Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১১ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৫ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

কুমিল্লায় বিচারকের সামনে খুনের ঘটনায় আসামীর মৃত্যদণ্ড

স্টাফ রিপোর্টার কুমিল্লা থেকে | প্রকাশের সময় : ৮ মার্চ, ২০২১, ৫:৩৭ পিএম

একটি হত্যার ঘটনায় জড়িত না থাকা সত্ত্বেও আসামি ফারুক মামলায় তার স্বাক্ষ্যতে হাসানের নাম বলায় এবং পরে সে আসামি হওয়ার ক্ষোভ থেকে ফারুককে মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত নেয়। আর সেই সিদ্ধান্তের পথ ধরে ওই মামলায় হাজিরা দিতে এসে ২০১৯ সালের ১৫ জুলাই কুমিল্লার আদালতের বিচারকের সামনেই ছুরিকাঘাতে ফারুককে খুন করে হাসান।
এঘটনার এক বছর আট মাসের মাথায় খুনের দায়ে মো. হাসানকে (২৫) আসামির মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার (৮ মার্চ) দুপুরে কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আতাব উল্লাহ এ রায় দেন।
মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত পাওয়া মো. হাসান জেলার লাকসাম উপজেলার ভোজপাড়া গ্রামের লাকসাম উপজেলার ভোজপুর গ্রামের শহিদুল্লাহর ছেলে। রায় ঘোষণার সময় হাসানের স্বজনরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।
মামলার অভিযোগ ও আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের ১৫ জুলাই কুমিল্লা আদালত ভবনের তৃতীয় তলায় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ তৃতীয় আদালতে জেলার মনোহরগঞ্জ উপজেলার কান্দি গ্রামের হাজী আবদুল করিম হত্যা মামলার হাজিরা দিতে আসেন দুই আসামি কুমিল্লা জেলার লাকসাম উপজেলার ভোজপুর গ্রামের শহিদুল্লাহর ছেলে মো. হাসান এবং মনোহরগঞ্জ উপজেলার কান্দি গ্রামের অহিদুল্লাহর ছেলে মো. ফারুক। তারা সম্পর্কে আপন মামাতো-ফুফাতো ভাই। আদালতের এজলাসে ফারুককে দেখতে পেয়ে তাকে ছুরি দিয়ে আঘাত করার চেষ্টা করে হাসান। প্রাণ বাঁচাতে ফারুক বিচারকের খাস কামরায় প্রবেশ করলে সেখানে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে হাসান। পরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ফারুককে মৃত ঘোষণা করেন।
এ ঘটনায় সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) ফিরোজ আহম্মেদ হাসানকে রক্তমাখা ছুরিসহ আটক করেন। তিনি ঘটনার বাদী হয়ে ওইদিন রাতে ঘাতক হাসানের বিরুদ্ধে কোতোয়ালি মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।
কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট জহিরুল ইসলাম সেলিম বলেন, কুমিল্লার আদালতে এ হত্যাকাণ্ড ছিল একটি নজিরবিহীন ও একটি চাঞ্চল্যকর ঘটনা। এ রায়ে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ