Inqilab Logo

বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১১ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

৩ হাজার কোটি টাকার সুকুক বন্ড ছাড়বে বেক্সিমকো

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ মার্চ, ২০২১, ১২:০১ এএম

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বেক্সিমকো লিমিটেড শরিয়াহভিত্তিক সুকুক বন্ড ছেড়ে ৩ হাজার কোটি টাকার তহবিল সংগ্রহ করতে চায়। গত বছরের শেষে দেশে প্রথমবারের মতো সুকুক চালু হওয়ার পর বেসরকারি খাতে এটাই হবে সবচেয়ে বড় শরিয়াহ বন্ড। বেক্সিমকোর ৩০০০ কোটি টাকার সুকুক আল ইসতিস্না বন্ডের ব্যবস্থাপক, উপদেষ্টা ও ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে সিটি ক্যাপিটাল।
গত রোববার বেক্সিমকো ও সিটি ব্যাংক ক্যাপিটাল লিমিটেডের মধ্যে এ সম্পর্কিত একটি চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। অনুষ্ঠানে বেক্সিমকোর গ্রুপ ডিরেক্টর ও পাওয়ার অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সিইও ওসমান কায়সার চৌধুরী এবং সিটি ব্যাংক ক্যাপিটালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এরশাদ হোসেন নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে চুক্তি স্বাক্ষর করেন। অনুষ্ঠানে বেক্সিমকোর বিভিন্ন অঙ্গ প্রতিষ্ঠান ও সিটি ব্যাংক ক্যাপিটালের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বেক্সিমকো পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেডের দুটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান তিস্তা সোলার লিমিটেড ও করতোয়া সোলার লিমিটেডের নির্মাণ ব্যয়ে বিনিয়োগের উদ্দেশ্যে এই বন্ড (বিএসইসি’র অনুমোদন সাপেক্ষে) চালু করছে বেক্সিমকো। এ ছাড়া এই বন্ড থেকে অর্জিত অর্থ বেক্সিমকো’র টেক্সটাইল বিভাগ সমপ্রসারণ ও যন্ত্রপাতি কেনায় ব্যয় করা হবে। বিষয়টি ইতিমধ্যেই ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জকেও (ডিএসই) জানানো হয়েছে।
সূত্র জানায়, পাঁচ বছর মেয়াদি এই বন্ড দেশের দুই স্টক এক্সচেঞ্জেও তালিকাভুক্ত হবে। প্রতিটি ইউনিটের অভিহিত মূল্য হবে ১০০ টাকা। ৫০টি সুকুক বন্ড নিয়ে হবে একটি লট। একটি লট কিনতে বিনিয়োগকারীদের ৫ হাজার টাকা দিতে হবে।
শরিয়াহভিত্তিক বন্ড সুকুককে বিবেচনা করা হয় বিনিয়োগ সনদ হিসেবে, যার বিপরীতে সম্পদের মালিকানা দেয়ার নিশ্চয়তা থাকে। বিনিয়োগের জন্য তারা নির্দিষ্ট হারে মুনাফা পান। বেক্সিমকো জানিয়েছে, তাদের সুকুক বন্ডে ৯ শতাংশ ভিত্তিমূল্যের সঙ্গে মার্জিন যোগ করে ৬ মাস অন্তর বন্ডটিতে বিনিয়োগের বিপরীতে মুনাফা দেয়া হবে। বেক্সিমকো সুকুক আল ইসতিস্না হবে কনভার্টেবেল। অর্থাৎ এ বন্ডে বিনিয়োগকারীরা তাদের বিনিয়োগ বেক্সিমকো লিমিটেডের শেয়ারে রূপান্তরেরও সুযোগ পাবেন। যদি কোনো বিনিয়োগকারী সুকুককে শেয়ারে রূপান্তর না করেন, তাহলে ৫ বছরের মেয়াদ শেষে সুকুকের অবসায়ন হবে। এই সুকুক বন্ডের মূল ইস্যুয়ার হবে বেক্সিমকো লিমিটেড।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বেক্সিমকো


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ