Inqilab Logo

সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৩ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

রবি, বাংলালিংক ও টেলিটকের অনুমোদনবিহীন ৬ টাওয়ার জব্দ

ওয়ান্ডারল্যান্ড পার্ক সিলগালা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ মার্চ, ২০২১, ৭:৫৮ পিএম

টেলিকম অপারেটর রবি, বাংলালিংক ও টেলিটকের অনুমোদনবিহীন ৬ টাওয়ার জব্দ করে বাজেয়াপ্ত করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল বিকেলে নগরীর নিউ মার্কেট সুপার মার্কেট দক্ষিণ (প্রকাশ নিউ মার্কেট) ডিএসসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানজিলা কবির ত্রপা এই অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে মার্কেটের ছাদে অনুমোদনহীনহীনভাবে স্থাপিত মোবাইল ফোন অপারেটর রবি'র ৪টি, বাংলালিংকের ১টি এবং টেলিটকের ১টি টাওয়ার জব্দ করে বাজেয়াপ্ত করা হয়।


অভিযানকালে ডিএসসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন ও প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আরিফুল হক উপস্থিত ছিলেন।

অভিযান প্রসঙ্গে ডিএসসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন বলেন, সিটি করপোরেশন আদর্শ কর তফসিল, ২০১৬ অনুযায়ী করপোরেশন এলাকায় মোবাইল টাওয়ার স্থাপনের ক্ষেত্রে বাড়ি/স্থাপনা মালিকের সাথে সম্পাদিত চুক্তিপত্রে উল্লেখকৃত ভাড়ার ছয় ভাগের এক ভাগ হারে ডিএসসিসিকে কর প্রদানের বিধান রয়েছে। কিন্তু টেলিকম অপারেটর রবিকে ইতোমধ্যে বেশ কয়েকবার টেলিফোনে এবং ছয় বার পত্র প্রেরণ করে ‘বাড়ি/স্থাপনা মালিকের সাথে তাদের সম্পাদিত ভাড়ার চুক্তিপত্র’ প্রেরণের জন্য বলা হয়। কিন্তু অদ্যবধি রবি’র তরফ থেকে এ বিষয়ে কোনো প্রত্যুত্তর দেওয়া হয়নি।”

রাসেল সাবরিন আরও বলেন, রবি’র পক্ষ হতে ডিএসসিসি এলাকায় শুধু ৮১টি টাওয়ার রয়েছে বলে আমাদেরকে প্রাথমিকভাবে জানানো হলেও মাঠের চিত্র সম্পূর্ণ ভিন্ন। এয়ারটেল রবি’র সাথে একীভূত হওয়ার পর তাদের সেই টাওয়ারের সংখ্যা আরও কয়েকগুণ বেশি বলে প্রতীয়মান। তাই, রবি’র টাওয়ার জব্দে আমরা গতকাল অভিযান পরিচালনা করি। আমাদের কাছে প্রদেয় টাওয়ারের হিসেবে নিউ সুপার মার্কেট দক্ষিণে রবি’রএকটি টাওয়ার থাকার কথা থাকলেও সেখানে গিয়ে আমরা চারটি টাওয়ার দেখতে পায়। এছাড়াও অভিযানকালে বাংলালিংকের ১টি এবং টেলিটকের ১টি অনুমোদনবিহীন টাওয়ার সেখানে আমরা দেখতে পাই। তাই, রবি’র ৪টি, বাংলালিংকের ১টি এবং টেলিটকের ১টি অনুমোদনবিহীন টাওয়ার আমরা জব্দ করে বাজেয়াপ্ত করেছি।

এদিকে গত ১৪ মার্চ ডিএসসিসির মালিকানাধীন স্বামীবাগ এলাকায় ‘ওয়ান্ডারল্যান্ড পার্কে’ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় অনুমতি ছাড়া পার্ক চালু রাখায় পার্কের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হয় এবং পার্কের মূল দরজাসহ সকল দোকান তালাবদ্ধ ও সিলগালা করে দেয়া হয়।

উল্লেখ্য যে, গত বছরের ১৯ অক্টোবর ডিএসসিসি এলাকায় মোবাইল টাওয়ার ব্যবহার বাবদ গ্রামীণ ফোন ডিএসসিসিকে ৯ কোটি ৬৩ লাখ ৭ হাজার ৩শ ৮৫ টাকা সমুদয় বকেয়া পরিশোধ করে। এছাড়াও টেলিকম অপারেটর রবি গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরের বকেয়া হিসেবে ১ কোটি ৫০ লক্ষ ৫৪ হাজার ৫৬৮ টাকা এবং এ বছরের ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৭-১৮ থেকে ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য ৪ কোটি ৪০ লক্ষ ৮১ হাজার ১৮০ টাকা বকেয়া পরিশোধ করে।

আরও উল্লেখ্য যে, ডিএসসিসির মালিকানাধীন এই জায়গায় ‘ভায়া মিডিয়া সার্ভিস লিমিটেড’ এর সাথে ওয়ান্ডারল্যান্ড পার্ক হিসেবে পার্ক পরিচালনার জন্য সাথে ৩ বছর মেয়াদী ইজারা (লিজ) দেওয়া হয় যা ২০০৫ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি মেয়াদোত্তীর্ণ হয়। ডিএসসিসি (তৎকালীন ডিসিসি) সেই কোম্পানীর সাথে ইজারার মেয়াদ নতুন করে নবায়ন না করলেও ভায়া মিডিয়া সার্ভিস লিমিটেড পরবর্তীতে ২০০৮ সালে হাইকোর্টে সিভিল পিটিশন ফর লিভ টু আপীল দায়ের করেন।পরবর্তীতে আপীল বিভাগ করপোরেশনের পক্ষে সেই মামলা নিষ্পত্তি করে। কিন্তু তারপরও দীর্ঘ সময় সেই জায়গা পার্ক কর্তৃপক্ষ ডিএসসিসিকে হস্তান্তর না করায় অবশেষে গত রবিবার সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। ডিএসসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ এইচ ইরফান উদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করে সেই ওয়ান্ডারল্যান্ড পার্ক সিলগালা করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অনুমোদনবিহীন টাওয়ার জব্দ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ