Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৪ আষাঢ় ১৪২৮, ০৬ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

গরম পানিতে খুশি আক্তারকে ঝলসে দিয়েছে পাষন্ড স্বামী

শরীয়তপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১০ মার্চ, ২০২১, ৭:০২ পিএম

শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে নেশার টাকার জন্য গরম পানি ছুড়ে খুশি আক্তার (৩০) নামে এক গৃহবধূর শরীর ঝলসে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে। বুধবার (১০ মার্চ) সকালে উপজেলা পট্টি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

খুশি আক্তার গোসাইরহাট উপজেলার ইদিলপুর ইউনিয়নের পট্টি গ্রামের ছালাম সরদারের মেয়ে। তার স্বামী একই এলাকার কালাচান রাঢ়ীর ছেলে মিজান রাঢ়ী। তাদের সংসারে এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে নেশাগ্রস্ত খুশির স্বামী মিজান রাঢ়ী কোনো কাজ করেন না। টাকার জন্য খুশিকে নিয়মিত অত্যাচার করতেন। কারো কোনো কথা শুনতেন না। মানুষের বাড়িতে কাজ করে টাকা আয় করেন খুশি। বুধবার সকালে নেশার টাকার জন্য খুশিকে বারবার বলেন মিজান। পরে ঝগড়া লেগে যায় দুইজনের মধ্যে। এক পর্যায়ে খুশির শরীরে গরম পানি ছুড়ে মারেন মিজান।

খুশি আক্তার বলেন, বিয়ের পর থেকেই আমার স্বামী মিজান নেশা করে। কোনো কাজ করে না। কাজের কথা বললেই মারধর করে। আজ সকালে চাদর ও কাঁথা ধোয়ার জন্য গরম পানি করছিলাম। বাহির থেকে এসেই আমার কাছে টাকা চায় মিজান। টাকা নাই বলায় প্রথম পাশে থাকা গরম পানি ছুড়ে মারে। পরে দা দিয়ে মাথায় কোপ দেয়।

গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. সিকদার আফ্রিদী রিজভী বলেন, খুশি আক্তারের শরীরের ১৫ শতাংশ গরম পানিতে ঝলসে গেছে। মাথায় একটি চোট রয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গোসাইরহাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা সোহেব আলী বলেন, এ ব্যাপারে এখনও কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। চিকিৎসার জন্য ওই গৃহবধূকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত মিজানকে ধরার চেষ্টা চলছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শরীয়তপুর


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ