন ৮৮ রানের উদ্বোধনী জুটি, দ্বিতীয় উইকেটে স্টিফেন ডোহেনির সঙ্গে ৮৫। নিজে এগিয়ে যান সেঞ্চুরির পথে। শেষ পর্যন্ত রকিবুল হাসানের বাঁহাতি স্পিনে রিভার্স সুইপ করার চেষ্টায় বোল্ড হন ১২৫ বলে ৯০ রান করে। শেষ দিকে শেন গ্যাটকেট আর গ্যারেথ ডেনলির ব্যাটে আড়াইশ ছাড়ায় আয়ারল্যান্ড উলভস।

রান তাড়ায় জুতসই শুরুর পর জয়ের ফিফটি গড়ে দেয় লড়াইয়ের ভিত। তবে এক পর্যায়ে দ্রæত উইকেট হারালে বেড়েছিল হারের শঙ্কা। দলের বিপদে পড়া অবস্থা থেকে কাÐারি হন শামীম হোসেন পাটোয়ারি। শেষ তিন ওভারে দরকার ছিল ৩৪ রান। ক্রিজে স্বীকৃত ব্যাটসম্যান বলতে ছিলেন শামীমই। তবে টেল এন্ডার হিসেবে তাকে যোগ্য সঙ্গ দেন সুমন খান। নিয়মিত প্রান্ত বদল করে শামীমকে স্ট্রাইক দিয়ে গেছেন তিনি। প্রিটোরিয়াসের করা ৪৮তম ওভার থেকে শামীমের এক ছক্কা আর পাঁচ সিঙ্গেলে আসে ১১ রান।

ম্যাচ জিততে শেষ দুই ওভারে প্রয়োজন দাঁড়ায় ২৩ রানের। জশ লিটলের ৪৯ তম ওভারে স্কুপ থেকে চার, লেগ স্টাম্পের বাইরে পাওয়া ফুলটস থেকে ছয়ে শামীম আনেন আরও ১৪ রান। ৩৭ বলে পৌঁছান ফিফটিতে। তখনই দুলতে থাকা ম্যাচ হেলে পড়ে বাংলাদেশের দিকে। শেষ ৬ বলে চাই ৯ রান। স্ট্রাইকরে থাকা সুমন প্রথম বলেই এক্সট্রা কাভার দিয়ে উড়িয়ে মেরে দেন বাউন্ডারি। স্ট্রাইক পেয়ে আনুষ্ঠানিকতা সারা শামীমকে তাই আর তেমন কিছু করতেই হয়নি। দুই বল আগেই শেষ হয়ে যায় ম্যাচ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
আয়ারল্যান্ড উলভস : ৫০ ওভারে ২৬৩/৭ (ম্যাককলাম ৪১, প্রিটোরিয়াস ৯০, ডোহেনি ৩৭, টেক্টর ৩১, গেটকেট ২৯, ডেলানি ১৮; মুকিদুল ১/৬২, সুমন ২/৫১, শফিকুল ১/৫৬, রকিবুল ২/৩৯)। বাংলাদেশ ইমার্জিং দল : ৪৯.৪ ওভারে ২৬৪/৬ (সাইফ ৩৬, তানজিদ ১৭, জয় ৬৬, ইয়াসির ৩১, হৃদয় ৩১, শামীম ৫৩*; লিটল ১/৫৬, প্রিটোরিয়াস ১/৪০, হোয়াইট ২/৪৫, গেটকেট ১/১৫)। ফল : বাংলাদেশ ৪ উইকেটে জয়ী। ম্যাচ সেরা : শামীম হোসেন। সিরিজ : ৫ ম্যাচে ১-০তে এগিয়ে বাংলাদেশ

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ক্রিকেট


আরও
আরও পড়ুন