Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮, ২৯ রমজান ১৪৪২ হিজরী

লক্ষ্মীপুরে পৃথক অগ্নিকাণ্ডে দোকান ও বসত ঘর ভশ্মিভূত, অগ্নিদগ্ধ হয়ে প্রতিবন্ধী নারীর মৃত্যু

লক্ষ্মীপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৪ মার্চ, ২০২১, ৪:৩০ পিএম

লক্ষ্মীপুর জেলার রামগতি ও রামগঞ্জ উপজেলায় পৃথক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৬৫ দোকান ও ২টি বসতঘর পুড়ে ভশ্মিভূত হয়েছে। অগ্নিদগ্ধ হয়ে রামগঞ্জে এক প্রতিবন্ধী নারীর মৃত্যু হয়েছে।

রবিবার (১৪ মার্চ) ভোর ৫টার দিকে রামগতি উপজেলার আলেকজান্ডার বাজারে ভয়াভহ অগ্নিকাণ্ডে প্রায় ৬৫ টি দোকানঘর পুড়ে গেছে।

রামগতি এবং কমলনগর ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট দেড় ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুনে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান তাৎক্ষণিক জানা যায়নি। আগুনে পৌরসভার ৫৫টি ট্রীলসেড এবং পার্শ্ববর্তী আরও পায় ১০টি দোকানঘর পুড়ে গেছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে।

রামগতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল মোমিন বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ইলেকট্রিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে টিন, চাল এবং নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করা হবে বলেও জানান ইউএনও।

অপর ঘটনায় শনিবার দিবাগত গভীর রাতে রামগঞ্জ উপজেলার কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের পূর্ব বিগা গ্রামে কুতুব উল্যাহ বাড়িতে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে কামাল উদ্দিন ও মফিজ খানের দুটি ঘরে আগুন লেগে যায়। মুহূর্তে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় ঘরে ঘুমিয়ে থাকা মায়া আক্তার (৪৭) নামের এক মানসিক প্রতিবন্ধী নারীর মৃত্যু হয়েছে। নিহত মায়া পূর্ব বিগা গ্রামের মৃত সুজা মিয়ার মেয়ে।

স্থানীয়রা ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো জানায়, কুতুব উল্যাহ বাড়িতে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে কামাল উদ্দিন ও মফিজ খানের দুটি ঘরে আগুন লেগে যায়। খবর পেয়ে রামগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এর আগেই আসবাবপত্রসহ দুটি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

রামগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ইনচার্জ আবদুর রশিদ বলেন, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। ঘুমন্ত অবস্থায় আগুনে দগ্ধ হয়ে মায়া আক্তার নামে একজন মারা গেছেন। আসবাব ও ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ক্ষতির পরিমাণ নির্ণয় করা হচ্ছে।

রামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাপ্তি চাকমা বলেন, ঘুমিয়ে থাকা মেয়েটির মৃত্যুর ঘটনা মর্মান্তিক। অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করা হয়েছে। দ্রুত তাদের প্রশাসনিকভাবে সহায়তা করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অগ্নিদগ্ধ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ