Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ২৪ বৈশাখ ১৪২৮, ২৪ রমজান ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

টিকা নেয়া পর্যটকদের জন্য খুলছে থাইল্যান্ড

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ মার্চ, ২০২১, ১২:০২ এএম

থাইল্যান্ডের দক্ষিণাঞ্চলের দ্বীপ কোহ সামুই পর্যটকদের কাছে খুবই জনপ্রিয়। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর রিসোর্ট আইল্যান্ড হিসেবে পরিচিত দ্বীপটি পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়ার কথা ভাবা হচ্ছে। তবে যে কেউ চাইলেই আগের মতো কোহ সামুই ভ্রমণ করতে পারবে না। কেবল কভিড-১৯-এর টিকা নেয়া পর্যটকরাই সেখানে ভ্রমণের সুযোগ পাবে। সেই সঙ্গে থাকবে না ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকার বাধ্যবাধকতাও। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ১ অক্টোবর থেকে স্বাভাবিক হতে শুরু করবে কোহ সামুই। খবর বøুমবার্গ। কোহ সামুই ট্যুরিজম অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান র‌্যাচাপর্ন পুলসাওয়াদি জানান, দ্বীপটির অর্থনীতির ম‚ল ভিত্তি হলো পর্যটন শিল্প। বিশেষ করে বিদেশী পর্যটক। তবে মহামারীর কারণে বিদেশী পর্যটকরা আসতে না পারায় টিকে থাকতে হিমশিম খাচ্ছে সেখানকার পর্যটন ব্যবসা। তাই যত দ্রæত সম্ভব কোহ সামুইয়ের দরজা বিদেশী পর্যটকদের জন্য খুলে দিতে চান তারা। থাইল্যান্ডের আরেকটি রিসোর্ট আইল্যান্ড ফুকেটও পর্যটন ব্যবসা চালুর চিন্তা করছে। ফুকেটের মতো কোহ সামুইও পরিকল্পনা করেছে কেবল কভিড-১৯-এর টিকা গ্রহণ করেছে এমন পর্যটকদের প্রবেশাধিকার দেয়া হবে। তাদের জন্য কোয়ারেন্টিন নিয়মও শিথিল করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। তাছাড়া এ দুটি দ্বীপেরই নিজস্ব আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর রয়েছে। ফলে এ দুটিতে পর্যটকরা প্রবেশ করলেও দেশের অন্য অংশ থেকে তারা বিচ্ছিন্নই থাকবে। র‌্যাচাপর্ন আরো বলেন, কোহ সামুইয়ে ঘুরতে যাওয়া টিকা গ্রহণকারী পর্যটকরা চাইলে পাশের দ্বীপ কোহ তাও ও কোহ ফানাং ঘুরতে পারবে। এ দুটি দ্বীপ পর্যটকদের কাছে ডাইভিং ও প‚র্ণিমা দেখার জন্য জনপ্রিয়। তবে পর্যটকদের জন্য খুলে দেয়ার আগে দ্বীপ তিনটির বাসিন্দাদের কাছে টিকা পৌঁছে দেয়া হবে বলে জানান এ কর্মকর্তা। তিনি বলেন, তিনটি দ্বীপের ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকার আওতায় আনতে ১ লাখ ৬০ হাজার ডোজ টিকা প্রয়োজন। থাইল্যান্ডে পর্যটন শিল্পে এক ধরনের নবজাগরণ ঘটেছে। মহামারীর আগেও দেশটির প্রথম পাঁচটি উপার্জন খাতের একটি ছিল পর্যটন। করোনা সংক্রমণ শুরু হলে বন্ধ হয়ে যায় এ ব্যবসা। স্থানীয় পর্যটন ব্যবসায়ীদের দাবি আগামী ১ জুলাই থেকে বাধ্যতাম‚লক কোয়ারেন্টিনের নিয়ম তুলে দেয়া হোক। যাতে টিকা গ্রহণকারী পর্যটকরা দেশটিতে ভ্রমণ করতে পারে। সব মিলিয়ে এ মাসেই থাই সরকার টিকা গ্রহণকারী পর্যটকদের জন্য দরজা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিতে পারে। সেই সঙ্গে পর্যটন ব্যবসাকে সহায়তা করতে বাধ্যতাম‚লক কোয়ারেন্টিনের সময় ১৪ দিন থেকে কমিয়ে ৭ দিন করতে পারে। বøুমবার্গ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টিকা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ