Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৪ আষাঢ় ১৪২৮, ০৬ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

৮৫ হাজার ল্যাপটপসহ তথ্য প্রযুক্তি সামগ্রী কেনা হচ্ছে

শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ মার্চ, ২০২১, ১২:০৬ এএম

দেশের ৫ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্থাপিতব্য শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবের জন্য ৮৫ হাজার ল্যাপটপসহ তথ্য প্রযুক্তি সামগ্রী ক্রয় সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। এতে ব্যয় হবে ৪৮৭ কোটি ২১ লাখ ৭ হাজার ৭৯১ টাকা। গতকাল বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে বৈঠকে এ সংক্রান্ত প্রস্তাবের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বৈঠক শেষে অনুমোদিত প্রস্তাবের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. শাহিদা আক্তার ।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জানান, অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি’র ৯ম এবং সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি’র ১১তম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অর্থনৈতিক বিষয়ক সংক্রান্ত কমিটির অনুমোদনের জন্য ১টি এবং ক্রয় কমিটির অনুমোদনের জন্য ৫টি প্রস্তাব উত্থাপন কর হলে দুইটি প্রস্তাবের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এরমধ্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের ১টি প্রস্তাব ও গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের ১টি। দুই প্রস্তাবে মোট অর্থের পরিমাণ ৬৫১ কোটি ৩৫ লাখ ২৭ হাজার ৬৩৯ টাকা। মোট অর্থায়নের মধ্যে সম্প‚র্ণ অর্থই জিওবি হতে ব্যয় হবে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদফতরের ‘শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন (২য় পর্যায়)’ প্রকল্পের আওতায় ৫ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবের জন্য ৮৫ হাজার ল্যাপটপ, ৫ হাজার ওয়েব ক্যামেরা, ৫ হাজার রাউটার এবং ৫ হাজার নেটওয়ার্ক সুইচসহ অন্যান্য তথ্য প্রযুক্তি সামগ্রী সংগ্রহ, সরবরাহ ও স্থাপনের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

৮৫ হাজার ল্যাপটপ কেনা হচ্ছে এ কাজটা কারা পাচ্ছে বিস্তারিত জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, আমরা ৫ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্থাপিতব্য শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবের জন্য ৮৫ হাজার ল্যাপটপ কেনার একটি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছি। এটা অনেকগুলো এ্যাসাইনমেন্টে এগুলো কেনা হবে। সবকিছু এখন বলা সম্ভব না। কারন আমরা তাদেরকে আবার রিরাইট করে নিয়ে আসতে বলেছি। তবে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। কিন্তু কঁন কোন কনডাক্টর কতো পেয়েছে সেটার বিস্তারিত আমাদের কাছে ছিলো না। শুধু যিনি লোয়েস্ট তারটা শুধু বলা হয়েছে।

অতিরিক্ত সচিব সাহিদা আক্তার জানান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদফতর থেকে ‘শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন (২য় পর্যায়)’ প্রকল্পের আওতায় ৫ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্থাপিতব্য শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবের জন্য ৮৫ হাজার ল্যাপটপ, ৫ হাজার ওয়েব ক্যামেরা, ৫ হাজার রাউটার এবং ৫ হাজার নেটওয়ার্ক সুইচসহ অন্যান্য আইটি সামগ্রী সংগ্রহ, সরবরাহ ও স্থাপনের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ৪৮৭ কোটি ২১ লাখ ৭ হাজার ৭৯১ টাকা।

প্রস্তাবের বিস্তারিত তুলে ধরে অতিরিক্ত সচিব বলেন, প্রস্তাবটি উত্থাপন করেছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ। বাস্তবায়ন করবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদফতর। প্রকল্পের কাজটি পেয়েছে টেলিফোন শিল্প সংস্থা লিমিটেড। এখানে কার কতো দর সেটা পরিষ্কার করে দেয়া জন্য বৈঠকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
শেখ রাসের ডিজিটাল ল্যাবের জন্য বিশাল সংখ্যক ল্যপটপ কেনা হবে সেক্ষেত্রে আমাদের সরকারি একটি প্রতিষ্ঠান দোয়েল, সেখান থেকে কি এই ল্যাপটপগুলো কেনা যেতে না এমন প্রশ্নেন জবাবে অতিরিক্ত সচিব সাহিদা আক্তার বলেন, এটা আসলে কোন প্রতিষ্ঠাকে টার্গেট করে কেনা হয় না। আমাদের যে সরকারি ক্রয় আইন ও বিধিমালা অনুযায়ী যে ধরনের প্রসিজিউর ফলো করে করা হয়, এক্ষেত্রে সে ধরনের প্রসিজিউর ফলো করা হয়েছে। এখানে কোন প্রতিষ্ঠানকে বিবেচ্য বিষয় করা হয় নি। এখানে দরপত্র প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণকারিদের বিষয়টা বিবেচনা করা হয়। তারা যদি অংশ গ্রহণ করে তাহলেই বিবেচিত হবে।

এছাড়া বৈঠকে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন গণপূর্ত অধিদফতর থেকে ‘অফিসার্স ক্লাব, ঢাকা এর ক্যাম্পাসে বহুতল ভবন নির্মাণ’ প্রকল্পের ড-২ এবং ড-৫ প্যাকেজের পূর্ত কাজ পদ্মা এ্যসোসিয়েট এন্ড ইঞ্জিনিয়ারস লিমিটেডের কাছ থেকে ১৬৪ কোটি ১৪ লাখ ১৯ হাজার ৮৪৮ টাকায় ক্রয়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

এরআগে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি’র সভায় একটি প্রস্তাবের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রস্তাবটি হলো- বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ থেকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রাডার সিস্টেমসহ অন্যান্য যন্ত্রপাতি সরকারি অর্থায়নের পরিবর্তে সংস্থার নিজস্ব অর্থায়নে ক্রয়ের নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ