Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৯ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৭ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

কাশ্মীর দমনে ছররা গুলি বাদ এবার মরিচ গুঁড়ার গ্রেনেড

আন্তর্জাতিক সমালোচনার মুখে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের ঘোষণা

প্রকাশের সময় : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

কাশ্মীরে ছররা গুলিতে বহু নিরপরাধ মানুষসহ অসংখ্য বিক্ষোভকারী চিরতরে দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলার পর ভারতীয় বাহিনীর নিষ্ঠুরতার বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় ওঠে

ইনকিলাব ডেস্ক : কাশ্মীরে ছররা গুলির বদলে মরিচের গুঁড়োর গ্রেনেড ব্যবহারের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হয়েছে। কাশ্মীরে ভারতের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের বৈঠক সামনে রেখে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং গতকাল রবিবার এ ঘোষণা দিয়েছেন। রাজনাথ জানিয়েছেন, ছররা গুলি একেবারে নিষিদ্ধ করা হচ্ছে না। খুবই ব্যতিক্রমী ও অপরিহার্য বাস্তবতায় তা ব্যবহার করা হতে পারে। উল্লেখ্য, গত মাসে ছররা গুলির ব্যবহার বন্ধের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ভারতীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। ভারতের স্বনামধন্য সাময়িকী আউটলুকের খবরে সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, ছররা গুলির বিকল্প হিসেবে এখন থেকে পাভা শেলস ব্যবহার করবে নিরাপত্তা বাহিনী। আউটলুক বলছে, আন্তর্জাতিক সমালোচনার মুখেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত।
বস্তুত ভারত-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে বিক্ষোভকারীদের ওপর ছররা গুলির ব্যবহার নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সমালোচনার ঝড় চলছে। কাশ্মীরে ছররা গুলিতে বহু বিক্ষোভকারী চিরতরে দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছে বলে অভিযোগ ওঠার পর সে সমালোচনা আরো জোরালো হয়ে ওঠে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ছররা গুলি ব্যবহারের যৌক্তিকতাকেও প্রশ্নবিদ্ধ করেছে এবং অবিলম্বে ছররা গুলির ব্যবহার বন্ধের আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি প্রদান করে মানবাধিকার সংগঠনগুলো। খবরে বলা হয়, অবশেষে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তুমুল সমালোচনার মুখে কাশ্মীরে ছররা গুলির বিকল্প খুঁজতে শুরু করে ভারত সরকার। একপর্যায়ে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একটি বিশেষজ্ঞ প্যানেল গঠন করে। সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে সে সময় বলা হয়, ছররা গুলির বদলে চিলিভিত্তিক পাভা শেল ব্যবহারের পক্ষেই মত দিয়েছে বিশেষজ্ঞ প্যানেল। খবরে বলা হয়, এ ব্যাপারে মতামত দিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যে বিশেষজ্ঞ প্যানেল নিয়োগ করেছে, তারা নবনির্মিত পাভা শেলস ব্যবহারের পক্ষে। ছররার বদলে এতে ব্যবহার হবে মরিচের গুঁড়া। বড় কোনো ক্ষতি না হলেও যার ওপর এই মরিচের গুঁড়া পড়বে, সে বেশ কিছুক্ষণ নড়াচড়া করার মতো অবস্থায় থাকবে না। প্রসঙ্গত, এই প্রেক্ষাপটে জম্মু-কাশ্মীর সফরে গিয়ে আগস্টের শেষ সপ্তাহে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং জানান, ভারত সরকার ছররা গুলির ব্যবহার বন্ধের কথা ভাবছে। আর ২৯ আগস্ট তারিখে একজন যুগ্ম-সচিবের নেতৃত্বাধীন ৭ জনের তদন্ত কমিটি ২৯ আগস্ট কয়েক দফা সুপারিশ উত্থাপন করে। সেই সুপারিশে ছররা গুলির ব্যবহার বন্ধের পক্ষে মত দেয়া হয়। কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতেই ওই গুলির ব্যবহার বন্ধের সিদ্ধান্ত নিল ভারত। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়, বিএসএফ, সিআরপিএফ, জম্মু কাশ্মীর পুলিশ, দিল্লি আইআইটি ও অর্ডন্যান্স ফ্যাক্টরি বোর্ডের সদস্যদের নিয়ে যে ৭ বিশেষজ্ঞের প্যানেল গঠিত হয়েছে তারা বিক্ষোভকারীদের হঠাতে এই পাভা শেলস ব্যবহারের পক্ষে। এ সপ্তাহের শুরুতে পাভা শেলসের পরীক্ষামূলক ব্যবহারও হয়েছে। পাভা শব্দটি এসেছে পিলারগনিক অ্যাসিড ভ্যানিলাইল অ্যামাইড থেকে, যার আরেক নাম ননিভামাইড। টাইমস অফ ইনডিয়া, বিবিসি, এনডিডিটভি।



 

Show all comments
  • Monir Chowdhury ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:২৫ পিএম says : 1
    কি অমানুযিক যুলুম ও বরবরতা? এতে মানবাধিকার লংঘন হয় না?
    Total Reply(0) Reply
  • Jibon ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:২৫ পিএম says : 0
    Aj jodi onno dormer manus morto tobe sara bissow kede urto.
    Total Reply(0) Reply
  • Md Eliash Hossain ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:২৫ পিএম says : 0
    আল্লাহ তুমি মজলুমদের দোয়া কবুল কর।
    Total Reply(0) Reply
  • Harono Din ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:২৬ পিএম says : 0
    he Allah tumi tader rokkha koro.
    Total Reply(0) Reply
  • Mizanur Rohman ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:২৬ পিএম says : 0
    Vuiya Allah hefajot korun
    Total Reply(0) Reply
  • Rasel Ahmed ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:২৬ পিএম says : 1
    ছিছিছি ............
    Total Reply(0) Reply
  • সুলতান ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:২৭ পিএম says : 1
    ভারতীয় বাহিনী কি মানুষ দ্বারা গঠিত ?
    Total Reply(0) Reply
  • বারী ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ২:১২ পিএম says : 0
    জতিসংঘ, এবং বিশ্বের মোরলরা নিরব কেন? আজ যদি এই বিদ্রোহ সমকামিতা ও উলংগথাকার বিরুদ্ধে হত তাহলে মরিচেরগুড়া ব্যবহারে তোমরা কি নিরব থাকতে?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ